রাকা ( বই রিভিউ) চমৎকার একটি বই

#রাকা
– সুনীল গগঙ্গোপাধ্যায়
– পার্সোনাল রেটিংঃ 4½*

হাবিবুর রহমান

বৃষ্টি-মেশা নদীতে নেমে এক নারী বিস্মৃত হয়েছিলেন তার তাৎক্ষনিক পরিচয়, দুই সন্তান ও স্বামীকে, চিরকালের এক নারী জেগে উঠেছিলো তার মধ্যে। তারই স্বামীর বন্ধু হয়ে উঠেছিলেন সেই নেশা ধরানো মহুর্তের প্রার্থিত পুরুষ। দুজনে দুজনকে না বলেছিলেন এটা বড় সত্যি, নাকি দুজন দুজনকে চেয়েছিলেন– সেটা? কোনটা বেশি জোরালো?

মধুচন্দ্রিমাতে অতৃপ্তিকর আনন্দ নিয়ে অপর একজনের ভালোবাসা বুকে লালন করার মধ্যে জন্ম নেয়া এক বালিকা যার বায়োলজিক্যাল পিতা হয়তো বালিকার মায়ের রেজিস্টার করা স্বামী কিন্তু তার ভালোবাসা যখন সেই সময়তে (মধুচন্দ্রিমাতে) অন্য একজনের পথ চেয়ে থেকে সেই অপর একজনেরই কথা বুকে লালন করে বায়োলজিক্যাল বিহ্যাভিওর শেষ হয় আর তাকেই কল্পনাতে লালন করে যখন একটা লার্ভার জন্ম নেয় তখন তার ( মেয়ের) পিতা হিসাবে কাকে ধরা যেতে পারে?

এই-যে শরীরী সম্পর্কহীন সম্পর্ক, এ থেকেও কি জন্ম নিতে পারে কোনও সন্তান? দু-জন নারী পুরুষের চরম অতৃপ্তির বোঝায় কি সারা জীবন বয়ে বেড়াতে হবে সেই সন্তানকে?

কৈশরে পদার্পনে যেটা ঘৃনার বস্তু বা সংকোচের ছিলো সেটাই একসময় বৃষ্টিভেজা রাতে মাদুরি বিছানো বটতলাতে এতোটা সুখ কর হবে সেটা রাকা ছাড়া আর কে-ই বা জানতো।

এতো বড় শহরে বেড়ে ওঠা একটা মেয়ে একদিনের আলাপের কারনে একটা পুরুষের সাথে গিয়ে থাকতে পারে সেই পাড়াগাঁয়ে চাষ করতে পারে মাছ স্বামীর সাথে কাধে – কাধ মিলিয়ে এটাই কি ভালোবাসা নয়। 🙂

Credit -> Amartips.Mobi.

Leave a Reply