দেখুন যেভাবে ডকুমেন্ট তৈরি করে ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করবেন এবং ডিজেবল একাউন্ট ব্যাক করবেন।

আসসালামু আলাইকুম,
আশা করছি মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর রহমতে সকলেই অনেক ভালো আছেন এবং ইনশাল্লাহ আমিও অনেক ভালো আছি তাই চলে আসলাম নতুন এক টিউটোরিয়াল নিয়ে।

আসলে ডকুমেন্ট বানানোর কনটেন্ট তৈরি করতে একটু সময় লেগে গেলো পার্সোনাল লাইফে অনেক বেশীই সময় দিতে হচ্ছে সব মিলিয়ে একটু বেশীই সময় লাগলো।

আমি ভেবেছিলাম আমারটিপ্সথেকে বিদয় নিবো, ট্রিকবিডি – তে আসার কারণ ছিলো সকল – কে নিজের জ্ঞান উজার করে দেওয়া। আমি অবশ্যই এমন কোনো বড় কেউ না তবুও আমার ভেতর যতোটা আছে সেই সকল জ্ঞান আমি উজার করে দিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু তার ফলাফল হিসাবে প্রতিটা কনটেন্ট এর মন্তব্য এর বক্স এ অসাধারণ কিছু জনতা না বুঝেই অনেক কিছু মন্তব্য করে বসেন যা সত্যিই কষ্টকর। সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যখন আমারটিপ্সথেকে বিদয় নিতে যাই তখন এই জ্ঞান শক্তি – কে সকলের মাঝে বিলিয়ে দেওয়া এবং জ্ঞান – কে নতুন করে জানার বা শিখার এই প্রিয় প্লাটফর্ম তৈরি করেছে Rana ভাই, তিনি আমাকে বার্তা প্রেরণ করে এবং আমাকে বিষয়টা বিবেচনা করতে বলে, বিবেচনা করে দেখলাম তার কথায় কোথায় ভূল নেয় আর সব থেকে বড় কথা হলো আমার অভিমান যে বুঝে তার থেকে কখনো চলে যাওয়া সম্ভব না, যাই হোক নতুন করে আবারও থাকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ফেললাম।

আমি কিছুদিন আগে ফেসবুক আইডি হ্যাক করা (Access) নিয়ে একটা কনটেন্ট তৈরি করেছিলাম ওই কনটেন্ট এর মূল হাতিয়ার হলো ডকুমেন্ট কারণ ডকুমেন্ট ছাড়া হ্যাক করা পসিবল হবে না। তবে আমি আগে হ্যাক করার সিস্টেম পাবলিশ করেছিলাম কারণ হলো এমন অনেকেই আছে যারা আমার ট্রিকরেড ওয়েবসাইট এ এসে আমাকে প্রতিনিয়ত মেছেস করতো যে তারা একাউন্ট এর পাসওয়ার্ড ভূলে গেছে এবং ওই একাউন্ট এর নম্বর বা ইমেল কিছুই তাদের কাছে নাই এবং রিয়েল একাউন্ট তাদের। তারা আমার এই কনটেন্ট দেখে তার রিয়েল ডকুমেন্ট তার একাউন্ট এ সাবমিট করে তার আইডিটা জানো Recovery করতে পারে।

ফেসবুক একাউন্ট কখনো হ্যাক হয় না এটা কিন্তু সত্যি কথা, ফেসবুকে রয়েছে অগণিত সিকিউরিটি এক্সপার্ট যারা বিশ্ব বিখ্যাত। আপনারা হয়তো হ্যাকার কাকে বলে এটা অবশ্যই জানেন তারা বিভিন্ন ওয়েবসাইট ইত্যাদি হ্যাক করে, ঠিক ফেসবুকেও রয়েছে অগণিত স্প্যামিং টিম যারা ফেসবুকের সকল কাজে এক্সপার্ট। বেশ কয়েক ধরণের স্প্যামার আছে ভালো বা খারাপ কিছু নাই, কালো টুপিরও স্প্যামার নাই আবার সাদা টুপিরও স্প্যামার নাই স্প্যামার গুলো সবই ধূসর টুপির অধিকারী।

স্প্যামার এর কাজ হলো ফেসবুকের সকল খারাপ কনটেন্ট এবং একাউন্ট রিমুভ / ডিজেবল করা এবং যারা সাধারণ ব্যবহারকারী তাদের বিভিন্ন সাহায্য করা তাদের একাউন্ট, পেজ, গ্রুপ নষ্ট হলে Recovery করে দেওয়া, বড় বড় মডেল, গায়ক ইত্যাদি এই সকল মানুষ এর একাউন্ট ব্লু ভেরিফাইড করে দেওয়া ইত্যাদি, আবার স্প্যামার গুলো এই কাজ এর থেকে বেশী পরে থাকে গেন্জাম এ বিভিন্ন বোম্বিং জিসি – তে। আসলে এক বনে দুই বাঘ যেমন থাকে না তেমনি এক দেশে অনেক বেশীই স্প্যামার হলে যা হয়, ও আর একটা কথা বোম্বিং মানে গালাগালি করা বা এক সাথে অগণিত মেছেস সেন্ড করা কে বুঝাই (স্প্যামিং এর দিক থেকে) অন্য কিছু আবার ভেবে বসবেন না। আর আমি চাচ্ছিলাম আপনাদের কোনো স্প্যামার এর হেল্প জানো নিতে না হয়।

আজকে আমি আপনাদের শিখাবো কীভাবে আপনারা ডকুমেন্ট তৈরি করতে পারবেন আসলে এই ডকুমেন্ট তৈরি করে যে শুধু ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করতে পারবেন তা নয় এই ডকুমেন্ট তৈরি করে আপনি আপনার লক হওয়া, ডিজেবল হওয়া ফেসবুক একাউন্ট ও ব্যাক করতে পারবেন। আপনাদের যখন ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যাই বা কোনো ডকুমেন্ট সাবমিট করতে বলে তখন আপনারা গুগল সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করে বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে ডকুমেন্ট তৈরি করেন তারপর ওটা সাবমিট করেন পরে রিভিউ পজিটিভ আসে না তখন আবারও ওই ভূল কার্ড সাবমিট দিয়ে রিভিউ ব্লক খেয়ে বসে থাকেন আর বলেন এডিট কার্ড এ কাজ হয় না। আসলে ডকুমেন্ট ওইভাবে বানাতে হয় না ওই সকল ওয়েবসাইট এর ডকুমেন্ট কাজ করলে তো ভালোই হতো, যাই হোক ফেইক ডকুমেন্ট তৈরি করা সম্পূর্ণ আইনি অপরাধ আমি শুধু শিক্ষার কারণে আপনাদের শিখাচ্ছি জানো আপনাদের শখের একাউন্ট Recovery করতে পারেন, কোনো রকম এই ডকুমেন্ট সরকারী কাজে বা কোনো খারাপ কাজে ব্যবহার করতে যাবেন না। এটা শুধু মাত্র ফেসবুক একাউন্ট Recovery এর জন্য ব্যবহার করবেন।

ডকুমেন্ট তৈরি করতে একটা সফটওয়্যার এর প্রয়োজন হবে যেটা খুবই জনপ্রিয় একটা সফটওয়্যার এবং আপনাদের খুবই পরিচিত সফটওয়্যার PicsArt এটা একটা ফটো এডিটর সফটওয়্যার আশা করি এই সফটওয়্যার এর বিষয় আপনারা সকলেই জানেন, এই সফটওয়্যারটা সকলেই ডাউনলোড করে নিবেন এটা গুগল প্লে স্টোর এ পেয়ে যাবেন।

App Name: PicsArt
App Size: 27 MB

Download Link

আশা করছি সফটওয়্যারটা যাদের ফোনে ইন্সটল নাই তারা ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিছেন এবং আমারও ডাউনলোড এবং ইন্সটল করা আছে। ন্যাশনাল আইডি কার্ড বানাতে আপনার দুইটা Font এর প্রয়োজন হবে।

বাংলা লেখার জন্য আপনাকে Kalpurush Font কে ব্যবহার করতে হবে এবং ইংরেজি লেখার জন্য আপনাকে Arial Font ব্যবহার করতে হবে। এই Font গুলো আমি ফাইল শেয়ারিং ওয়েবসাইট এ আপলোড করে দিছি নিচে ডাউনলোড করার জন্য লিংক দেওয়া হলো।

আশা করছি সকলেই Font দুইটা ডাউনলোড করে নিছেন, এখন আপনাকে এই Font দুইটা PicsArt সফটওয়্যার এ সেটআপ দিতে হবে যারা Font সেটআপ পারেন করে নিবেন আর যারা পারেন না কীভাবে করবেন বলে দিচ্ছি আমি, আপনি যখন PicsArt সফটওয়্যার ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিবেন তখন আপনার ফোনের ফাইল ম্যানেজার এ গিয়ে দেখবেন একটা ফোল্ডার তৈরি হয়ে গেছে PicsArt নামে ওটাই প্রবেশ করুন।

এই ফোল্ডার এ প্রবেশ এর পর দেখবেন Fonts বলে একটা ফোল্ডার আছে ওটাই প্রবেশ করুন।

এখন দেখুন Fonts ফোল্ডার ফাঁকা আছে Screenshot এর মতো।

এই ফোল্ডার এ আমার দেওয়া Kalpurush এবং Arial Fonts দুইটা পেস্ট করুন।

এখন আপনি PicsArt সফটওয়্যারটা ওপেন করুন, নিচের Screenshot এর মতো দেখতে পাবেন।

এখন Text অপশন খুঁজে বার করুন।

এখন আপনার নাম লিখুন মানে যে আইডি হ্যাক করতে চান ওই আইডির নাম লিখুন আমি আপনাদের দেখানোর জন্য ট্রিকরেড লিখলাম।

এখন এই বাংলা লেখার জন্য আপনাকে Kalpurush Font ব্যবহার করতে হবে, ওই Font গুলো ব্যবহার এর জন্য এইখানে ক্লিক করুন একটা।

দেখুন PicsArt এর Default Fonts গুলো ডিসপ্লে হচ্ছে এখন আমার দেওয়া Font গুলো ব্যবহার করার জন্য My Fonts লেখায় ক্লিক করুন।

এখন দেখুন Kalpurush এবং Arial Fonts দুইটাই ডিসপ্লে হচ্ছে আমি ক্লিক করলাম Kalpurush Font এ কারণ বাংলা লিখছি এখন আমি তাই Kalpurush ব্যবহার করবো।

এখন আপনার পরিবার এর কারো ন্যাশনাল আইডি কার্ড বা আপনার আব্বু / আম্মুর ন্যাশনাল আইডি কার্ড দেখুন কীভাবে রয়েছে ওই রকম করে সব Font এবং কালার মিলিয়ে তৈরি করুন ডকুমেন্ট। আমি তো ভিডিও টিউটোরিয়াল তৈরি করি না নইলে বাকী টাও দেখাতে সক্ষম হতাম, এখন সম্পূর্ণ আপনার চেষ্টার কাজ।

এখন আপনারা এমন অনেকেই আছেন গুগল সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করে ন্যাশনাল আইডি কার্ড এর Blank খুঁজবেন কিন্তু না এই ভূল করবেন না, গুগল থেকে যে Blank কার্ড আপনি পাবেন ওইগুলো যতোই এডিট করে সাবমিট করেন না কেনো কোনো কাজ হবে না, তাহলে এখন কোথায় পাবেন Blank ডকুমেন্ট। আপনার আব্বু অথবা আম্মুর ন্যাশনাল আইডি কার্ড এর একটা ক্লিয়ার ছবি তুলে নিন নিয়ে ওই কার্ডটা Blank করে নিন এবং এডিট করতে শুরু করুন কার্ড এডিট ১০০% ঠিক মতো হলেই একাউন্ট ব্যাক আসবে অবশ্যই, আর আপনাদের কারো Screenshot এ দেখানো Blank ডকুমেন্ট যেটা রয়েছে ওটার প্রয়োজন পড়ে তাহলে আমার সাথে যোগাযোগ করবেন আমি ১০০% ফ্রি – তে দিয়ে দিবো। ডকুমেন্ট এই কনটেন্ট এর সাথে এড করে দিলে অনেকটা ঝাপসা হয়ে যাবে ডকুমেন্ট এর প্রয়োজন পড়লে আমার ওয়েবসাইট থেকে আমাকে মেছেস করে আপনার ইমেল ঠিকানা দিয়েন আমি Blank ডকুমেন্ট ইমেল করে দিবো।

বি.দ্রঃ এই কনটেন্ট সম্পূর্ণ শিক্ষার উদ্দেশ্যে। কোনো রূপ নীতি বিরুদ্ধ কাজের ক্ষেত্রে আমি বা আমারটিপ্সদায়ী থাকবো না।

তাহলে সকলেই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন এবং সবরকম আপডেট ট্রিক পেতে আমারটিপ্সর সাথেই থাকুন।

সৌজন্যেঃ TrickRed.com

Leave a Reply