১০০ বছরে ২৫টি Leap Year না থেকে কেন ২৪টি Leap Year থাকে?

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা। আশা করি সবাই ভালো আছেন। আজ আমি আপনাদের সাথে এক চমৎকার বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো। এটা খুবই মজার এবং লক্ষ্য করার মতো একটা ব্যাপার।

 

আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন যে প্রতি ১০০ বছরে ২৪টি Leap Year থাকে। অনুরূপভাবে, প্রতি ৪০০ বছরে ৯৭টি Leap Year আসে। কিন্তু এটা তো অবশ্যই অবাক করার মতো একটা ব্যাপার! আপনারা অবশ্যই চিন্তা করছেন এমনটা কেন? আসুন জেনে নিই।

আমরা সবাই ছোটবেলা থেকে জেনে এসেছি যে পৃথিবী ৩৬৫ দিন ৬ ঘণ্টায় (অর্থাৎ ৩৬৫.২৫ দিনে) নিজ কক্ষপথ একবার অতিক্রম করে। মানে ৩৬৫.২৫ দিনে আসলে ১ বছর হয়। কিন্তু আমরা পূর্ণসংখ্যা হিসাব করার জন্য ৩৬৫ দিনে ১ বছর হিসাব করি, অর্থাৎ .২৫ দিন আমরা বাদ দিয়ে দিই। সবশেষে ৪ বছরে আমরা বাদ দেওয়া .২৫ দিন একেবারে ১ দিন হিসাবে যোগ করে নিই, যেহেতু .২৫ দিন×৪=১ দিন হয়।

 

কিন্তু আপনারা কি জানেন? আমরা ছোট থেকে এক প্রকার ভুল শিখে এসেছি। ৩৬৫.২৫ দিনেও নয়, প্রকৃতপক্ষে ৩৬৫.২৪২৫ দিনে পৃথিবী তার কক্ষপথ একবার ঘুরে আসে। মানে আমরা হিসাবের সুবিধার জন্য প্রতি বছরে ৩৬৫.২৫-৩৬৫.২৪২৫ দিন, বা .০০৭৫ দিন অতিরিক্ত ধরে নিচ্ছি। এই অতিরিক্ত দিন অর্থাৎ .০০৭৫ দিন ৪০০ বছর গেলে পুরোপুরি ৩ দিন হয়ে যায়, যেহেতু .০০৭৫ দিন×৪০০=৩ দিন। এই জন্য প্রতি ৪০০ বছরে আমাদেরকে হিসাবে ৩ দিন বাদ দিয়ে দিতে হয়, যেটা শুধুমাত্র সম্ভব যেকোনো ৩টি Leap Year-কে Leap Year গণ্য না করলে, অর্থাৎ ১ দিন যোগ না করলে। তাই ৪০০ বছরের মধ্যে আমরা প্রথম ৩টি ১০০ বছরে ২৪টি করে Leap Year ধরি, তবে শেষেরটিতে ২৫টি ধরা হয়। অর্থাৎ, ৪০০ বছরে মোট Leap Year (২৪+২৪+২৪+২৫)টি=৯৭টি।

 

আশা করি সবাই বুঝতে পেরেছেন। আরেকটি তথ্য জেনে রাখুন-খ্রিষ্টপূর্ব ৪৬ অব্দ হতে Leap Year গণনা শুরু হয়, যা প্রবর্তন করেন রোমান নেতা জুলিয়াস সিজার।

 

এতক্ষণ Post টি দেখার জন্য ধন্যবাদ। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। আসসালামু আলাইকুম।

Leave a Reply