Home Login Register
Click here to share any of your writing

[New] লাইভ স্কোর আপডেট কিভাবে কাজ করে? যতটা সহজ দেখায় আসলেই কি এটা ততটা সহজ?

Home / অন্যান্য / [New] লাইভ স্কোর আপডেট কিভাবে কাজ করে? যতটা সহজ দেখায় আসলেই কি এটা ততটা সহজ?

K M Rejowan Ahmmed › 3 months ago
K M Rejowan Ahmmed

Explaining Live Score System

স্বাগতম সবাইকে

এই যে খেলা দেখেন টিভিতে, স্কোর দেখেন ক্রিকবাজের মত এ্যাপে, কখনো কি ভেবে দেখেছেন কিভাবে টিভির স্ক্রিনে বা কোনো ওয়েবসাইটে বা এ্যাপে কিভাবে বলের পর বলের গতি, রান, রান রেট এসব রিয়েল টাইমে দেখায়? কিভাবে প্রতিটা জিনিস এত দ্রুত চলে আসে সামনে? চলুন দেখি কিভাবে দেখানো হয় এই লাইভ আপডেট গুলো।

K M Rejowan Ahmmed

Cricbuzz app showing live score

আমরা ভাবি যে স্কোর গুলো অটোমেটিক চলে আসে, এটা কোনো কম্পিউটার সিস্টেম। কিন্তু আদতে এটা সম্পুর্ণ মানুষের মেনুয়ালিই করতে হয়। অটোমেটিক কোনো সিস্টেম লাইভ স্কোর এ নাই। এবার আসল আলোচনায় আসা যাক।

 

লাইভ স্কোর দেখানোর জন্য দুই ধরণের লোকের দরকার হয়-

যারা স্কোর/ডিটেলস গুলো স্পট করে –  স্পটার যারা জিনিস গুলো টাইপ করে – টাইপিস্ট

Typist

Spotter

 

 

 

 

 

 

স্পটার এর কাজ হল ডিটেলটা স্পট করা বা সোজা কথায় তার কাজ হল খেলাটা পর্যবেক্ষণ করা। এরপর সেটা টাইপিস্টকে জানানো।

টাইপিস্ট এর কাজ হল তড়িৎ গতিতে সেটা টাইপ করে ডাটাবেজে আপলোড করে দিয়ে দেয়া।

সম্পুর্ণ কাজটাই এত দ্রুত করতে হয় যে আমাদের চোখে সেটা ধরা পড়ে একদম রিয়েল-টাইমে, আমরা একদম সংগে সংগে পেয়ে যাই সবকিছু।

 

একটা ক্রিকেট ম্যাচের স্কোর/ডিটেলস আপডেটের জন্য অনেক  লোকের প্রয়োজন হয়। প্রতিটা জিনিসের জন্য স্পটার/টাইপিস্ট দুটোই দরকার পড়ে। যেমন ধরুন-

বলের স্পিডঃ বলের স্পিড কত এখন সেটা অফিসিয়াল থেকে স্পট করে স্পটার এবং সংগে সংগে সেটা টাইপ করে ফেলে টাইপিস্ট।

রান রেটঃ প্রতিটা বলের পর পর রান রেট চেঞ্জ হয়। এক্ষেত্রে একজন থাকে যিনি ক্যালকুলেশন করেন রান রেট এবং টাইপিস্ট সেটা ডাটাবেজে আপলোড করেন।

এভাবে আমরা প্রতিটি খেলার কমেন্টারি, স্কোর সব কিছু পেয়ে যাই নিজেদের হাতের নাগালে। আমাদের কাছে মনে হয় যে জিনিসটা কত সহজ, কিন্তু পেছনে আছে অনেক হার্ড ওয়ার্ক।

 

এই ডাটাবেজ গুলো  API বা আরও বিভিন্ন রুপে লাইসেন্স সহ বিক্রি করে বিভিন্ন কোম্পানি। এক্ষেত্রে এগুলোর প্রাইজ পড়ে বাংলাদেশি টাকায় ১০ হাজার – ২০ হাজার । কোম্পানি ভেদে প্রাইজ কমবেশি হয়। অনেকে আবার ফ্রিতেও দেয় API গুলো।

তো আজ এ পর্যন্তই। জিনিসটা যদি নতুন জেনে থাকেন তো কমেন্ট করতে ভুলবেন না।

 

আমার এ্যান্ড্রয়েড এ্যাপ ডেভেলপমেন্ট সিরিজের পোস্ট গুলো দেখতে পারবেন এখানে-

ভুমিকা –  [Android App Development: EP-0] ভুমিকা ও শুরুর কথা 

প্রথম পোস্ট – [Android App Development: EP-01] Android Studio ইন্সটল ও সেটাপ করা 

দ্বিতীয় পোস্ট- [Android App Development: EP-02] Android Studio তে নতুন প্রজেক্ট তৈরি করা

তৃতীয় পোস্ট – [Android App Development: EP-03] Emulator সেটাপ করা এবং App রান করানো

 

ভাল থাকবেন। সুস্থ থাকবেন। কেমন লাগল জানাবেন।

K M Rejowan Ahmmed

[email protected]

Facebook Profile


About Author


Contributor
Total Post: [7]

Leave a Reply

You Must be Login or Register to Submit Comment.

AmarTips.Mobi 2017
Powered by - AmarTips.Mobi