বাহুবলী এর পর ভারতের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ৩১শে আগষ্ট বের হতে যাচ্ছে প্রভাশের “Shaho” নামক নতুন একটি চলচিত্র।

বাহুবলী: দ্য বিগনিং ২০১৫ সালের এস পি এস রাজামৌলি পরিচালিত ভারতীয় মহাকাব্য অ্যাকশন চলচ্চিত্র। ছবিটি প্রযোজনা করেছেন শোবু ইয়ারলগদ্দা এবং প্রসাদ দেভিনেণী এবং শুটিং হয়েছিল তেলুগু এবং তামিল উভয় ক্ষেত্রেই। এই ছবিটি মালায়ালাম এবং হিন্দি ভাষাতেও ডাব করা হয়েছিল। ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রভাস, রানা দাগগুবাতি, আনুশকা শেঠি, এবং তামান্নাঃ রম্য কৃষ্ণ, সত্যরাজ ও নাসার সহকারী চরিত্রে। চলচ্চিত্রের দুটি অংশের প্রথমটি, ছবিটি শিভুদুকে অনুসরণ করে, একজন সাহসী যুবক, যিনি তাঁর প্রেমকে সাহায্য করেন, এক বিদ্রোহী যোদ্ধা, মহিষমতির প্রাক্তন রানীকে উদ্ধার করার উদ্দেশ্যে। প্রক্রিয়াটিতে, তিনি অমরেন্দ্র বাহুবলির পুত্র মহীষ্মতির সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হিসাবে তাঁর আসল পরিচয়টি শিখেন, যার কাহিনী তাঁর কাছে এক অনুগত যোদ্ধা কাট্টাপ্পা বর্ণনা করেছিলেন। অমরেন্দ্রর অবস্থান সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে কট্টপ্পা প্রকাশ করেছিলেন যে তিনিই তাকে হত্যা করেছিলেন। এর পেছনের কারণটি বাহুবলী দেওয়া হবে জানিয়েছিলো। 

এর ঠিক ১বছর পরই বাজারে বের হয় বাহুবলী ২।

বাহুবলী ২: দ্য কনক্লুশন হল ২০১৭ সালের ২৮ এপ্রিল তারিখে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি ভারতীয় মহাকাব্যিক অ্যাকশনধর্মী চলচ্চিত্র। ছবিটি পরিচালনা করেছিলেন এস. এস. রাজামৌলি এবং ছবির কাহিনি রচনা করেছিলেন তাঁর বাবা কে. ভি. বিজয়েন্দ্র প্রসাদ। অর্ক মিডিয়া ওয়ার্কসের ব্যানারে ছবিটি প্রযোজনা করেন শোবু ইয়ারলাগাড্ডা ও প্রসাদ দেবীনেনি। ছবিটিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন প্রভাস, রানা দগ্‌গুবাটি, অনুষ্কা শেট্টি ও তামান্না ভাটিয়া। অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন রম্যা কৃষ্ণন, সত্যরাজ নাস্‌সর ও সুব্বারাজু। এই ছবিটি বাহুবলী চলচ্চিত্র ফ্র্যাঞ্চাইজের দ্বিতীয় পর্ব। এটি একই সঙ্গে ইতিপূর্বে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ফ্র্যাঞ্চাইজের বাহুবলী: দ্য বিগিনিং ছবিটির সিক্যোয়েল ও প্রিক্যোয়েল। মধ্যযুগীয় ভারতের প্রেক্ষাপটে নির্মিত এই ছবির মূল উপজীব্য অমরেন্দ্র বাহুবলী ও ভল্লালদেব নামে দুই ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বিতা। ভল্লালদেব অমরেন্দ্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে কাট্টাপ্পাকে দিয়ে তাঁকে হত্যা করান। বহু বছর পরে অমরেন্দ্রের ছেলে ফিরে আসেন পিতৃহত্যার প্রতিশোধ নিতে। বাহুবলী ২: দ্য কনক্লুশন ছবিটি যুগপৎ তেলুগু ও তামিল ভাষায় নির্মিত হয়। পরে এটি হিন্দি, মালয়ালম, জাপানি, রাশিয়ান ও চীনা ভাষায় ডাব করা হয়।

আর এবার একই নায়ক প্রভাশ ২০১৯ সালে বের করতে যাচ্ছে নতুন একটি চলচিত্র “শাহো”।

একটি আসন্ন 2019 ইন্ডিয়ান অ্যাকশন থ্রিলার চলচ্চিত্র যা ইউভি ক্রিয়েশনস এবং টি-সিরিজ প্রযোজিত সুজিথের পরিচালনায় এবং পরিচালনা করেছে। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন প্রভাস এবং শ্রদ্ধা কাপুর, এবং হিন্দি, তামিল এবং তেলেগু ভাষায় একসাথে শুটিং হয়েছে। হিন্দিতে প্রভাসের আত্মপ্রকাশ এবং দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমায় শ্রদ্ধা কাপুরের আত্মপ্রকাশের জন্য ছবিটির প্রযোজনা হয়েছে ₹ ৩৫০ কোটি ডলার। এটি আইএমএক্স ক্যামেরা দিয়ে গুলি করা হয়েছে।

জানা গেছে সবার প্রথম ৩১এ আগষ্ট
বের হতে চলছে শাহো চলচ্চিত্রটি।

সৌজন্যেঃ

Leave a Reply