এবার থেকে অনলাইন টরেন্ট ক্লায়েন্ট এর মাধ্যমে টরেন্টিং করুন। আর হাই স্পিডে মুভি ডাউনলোড করুন। তাই কেউ মিস করবেন না। (পার্ট ১)

টরেন্ট টেক জগতে সবারই পরিচিত একটি শব্দ। অধিকাংশই মানুষ টরেন্ট কে বিভিন্ন মুভি ডাউনলোড এর জন্য ব্যাবহার করে থাকে। কারন এখানে মুভি, প্রিমিয়াম সফটওয়্যার, প্রিমিয়াম গেম, ওয়েব সিরিজ ইত্যাদি বিভিন্ন কিছু খুব সহজে পাওয়া যায়।

টরেন্ট থেকে ফাইল ডাউনলোড করতে সাধারণত uTorrent সফটওয়্যার টি ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এতে বিভিন্য অসুবিধা আছে।

যেমন আপনি যদি সেলুলার ডেটা ব্যবহার করে uTorrent দিয়ে টরেন্টিং করতে যান তবে কোন ভাবেই তাল পাবেন না। কারন টরেন্টে কোন ফাইলের জন্য নির্দিষ্ট কোন সার্ভার থাকে না। এর জন্য আপনাকে টরেন্ট ফাইল ডাউনলোডের সাথে আপলোডও করতে হয় যাতে করে অন্য কেউও সেটা ডাউনলোড করতে পারে। ফলে ৫০০ এমবির কোন টরেন্ট ফাইল ডাউনলোড করতে খরচ হয়ে যায় প্রায় ৮-৯শ এমবি।

টরেন্ট ডাউনলোডে প্রচুর পরিমাণে ব্যান্ডউইথ এর প্রয়োজন হয় এ জন্য অধিকাংশ ইন্টারনেট সার্ভিস প্রভাইডার টরেন্ট ডাউনলোড এর স্পিড কমিয়ে রাখে।

তবে এই সব অসুবিধা বাইপাস করারও বুদ্ধি আছে, আর তা হলো অনলাইন টরেন্ট ক্লায়েন্ট ব্যবহার করা।

অনলাইনে বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় টরেন্ট ক্লায়েন্ট ওয়েবসাইট আছে এদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হলো সিডার.সিসি ওয়েবসাইট।

সিডার হলো এমন একটি ওয়েবসাইট যারা টরেন্ট থেকে কোন ফাইল তাদের হাই স্পিড সার্ভার এর মাধ্যমে আগে ডাউনলোড করবে। তারপরে আপনি সাধারণ পদ্ধতিতে তাদের সার্ভার থেকে ফাইলফাইল আপনান ডিভাইসে ডাউনলোড করতে পাবরেন। এতে করে আপনাকে ডাউনলোড এর সাথে আর আপলোড করতে হবে না। এবং আপনার এমবিও বেঁচে যাবে।

সিডার থেকে কোন টরেন্টিং করতে চাইলে আগে একটি সিডার একাউন্ট তৈরি করতে হবে। আর হ্যা, সিডার দিয়ে সর্বোচ্চ ২ জিবি পর্যন্ত টরেন্টিং করতে পারবেন। কিন্তু নির্দিষ্ট কিছু কাজ করে এর পরিমান টা বাড়াতে পারবেন। এ বিষয়ে পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

কিভাবে সিডার একাউন্ট তৈরি করতে হয়?
সিডার একাউন্ট তৈরি করতে প্রথমে এখানে ক্লিক করুন। তাহলেই চলে যাবেন সিডারের ওয়েবসাইটে। এবার স্ক্রিনশট দেখানো অনুযায়ী সাইন আপ বাটনে ক্লিক করুন।


এবার ইমেইল বক্সে ইমেইল এবং তার নিচে পাসওয়ার্ড দিন। এবং I agree to seedr Terms and Privacy Policy এর পাশে থাকা চেক বক্স টি চেকড করুন। এবং Register With Email বাটনে ক্লিক করুন।

এবার একটি ক্যাপচা আসবে সেটা ভালো ভাবে সমাধান করুন। ক্যাপচাতে সবার উপরে লেখা থাকে যে ট্রেন, মোটরসাইকেল, পাহাড় এর সব ছবি হুলো সিলেক্ট করুন। তো আপনি ভালো ভাবে দেখে নিবেন কি ক্যাপচা আসে সেই অনুযায়ি সিলেক্ট করবেন। আর এই ক্যাপচা তো রিক্যাপচার থেকেও সহজ।

এবার আপনার ইমেইলে একটি মেইল পাঠানো হয়েছে এমন একটি মেসেজ দেখতে পাবেন। মেসেজটি ক্লোজ করে দিন সমস্যা নেই

এবার আপনার ইমেইলে লগিন করুন। এরপরে সিডার খেকে একটি মেইল আসবে সেটা ওপেন করুন। মেইল না পেলে স্পাম ফোল্ডারে চেক করতে পারেন।

এবার মেইলে থাকা স্টার্ট বাটন টি দেখতে পাবেন। সেটাতে ক্লিক করুন।

স্টার্ট বাটনে ক্লিক করলে একাউন্ট অ্যাক্টিভ করতে হবে। অ্যাক্টিভ একাউন্ট বাটন টিতে ক্লিক করুন। এর পরে আবারো একটি ক্যাপচা আসতে পারে আবার নাও আসতে পারে।

অ্যাকাউন্ট অ্যাক্টিভ হয়ে গেলে আপনাকে সিডার এর মেইন প্যানেলে নিয়ে যাওয়া হবে। সেটা দেখতে ঠিক এই রকম।

পোস্ট অনেক বড় হয়ে গেছে। ইতিমধ্যেই ৫০০ ওয়ার্ড হয়ে গেছে তাই আজ লিখছি না। বাকিটা এই পোস্ট এর পার্ট ২ এ পেয়ে যাবেন।

আশা করি সবাই ততক্ষণে সিডার একাউন্ট খুলে ফেলবেন। কোন কিছু বুঝতে অসুবিধা হলে কমেন্ট করুন। অথবা আমাকে ফেসবুকে মেসেজ করুন।

Leave a Reply