সেরা ৫টি ভিডিও কলিং অ্যাপ অ্যান্ড্রয়েডের জন্য

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভালো আছেন। amartips এর পক্ষ থেকে সবাইকে কে টেক ওয়ার্ল্ডে স্বাগতম। আজ আপনাদের মাঝে নিয়ে এসেছি ৫ টি সেরা ভিডিও কলিং অ্যাপ এর রিভিউ। আশা করি সবার পছন্দ হবে ইনশাল্লাহ। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

কিছু কথা

ভিডিও কলিং এর বিষয়ে কম বেশি সবাই শুনে থাকবেন। ভিডিও কলিং বলতে মূলত বুঝায় অডিও প্লাস ভিউসুয়াল কলিং। ভিডিও কলিং করতে গেলে আমাদের মূলত অ্যান্ড্রয়েড কিংবা আই ফোনের দরকার পড়ে। ইন্টারনেটে আপনি অনেক অ্যাপ পেয়ে যাবেন ভিডিও কল করার জন্য। তার মধ্যে পাঁচটি সেরা ভিডিও কলিং অ্যাপ নিয়ে আজকের আলোচনা। তাহলে চলুন শুরু করি।

মেসেঞ্জার

মেসেঞ্জার মূলত ফেসবুকের একটি অংশবিশেষ। বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও কলিং অ্যাপ হচ্ছে মেসেঞ্জার। পৃথিবীর অনেকেই এই অ্যাপটি ব্যবহার করে থাকেন ভিডিও কলিং এর জন্য। পাশাপাশি এতে আরও বিভিন্ন ধরনের ফিচার রয়েছে। তাছাড়া আপনি চ্যাটও করতে পারবেন এর দ্বারা। এর বিষয়ে বেশি কিছু বলার নেই কারণ আমার থেকে হয়ত অনেকেই মেসেঞ্জার সম্পর্কে বেশি জেনে থাকবেন। মেসেঞ্জার সারা বিশ্বের জনপ্রিয় হলেও কয়েকটি মহাদেশে এর জনপ্রিয়তা খুবই কম। সে কারণে ওই সব মহাদেশ গুলোতে মানুষেরা অন্যান্য ভিডিও কলিং এর ব্যবহার করে থাকেন। এমনকি বাংলাদেশেও সবাই ভিডিও কলিং হিসেবে মেসেঞ্জার কে খুব একটা প্রাধান্য দেয় না। বেশিরভাগ মানুষই এটি ব্যবহার করে থাকেন ফেসবুকের চ্যাটিং এর জন্য। কিন্তু সব দিক বিবেচনা করতে গেলে এটি বিশ্বের সেরা ভিডিও কলিং অ্যাপ।

ইমো

বর্তমানে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও কলিং অ্যাপ হচ্ছে ইমো। ইমো খুবই ছোট বা লাইট একটি অ্যাপ। তাছাড়া এর ভিডিও কোয়ালিটি অনেক ভালো হওয়ায় সকলের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ভিডিও কলিং অ্যাপ হিসেবে ইমু আমার কাছে ও একটি জনপ্রিয় অ্যাপ। ভিডিও কলিং এর পাশাপাশি আপনি ইমোতে চ্যাটিং করতে পারেন আপনার বন্ধুদের সঙ্গে। পৃথিবীর প্রায় অনেক দেশেই ইমো অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন সবাই। তাই বলতে গেলে মেসেঞ্জার এর পরেই ইমোর অবস্থান।

গুগল ডুয়ো

ইন্ডিয়ার মোস্ট ফেভারিট ভিডিও কলিং অ্যাপ হচ্ছে গুগল ডুয়ো। ইন্ডিয়াতে প্রায় ৮০ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরাই গুগোল ডুয়ো ব্যবহার করে থাকেন ভিডিও কলিং অ্যাপ হিসেবে। তাছাড়াও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গুগোল ডুও এর জনপ্রিয়তা অনেক। আজ এখানে গুগোল এর সিকিউরিটি রয়েছে সেটা কারি বা পছন্দ হবে না। বাংলাদেশ খুব কম ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরাই গুগোল ডুও ব্যবহার করে থাকে।

স্কাইপ

মাইক্রোসফট এর একটি জনপ্রিয় সফটওয়্যার হচ্ছে স্কাইপ যাকে সবাই স্কাইপি নামে ডাকে। একটি উইন্ডোজ, ম্যাক, আইফোন এর পাশাপাশি অ্যান্ড্রয়েডেও রয়েছে। এটি দিয়ে মূলত ভিডিও কলিং করা হয়। এর ভিডিও কোয়ালিটিও তুলনামূলক ভালো। আমেরিকাতে এর জনপ্রিয়তাও অনেক। তাছাড়া রাশিয়ানরা ও স্কাইপ ব্যবহার করে থাকেন ভিডিও কলিং অ্যাপ হিসেবে।

ভাইবার মেসেঞ্জার

বিশ্বের আরেকটি জনপ্রিয় ভিডিও কলিং অ্যাপ হচ্ছে ভাইবার মেসেঞ্জার। এটিতে আপনি অনেক ভাল কোয়ালিটির ভিডিও কলিং করতে পারবেন যা সম্পূর্ণ ফ্রি। আপনার শুধু মাত্র ডাটা কানেকশন দরকার পড়বে। বাংলাদেশে এর জনপ্রিয়তা কম হতে পারে কিন্তু অন্যান্য দেশে এর জনপ্রিয়তা বেশ সৌখিন। যেহেতু এটি একটি মেসেঞ্জার অ্যাপ তা ভিডিও কলিং এর পাশাপাশি আপনি চ্যাটিং করতে পারবেন আপনার বন্ধুদের সঙ্গে।

পরিশেষে

পোস্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ, আশা করি ভালো থাকবেন, পরের পোস্টে দেখা হবে। পোস্ট ভালো লাগলে অবশ্যই লাইক করুন এবং আপনার মতামত জানান।

সময় হলে ঘুরে আসতে পারেন আমার পার্সোনাল ওয়েবসাইটটিতে: A Techy Tutor

ধন্যবাদ

Leave a Reply