[Root/Unroot] 1GB/2GB RAM এ Free Fire হ্যাং, ল্যাগ সমস্যার সমাধান নিয়ে নিন।

আসসালামুলাইকুম ,কেমন আছেন সবাই?
আশা করি ভালোই আছেন।

বর্তমান সময়ে ফ্রি ফায়ার গেমটি খেলেন আবা নাম শুনেনি এমন মানুষ খুব কমই আছে। অনেক অল্প সময়ে গেমটি অনেক জনপ্রিয় উঠেছে তরুণ দের মাঝে।
তবে একটা জিনিস লক্ষ করা যায় যে অনেক মানুষই ফ্রি ফায়ার খেলে লো এন্ড বাজেট এর ডিভাইস গুলোতে ,যার কারণে তাদের অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় যেমনঃ হ্যাং ,ল্যাগ, হঠাত করে গেম থেকে বের করে দেওয়া ইত্যাদি।

তাই আজকে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি এই সমস্যার কম্পলিট সল্যুশন।

যদিও আমি আগে ৩জিবি র‌্যাম এর মোবাইল দিয়ে খেলতাম কিন্তু সম্প্রতি আমার মোবাইল টি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এখন ১জিবি র‌্যাম এর একটি মোবাইল এ খেলি যেটার মডেল Samsung Galaxy J1(2016). বুঝতেই পারছেন অনেক পুরাতন মডেল এর মোবাইল।
তারপর ও এই ১জিবি র‌্যাম এর মোবাইল এ খেলে আমার KD Rate 2.30+ and Headshot Rate 36%
যদি আমার মোবাইল এ ল্যাগ করত তাহলে হয়ত এই কেডি রেইট আর হেডশট রেইট ধরে রাখা সম্ভব হতো না।

তো যাইহোক আর কথা না বাড়িয়ে সমাধান টা দেখি নেই।

#Solution for rooted device users
যাদের ডিভাইস রুট করা আছে তারা নিচের টিপস গুলো ফলো করুন।

১। প্রথমত যদি পারেন আপনার ডিভাইস টি একবার ফ্যাকটরি রিসেট করে ফেলুন। এক্ষেত্রে ফ্রি ফায়ার পুণরায় ডাউনলোড এর ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে ফ্রি ফায়ার ব্যাকাপ করে রাখতে পারেন ।

২।এরপর নিচের থেকে যেকোনো একটি App Freezer ডাউনলোড করে নিন।

App Freeze

Freeze MY App

ডাউনলোড করে হয়ে গেলে ইন্সটল করে এপ টি ওপেন করুন। তারপর সুপার ইউজার/রুট পার্মিশন দিন।
এবার আপনার যেই এপ গুলা কোনো কাজে আসে না বা ফ্রি ফায়ার খেলার সময় যেই এপ গুলো না থাকলেও চলবে সেই এপ গুলো ফ্রীজ করে রাখুন। এক্ষেত্রে এপগুলো ডিলিট হবেনা,শুধু মাত্র ফ্রিজ় হয়ে অতিরিক্ত র‌্যাম ব্যাবহার থেকে মুক্তি পাবেন আবার আপনার যখন ইচ্ছা হবে এপ গুলো আনফ্রীজ করে ব্যবহার করতে পারবেন।
দেখুন আমার ফ্রীজ করা এপ এর লিস্ট।

ফ্রি ফায়ার খেলার সময় আমার মোবাইল এ যে কয়টা এপ এনাবল করা থাকে তার স্ক্রিনশট দেখুন।

বিঃদ্রঃ যেহেতু আমি আমার মোবাইল এ সিম কার্ড ব্যবহার করিনা তাই সিম কার্ড রিলেটেড সব গুলা ডিজেবল করা। আপ্নারা সিম কার্ড রিলেটেড এপ গুলা ডিজেবল না করলেও পারবেন।

৩।গেম ওপেন করার আগে সবসময় রিসেন্ট এপ গুলো ক্লিয়ার করে রাখবেন। তাহলেই দেখবেন আপনার মোবাইল এ আগে থেকে ৫০-৬০% ল্যাগ কমে গেছে।

#Solution for nonrooted device users
নন রুটেড ইউজারস দের জন্য যদিও তেমন কোনো মেজর স্ল্যুশন নেই তবে আপ্নারা চেস্টা করবেন মোবাইল এ যত কম এপ রাখা যায়।
আর পারলে Share it/Vidmate এর মত এপ গুলো এড়িয়ে চলার। প্রয়োজন হলে মেমরি কার্ডে রাখবেন এবং দরকার এর সময় ইন্সটল করে ব্যবহার করবেন। তাহলে দেখবেন অনেকটা ল্যাগ কমে গেছে।


আমি আমার ৬৬ লেভেল এর আইডিটা বিক্রি করব। কেউ নিতে চাইল ফেসবুক এ নক দিতে পারেন।

Leave a Reply