অনলাইন থেকে কিভাবে সঠিক নিয়মে টাকা ইনকাম করা যায়। প্রতারিত না হয়েই মাসে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আসা করি সবাই ভালোই আছেন।

আজকে আমরা যে বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো তা হলো, অনলাইন থেকে ইনকাম করার একদম সঠিক ও নিরাপদ উপায়।

তো বন্ধুরা যারা আপনারা অনলাইনে ক্যারিয়ার করতে চাচ্ছেন,

তাদের জন্যই মূলত আমাদের আজকের টপিক যারা অনলাইনে প্রথমে কাজ শুরু করেন তারা বুঝতে পারেন না যে কিভাবে কোথা থেকে ইনকাম করতে পারবেন যার কারণে কে অনেকই, অনেক ভাবে প্রতারিত হয়ে থাকেন!

ভালো ইনকামের কাজ দিবে বলে,
এডফি নিয়ে হাওয়া হয়ে যায়! এটা একটা অনলাইনের বহুল পরিচিত ফাঁদ!

যার কারণে যারা অনলাইনে প্রথমদিকে ক্যারিয়ার গড়তে যাচ্ছেন তারা অনুৎসাহিতত হয়ে পড়েন।

এবং অনেকেই অনলাইন থেকে ইনকাম এর চিন্তা বাদ দিয়ে দেয়।

এখন একবার আপনি নিজেই একবার নিজেই ভেবে দেখুন, যে অনলাইনে কাজ করলে কেন আপনাকে টাকা দিবে? বিষয়টা সত্যিই কেমন একটু মিথ্যা মিথ্যা লাগে।

যারা অনলাইনে কাজ দিবে বলে প্রতারণা করে থাকেন, নিজেরাও তারা জানেন না,

যে অনলাইন থেকে সত্যিই কিভাবে সঠিক উপায় ইনকাম করা যায়?

এখন আসি অনলাইনের কিছু ইনকামের উপায় নিয়ে।

অনলাইন থেকে ইনকাম এর প্রধান উৎস হলো অন্যের প্রোডাক্টের বা কোন কিছুর এডভেটাইজ করা।

যখন মানুষ কোন একটা বিজনেস বা ব্যবসা শুরু করে তখন তার কাছে যেটা প্রধান হয়ে ওঠে তা হলো তার ব্যবসা বা পণ্যের বিস্তার ঘটানো।

বাস্তবিক ভাবে, সাধারন জিবনে প্রচার পাবলিসিটি করে বিস্তার ঘটানো অনেকটাই কঠিন কাজ।

তাই অনেকেই বিভিন্ন মিডিয়ায়,ওয়েবসাইটে অ্যাড এর মাধ্যমে নিজের পণ্য ও ব্যবসার এডভেটাইজ করেন।

আর যিনি তাদের এ পণ্যের বিজ্ঞাপন করছেন তাকে পারিশ্রমিক দেওয়া হয়। আর বর্তমানের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও লাভজনক বিজ্ঞাপনদাতা হলো গুগল এডসেন্স।

গুগল এডসেন্স থেকে খুব সহজে অনেক পরিমান টাকা ইনকাম করা সম্ভব। তবে গুগল অ্যাডসেন্স অনেক শর্ত প্রণয়ন করেন যেগুলো মেনে নেয়ার পর আপনি তাদের বিজ্ঞাপন আপনার ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে পারবেন।

আপনি যদি কোন ব্লগার হোন, নিজের লেখা কোন পোস্ট ব্লগে প্রকাশ করেন আর তা থেকে যদি কোন মানুষের উপকার হয় এবং আপনার ব্লগের পোস্ট বেশি পরিমাণ ভিউজ হয় গুগল এডসেন্স এর আপনার ওয়েবসাইটে প্রকাশের মাধ্যমে আপনি ইনকাম করতে পারবেন। এটা হল অনলাইন কাজের প্রধান মাধ্যম।

অনলাইনে আর একটা মাধ্যমে আপনি ইনকাম করতে পারবেন তা হলো সিপিএ মার্কেটিং করে। সিপিএ মার্কেটিং হল কোন কোম্পানী বা কোন ডেটিং সাইডের ইস্মার্ট লিংক বা অ্যাফিশিয়াল্ট লিংক বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও লাইনের যে কোন মাধ্যমে আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করা।

যখন কেউ সেই লিংকে ক্লিক করবেন,

এবং সে লিংকে গিয়ে রেজিস্টার করবেন, সেই লিংকের বিজ্ঞাপনদাতার। ব্যবসার উন্নতি ও ওয়েবসাইটের রেংকিং বাড়বে।

যার ফলে আপনার এফিশিয়েন্ট লিংক বা স্মার্ট লিংক এর সিপিএ সাইটের, একাউন্টে ভালো পরিমাণ টাকা যোগ হবে।

এভাবে আপনি চাইলে সিপিএ মার্কেটিং এর কাজ করতে পারেন। আপনি যদি সিপিএ মার্কেটিং এর কাজ না জানেন তাহলে,আমাকে কমেন্ট করুন, সেয়ার করার চেস্টা করব ইনসাআল্লাহ।

তো বন্ধুরা এগুলাই ছিল অনলাইনে ইনকামের মাধ্যম। এখন কেউ যদি আপনাকে বেশি টাকার লোভ দেখিয়ে কাজ দেবে বলে এডফি চাই, বা কোন এডফি বা প্রুফ ছাড়াই কাজ করতে বলে তাহলে ভাববেন সে নিশ্চয়ই ফেক।

তো বন্ধুরা এই ছিল আমাদের আজকের বিষয় আপনাদের যদি পোস্টটি ভাল লেগে থাকে, তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এতে করে আমি আপনাদের মাঝে, আরো ভালো কিছু নিয়ে আসতে পারবো তো বন্ধুরা এ পর্যন্তই।

পরবর্তী টিউটোরিয়াল পেতে আমাদের সাথেই থাকুন!

নতুন কিছু শিখতে ও জানতে এবং জানাতে শিখেনিন.কম
এ আসার জন্য সর্বদা স্বাগতম।

প্রযুক্তি ও ওয়েব রিলেটেড টিপস পান, টেক স্কাই
থেকে।

নাল্ড ও প্রিমিয়াম থিম,স্ক্রিপ্ট ফ্রি নিন প্রিয়কথা
থেকে।

লেখক: এ.জে সাব্বির।

প্রথম প্রকাশ: শিখেনিন.কম

কপি করবেন না। করলে অবশ্যাই ক্রেডিট দিবেন।

Leave a Reply