[HOT] এখন থেকে প্রতি ১০০০ ভিউসে পাবেন সর্বোচ্চ ২০ ডলার, সর্বনিম্ন ৩ ডলার!!!🔥(Part2) কিভাবে কাজ করবেন, পেমেন্ট পাবেন। [Must See]

আসসালামুয়ালাইকুম

আমি গতকাল রাতে একটি পোস্ট করেছিলাম, যেটায় আমি একটি লিংক শর্টনার সাইট আপনাদের সাথে শেয়ার করেছিলাম। ওই পোস্টে অনেকে বলেছেন, সাইটটির কাজ কি?, পোস্টে আগা মাথা কিছুই নাই! আপনারা এমন মন্তব্য করার সুযোগ পাওয়ার কারণ হচ্ছে আমার পোস্ট করার উদ্দেশ্য।

আমি মূলত তাদের জন্য পোস্টটি করেছিলাম যারা আগে থেকেই লিংক শর্টনার সাইট নিয়ে কাজ করতেন। যাই হোক, আজকে আমি কিছু প্রশ্নের উত্তর দিয়ে সাইটটির বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরবো। আশা করি এক্সপার্টরা আবার অভিযোগ করে বসবেন না।

সাইটটির কাজ কি?
সাইটটি হচ্ছে একটি লিংক শর্টনার সাইট, এটি দিয়ে আপনি আপনার কনটেন্ট এর লিংক ছোট করে ইনকাম করতে পারবেন। উদাহণস্বরূপ বলা যায়, আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে একটি অ্যাপ নিয়ে ভিডিও শেয়ার করবেন অ্যাপ ডাউনলোড লিংক সহ। আপনি যদি ঐ লিংক , লিংক শর্টনার সাইট থেকে শর্ট করে শেয়ার করেন তাহলে আপনি প্রতি ১০০০ ভিজিটরে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ পাবেন। আশা করি বোঝাতে পেরেছি।

সাইটটিতে পেয়িং-রেট কেমন?
আমার দেখা সবচেয়ে হাই পেয়িং লিংক শর্টনার সাইট হচ্ছে Clicksfly । আপাতত এই সাইট এর চেয়ে বেশি রেট আপনি কোনো লিংক শর্টনার সাইটে পাবেন না।

পেমেন্ট কিভাবে নিব?
বিটকয়েন, পেপাল, পেই ইয়ার ও ভারতীয়রা Paytm দিয়ে পেমেন্ট নিতে পারবেন। বিটকয়েন এর ক্ষেত্রে ৫ ডলার, পেপাল ও Paytm দিয়ে ৩ ডলার হলেই সঙ্গে সঙ্গে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

এবার আসি সাইটের বিস্তারিত আলোচনায়।

প্রথম পোস্টে আমি কিভাবে রেজিস্টার করতে হয় সেটা দেখিয়েছি ও পেইং রেট নিয়ে কিছু কথা বলেছি। পোষ্টটি দেখে আসুন 👉 [HOT] এখন থেকে প্রতি ১০০০ ভিউসে পাবেন সর্বোচ্চ ২০ ডলার, সর্বনিম্ন ৩ ডলার!!!🔥

এখন ধরে নিচ্ছি আপনার রেজিস্টার করা হয়ে গেছে, এখন স্ক্রিনশট অনুযায়ী কাজ করুন।

Advanced Option এ ক্লিক করুন।

প্রমম বক্সে আপনার লিংক পেস্ট করুন, দ্বিতীয় বক্সে আপনার লিংক ট্র্যাক করার জন্য কিছু লিখুন, যেমন আমি লিখছি ssfortrickbd।

এবার shorten এ ক্লিক করুন।

এখন আপনি আপনার লিংক কপি করে নিতে পারেন।

আপনার লিংক শর্ট করা হয়ে গেলো। আপনি চাইলে সাইড- বারে ক্লিক করে আপনার সকল লিংক ম্যানেজ করতে পারবেন।

এবার আসি কিভাবে withdraw দিবেন সেটা নিয়ে।

প্রথমে সাইড বার থেকে সেটিংস এ ক্লিক করুন, তারপর প্রোফাইল এ ক্লিক করুন

নাম, ঠিকানা ও শহর ঠিক মতো দিয়ে নিন।

জিপ কোড, কান্ট্রি ও পেমেন্ট মেথড দিয়ে নিন।

বিটকয়েন মাধ্যমে পেমেন্ট নিলে খালি বক্সে বিট কয়েন অ্যাড্রেস দিন। পেপাল এর মাধ্যমে নিলে মেইল অ্যাকাউন্ট দিন।

সাবমাইট এ ক্লিক করুন।

সবমাইট সাকসেসফুল হলে, আবার সাইড বারে ক্লিক করুন।
Withdraw এ ক্লিক করুন।

আবার withdraw এ ক্লিক করুন। ব্যাস আপনার কাজ শেষ, কয়েক মিনিট এর মধ্যে পেমেন্ট পেয়ে যাবেন।

বিশেষ দষ্টব্য: বিট কয়েন এর ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ৬% চার্জ কাটবে কিন্তু পেপাল দিয়ে পেমেন্ট নিলে কোনো ফি কাটবে না, সুতরাং যারা পেপাল ব্যাবহার করেন, তাদেরকে পেপাল দিয়ে পেমেন্ট নিতে বলবো। ধন্যবাদ

Leave a Reply