মাত্র ২ মিনিটে করোনা ভাইরাসের লক্ষন গুলো জেনে নিন।

হাই বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন আর ঈশ্বরের কাছে প্রর্থনা করি সবাই ভালো থাকেন।

আজকে আমি আপনাদের মাঝে কোন টিপস এবং কোন ট্রিক শেয়ার করবো না।আজকের বিষয় হচ্ছে করোনা ভাইরাস নিয়ে কিছু কথা বলবো।

দেশের যে অবস্থা তা আর বলা বোঝানো যাবে না।

চলুন কি ভাবে এই লক্ষন গুলো বোঝা যাবে সে বিষয় নিয়ে কিছু আলোচনা করা যাক____

ধরুন একজন লোক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সেই ব্যাক্তির আশেপাশে ৬ ফিট দূরত্বের মধ্যে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে তাহলে বুঝতেই পারছেন এই ভাইরাস টা কত শক্তিশালি।এই ভাইরাসরি শুধু নাক ও মুখ দিয়ে নয় চোখের মাধ্যেমে ও ছড়াতে পারে।

চলুন লক্ষন গুলো জানা যাক____

#১-৩ দিন – হালকা সর্দি কাশি হয়ে থাকে এই সময় গায়ে জর থাকতে ও পারে আবার না ও থাকতে পারে।কোন প্রকার মাথা ও গলা ব্যাথা হবে না।

খুব স্বাবাভিক ভাবে জীবন যাপন করতে পারবে।

#৪- দিন কিছু টা হালকা গলা ব্যাথা হবে,মাথা ঘুরতে থাকবে,হালকা জ্বর অনুভুতি হবে।
পাশা পাশি খাদ্যে অরুচি হবে এবং ডায়রিয়া হতে পারে।

#৫- দিন কন্ঠসর হালকা ব্যাথা হবে,জ্বর বেরে যাবে,
শরীর অনেক ব্যাথা হবে আর ডায়রিয়া আরো কিছুটা বেড়ে যাবে।

#৬- দিন জ্বর হালকা বেড়ে গিয়ে ৯৮ থেকে ৯৯ ড্রিগ্রি বেড়ে যাবে।,হালকা শুকনো কাশি শুরু হবে,গলা ব্যাথা বেড়ে যাবে,হালকা বমি বমি হবে,শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাবে,ডায়রিয়া চলতেই থাকবে।

#৭- দিন জ্বর বেড়ে ১০০ ডিগ্রির কাছা কাছি বেড়ে যাবে,শুকনো কাশির সাথে হালকা কফ বের হবে,শরীর ব্যাথা ও মাথা ব্যাথা বেড়ে যাবে,ডায়রিয়া অনেক বেশি বেড়ে যাবে।

#৮- দিন শরীরের অবস্থা অনেক বেশি খারাপ হয়ে যাবে,জ্বর ১০৪ ডিগ্রির কাছা কাছি বেড়ে যাবে,শ্বাস কষ্ট অনেক বেড়ে যাবে বুকে অনেক ব্যাথা হবে,
মাথা ব্যাথা তীব্র বেড়ে যাবে,এবং পর্যায় ক্রমে এমন ভাব বারতেই থাকবে।

এমন অবস্থায় দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিন।
আর পরিষ্কার পরিছন্ন থাকার চেষ্টা করুন।

ধন্যবাদ এতোক্ষণ পোষ্টা ধৈর্যসহ কারে পরার জন্য।

Leave a Reply