POCO M3 ফুল বাংলা রিভিউ (১৫ হাজার টাকায় সেরা ফোন)

আসসালামু আলাইকুম
. POCO M3 ফুল ইউজার রিভিউ,,,,

আমি গত ৮ জানুয়ারি অফিশিয়াল শোরুম থেকে পোকো m3 ফোনোটি বোনের জন্য কিনি, এই ৪-৫ দিন ব্যাবহার করে ফুল রিভিউ দেয়া কঠিন, তবুও বিভিন্ন গ্রুপে এই ফোনের ব্যাপারে অনেকেই অনেক প্রশ্ন করছেন, ইনফরমেশন চাইছেন, তাই আমি আমার এই ৪-৫ দিনের সম্পুর্ণ অভিজ্ঞতা তুলে ধরার টেস্টা করছি,,,,, আগেই বলে রাখি এই ৪-৫ দিন আমি হেভি প্রেশার এ ইউজ করেছি,,,তাই সেটটির সম্পর্কে মোটামুটি ধারনা পাওয়া হয়ে গেছে,,

এইবার আসি রিভিওতে,,, বলে রাখি আমি MIUI 12..0.1 অর্থাৎ শোরুম থেকে আনার সময় যে ভার্শন থাকে সেটায় আছি,,,

Full HD
ডিসপ্লে কোয়ালিটি এই বাজেটে যথেষ্ট ভালো,ব্রাইটনেস ও সন্তোষজনক,,

মেইন ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামরা টি এই বাজেটে সিমপ্লি বেস্ট, ১৫ হাজারে এর থেকে বেশি আশা করা বোকামি,,, আর বাকি ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যমেরা ভালো আলো অথবা ফ্ল্যাশলাইট জ্বালায়ে তুললে মোটামুটি মানের ম্যাক্রো শট পাবেন,,,৷ উল্লেখ্য জিক্যাম ইউজ করে মেইন ক্যামেরায় অসাধারণ পোর্ট্রেইট, নাইট মোডে, এবং বাকি সকল মোডেই অসাধারণ ডিটেইল্ড এবং শার্প পিকচার পাওয়া গেছে,,

সেলফি ক্যামেরা টি অতটাও ভালো না,,, দিনের বেলা পর্যাপ্ত আলোতে ভালো ছবি পাওয়া গেলেও রাতে এবং ইনডোরে ছবি ভালো আসে না, নরমালি ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরায় আরেকটু ভালোই পাওয়া যায়,,হতে পারে সফটওয়্যার অপাটিমাইজেশন এর অভাব আছে,,, এবং সেলফি ক্যামেরায় জিক্যাম যথারীতি খুবই ভালো ছবি দিতে পেরেছে,,,,

আমি একটানা সারাদিন ইউজ করেছি,৷ ফেসবুক, মেসেঞ্জার অলঅয়েজ অন, পাশাপাশি ইউটিউব, ছবি তোলা হয়েছে আর এভারেজ ২ ঘন্টা করে পাবজি খেলা,,তাছাড়া বিভিন্ন গেম যেমন ফ্রি ফায়ার, পেস ২১ …… গেমিং সেকশনে এটা নিয়ে কথা বলব,,,
তো এই ধরনের ইউজে আমি সকালে ১০০% চার্জ দিয়ে শুরু করে সারাদিন টানা ইউজ করেছি খাওয়া আর গোসল টাইম বাদে😆 এবং আমি রাত ১২- ১ টা পর্যন্ত ব্যাবহার করে চার্জ ৫% এ আনতে সক্ষম হয়েছি,,,, সর্বোচ্চ ১৫,ঘন্টা, এভারেজ ১৩++ ঘন্টা করে ব্যাকাপ পেয়েছি,,
এক কথায় ৬০০০ এমএইচ তার কাজ করেছে,,, নরমাল ইউজার আরামসে ২ দিন ব্যাকাপ পাবে,,,

আর চার্জিং টাইম একটু বেশি লাগবেই ৩ ঘন্টার কমবেশি লাগে,,, কিন্তু এই ব্যাকাপের জন্য এটা কোন সমস্যাই না,,, আমি রাতে ঘুমানোর সময় চার্জ দিয়ে ঘুমাইছি,,

এইবার আসি সবচেয়ে বেশি যা নিয়ে প্রশ্ন হচ্ছে সেই গেমিং এর কথায়,,

গেম বলতে আমি পাবজি ই খেলি, তবে ইনফরমেশন সংগ্রহের জন্য অন্য গেমগুলাও খেলা হয়েছে, তবে aspaht 9 প্লে স্টোরে পেলাম না,
পাবজি টানা ৩ ঘন্টার বেশি খেলা হয়নি, তেমন কোন ল্যাগ পাই নি, একশন মোমেন্ট এ মাঝে মাঝে ফ্রেম ড্রপ হয় তবে সেটা গেমপ্লেতে বড় কোন প্রভাব ফেলে না,, আর ফ্রি ফায়ার আল্ট্রা তে দিয়ে ভালোভাবেই খেলতে পেরেছি,
মোটকথা যারা এই বাজেট অন্য সব ফিচার মিস না করে পাশাপাশি মোটামোটি গেমিং ও করতে চান তারা নিতেই পারেন,,,

#আর এর স্টেরিও স্পিকার যে জোস তা মোটামুটি সব রিভিয়ার ই বলেছেন,,২০ হাজার টাকার ফোন কেও টক্কর দিবে এই স্পিকার,,যথেষ্ট লাউড এবং ওয়াইড সাউন্ড,

#ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর অনেকেই স্লো বলছেন আসলে তা না,, এনিমেশন স্লো হওয়ার কারনে একটু স্লো লাগতে পারে বাট অত খেয়াল করার মত স্লো না,,

#অভারঅল এই ১৫০০০ টাকা মাথায় রাখলে, এত ব্যালেন্সড অফিশিয়াল ডিভাইস বাজারে এখন নেই,,,

#অনেকেই narzo 20 সাথে এর কম্পারিজন করছেন, তাদের জন্য বলি,,, আপনার মোবাইল কেনার উদ্দেশ্য যদি শুধুই গেম খেলা এবং বাজেট ১৫০০০ এর বেশি নাই,,এবং শাওমি বা পোকোজনিত চুলকানি আছে, তারা অন্য সব দিক স্যাক্রিফাইস করে,, শুধু হালকা একটু গেমিং বেটার এর৷ এর জন্য নিতে পারেন,,,, দিনশেষে আপনার পছন্দসই সেট ই কিনবেন,আর আপনি যে ফোনই কিনেন তাতে আমার চার আনা লাভ/লস হবে না,তাই কমেন্ট বক্সে ফ্যানবয় বলে চিল্লাচিল্লি করে বোকার পরিচয় দিবেন না,

narzo 20 আমিই কিনতে চেয়েছিলাম গেম খেলার জন্য, বাট শুধু একটু বেটার গেমিং এর জন্যা, ১০৮০পি ডিসপ্লে, স্টেরিও স্পিকার,বেটার মেইন ক্যামেরা, গুগল ক্যামেরা সাপোর্ট, স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর, এতকিছু ছাড়তে হবে ভেবে নেই নি,,,

# অনেক লম্বা হয়ে গেছে আর লিখব না, কারো কিছু জানার থাকলে বা কোন কিছু বাদ পরলে কমেন্ট বক্সে জানান,আমি উওর দেয়ার চেস্টা করব,,,,
ধন্যবাদ

Leave a Reply