আইন জানুন আইন মানুন পর্ব ২৬: বেআইনি সমাবেশ কী? বেআইনি সমাবেশ দাঙ্গাহাঙ্গামা মোকাবেলার জন্য পুলিশ প্রশাসনকে কী ধরনের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে?

পাঁচ বা ততোধিক ব্যক্তি জনসাধারণের কোনো স্থানে অসৎ উদ্দেশ্যে একত্রিত হয়ে রাষ্ট্র বিরোধী কোনো কাজ বা শান্তি ভঙ্গের উদ্দেশ্যে কোনো কাজ করলে তাকে বেআইনি সমাবেশ বলে। বেআইনি সমাবেশ নিম্নলিখিত ক্ষেত্রে এক বা একাদিক হতে পারে। যেমন-

১. সরকার বা সরকারি কর্মচারী বৈধ কাজে বাধা দেয়া বা ভয়ভীতি প্রদর্শন করা।
২. আদালতের পরোয়ানা কার্যকরী কাজে বাধাদান করা।
৩. অনধিকার প্রবেশ করা বা অপরাধজনক কাজ করা।
৪. অপরাধমূলক বলপ্রয়োগ করে সম্পত্তি দখল করা বা আইনগত অধিকার হতে বঞ্চিত করা।
৫. অপরাধমূলক বলপ্রয়োগ করে কোনো ব্যক্তিকে আইনত বাধ্য নয় এমন কাজ করতে বাধ্য করা এবং যে কাজটি আইনত বাধ্য সে কাজ হতে বিরত রাখা।
১৯৭৬ সালে প্রণীত ডিএমপি অধ্যাদেশ ২৭, ২৮, ২৯, ৩০ মোতাবেক যেকোনো বেআইনি সমাবেশ ও দাঙ্গাহাঙ্গামা মোকাবেলা করার জন্য পুলিশ অফিসারদের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। দেশের প্রচলিত আইনে পুলিশ অফিসারদের যে সকল ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে তা নিুরূপ-
১. যে স্থানে বেআইনি সমাবেশ বা দাঙ্গাহাঙ্গামা সংঘটিত হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে, সেই স্থানের জমির মালিকের উপর পুলিশ অফিসার হুঁশিয়ারি নোটিশ জারি করতে পারবেন। 
২. বেআইনি সমাবেশ দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা আশঙ্কা মুক্ত করার জন্য বিশেষ পুলিশ নিয়োগ করতে পারবেন। 
৩. পুলিশ অফিসার বেআইনি সমাবেশ বা দাঙ্গাহাঙ্গামা রোধ করার জন্য জনসাধারণের সাহায্য নিতে পারবেন। 
৪. পুলিশ অফিসার বেআইনি সমাবেশ বা দাঙ্গাহাঙ্গামা রোধ করার জন্য ক্ষমতা সম্পন্ন ম্যাজিস্ট্রেট-এর নিকট ফৌজদারি কার্যবিধি ১৪৪ ধারা জারি করার জন্য আবেদন করতে পারবেন।
৫. ফৌজদারি কার্যবিধির ১২৭ ধারা, পুলিশ আইনের ৩০-ক(১) ধারা মোতাবেক যোকোনো বেআইনি সমাবেশ ছত্রভঙ্গ হওয়ার জন্য পুলিশ অফিসার আদেশ দিতে পারবেন।
৬. উক্ত কার্যবিধির ১২৮ ধারা, পুলিশ আইনের ৩০-ক (২) ধারা মোতাবেক পুলিশ অফিসার যেকোনো বেআইনি সমাবেশে অংশগ্রহণকারীদের বলপ্রয়োগ করে ছত্রভঙ্গ এবং ফৌজদারি কার্যবিধি আইনের ১৫১ ধারা ও পিআরবি ৩১৬ ধারা বিনা পরোয়ানায় গ্রেপ্তার করতে পারবেন। 
৭. কোনো বেআইনি সমাবেশের সদস্যরা যদি এমন মারমুখী হয়, যাতে নিজের জানমাল ও সরকারি সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষতি সাধন হবে এরূপ পরিস্থিতিতে পুলিশ অফিসার দণ্ডবিধির ৯৯ ধারার ব্যতিক্রম সাপেক্ষে দণ্ডবিধি ১০০ ও ১০৩ ধারার ক্ষমতা বলে পিআরবি ১৫৪, ১৫৫ বিধি মোতাবেক সতর্কবাণী প্রদান করে উক্ত বেআইনি সমাবেশের জনতার প্রতি আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে ছত্রভঙ্গ করতে পারবেন।
৮. আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করলে পুলিশ অফিসার অবশ্যই পিআরবি ১৫৬ বিধি অনুসরণ করবেন। 
৯. বিশেষ পরিস্থিতিতে বেআইনি সমাবেশ বা দাঙ্গাহাঙ্গামা ছত্রভঙ্গ করার জন্য পুলিশ কমিশনার সামরিক শক্তি তলব করতে পারবেন। 
উপরোল্লিখিত বিষয়গুলো ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে ক্ষেত্র বিশেষে আইনসঙ্গতভাবে পুলিশ অফিসার বেআইনি সমাবেশ দাঙ্গাহাঙ্গামা মোকাবেলার জন্য ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারেন।

Leave a Reply