ওয়েবসাইট এ যেভাবে SSL যোগ করবেন ফ্রিতে। দেখে নিন,, এতে আপনার ওয়েবসাইট DDos Attack থেকে বেচে যাবে।

প্রথমেই জেনে নেয়া যাক ক্লাউডফ্লেয়ার সমন্ধে বিস্তরিত কিছু তথ্য।

ক্লাউডফ্লেয়ার কি?

ক্লাউডফ্লেয়ার হলো অন্যতম একটি জনপ্রিয় CDN । CDN এর পূর্ণরূপ Content Delivery Network । এর জনপ্রিয়তার কারণ হলো এটি প্রিমিয়াম অর্থাৎ টাকা দিয়ে ব্যবহারের পাশাপাশি আপনি চাইলে বিনামূল্যেও ব্যবহার করতে পারেন। তবে এটি আপনাকে কোনো হোস্টিং এর মতো সার্ভিস দিবেনা। যখন আপনার ওয়েবসােইটে কোনো ভিজিটর প্রবেশ করে, তখন ক্লাউডফ্লেয়ার সেই ব্যান্ডওয়াইথ তার নিজের সার্ভারে নিয়ে নেয়। ফলে আমাদের মেইন হোস্টিং থেকে অনেকটাই ব্যান্ডওয়াইথ কম ব্যবহার হয়।

কেন ব্যবহার করবেন ক্লাউডফ্লেয়ার?

এটি ব্যবহার কেন করবেন না ভেবে করবেন না কেন সেটা ভাবা উচিত। কারণ ক্লাউডফ্লেয়ার বিনামূল্যে যেসকল সেবা প্রদাণ করে, আমার জানামতে অন্য কোনো কোম্পানি তা দেয়না। এটি মূলত ব্যবহার করা হয় ওয়েবসাইটের স্পিড আরো ফাস্ট করতে। এর ক্যাসিং সিস্টেমের মাধ্যমে ওয়েবসাইটের স্পিড আরো বেশি ফাস্ট হয়। আপনি সাইটে ফ্রিতে SSL পাবেন ক্লাউডফ্লেয়ারের মাধ্যমে । এছাড়াও ক্লাউডফ্লেয়ার নানান ধরণের স্প্যাম হতে সাইটকে রক্ষা করে।

ক্লাউডফ্লেয়ার

আপনি যদি চান কেবল নির্দিষ্ট কিছু আইপি বা কিছু দেশে আপনার ওয়েবসাইটকে এক্সেস করতে পারবে, সেটিও ক্লাউডফ্লেয়ারের মাধ্যমে সম্ভব। আমরা অনেক সময় চাই যেন মোবাইল ব্যবহারকারীরা একরকম সাইট বা থিম দেখতে পাক আর পিসি ব্যবহারকারীরা আরেক রকম। মানে ডেস্কটপ ভার্সনের আর মোবাইল ভার্সনের সাইট আলাদা আলাদা ভাবে শো করাতে। ওয়াড্রপ্রেস ব্যবহার করলে বিভিন্ন প্লাগিনের মাধ্যমে এই সিস্টেম করা যায়। কিন্তু স্ক্রিপ্ট সাইটে তা অনেক ঝামেলার। কিন্তু এই সমস্যার সমাধান দিতে পারে ক্লাউডফ্লেয়ার।ক্লাউডফ্লেয়ার

আপনার ডেমেইনের DNS ম্যানেজ করতে পারবেন Cloudflare এর মাধ্যমে। এছাড়াও আরো অনেক সুযোগ সুবিধা দিবে ক্লাউডফ্লেয়ার।

ক্লাউডফ্লেয়ার

ক্লাউডফ্লেয়ারের অসুবিধাঃ

কোনো কিছু নিয়ে বলতে গেলে সুবিধা এবং অসুবিধা দুটাই বলা ভালো। তবে ক্লাউডফ্লেয়ারের অসুবিধার চেয়ে সুবিধায় অনেক বেশি। ক্যাসিং সিস্টেমের কারণে অনেক সময় দেখা যায় আপনার সাইটের লেটেস্ট কন্টেন্ট গুলো না শো করে পূর্বের গুলোই শো করছে। যদিও এটা বন্ধ করা যায়। এছাড়াও যখন আপনার ডোমেইনে কোনো সাব-ডোমেইন যুক্ত করবেন, তখন ক্লাউডফ্লেয়ারে ম্যানুয়ালি DNS রেকর্ড যুক্ত করতে হয়। তা নাহলে সাব-ডোমেইন কাজ করবে না।

ক্লাউডফ্লেয়ার সেটাপঃ

এবার আসা যাক মেইন টপিকে। ক্লাউডফ্লেয়ার মূলত হোস্টিং এর সাথে সম্পর্কযুক্ত। তাই এটি সেটাপ করার জন্য ওয়েব সাইটে কিছু করা লাগবেনা এবং খুব সহজেই সেটাপ করতে পারবেন। নিচের স্টেপ গুলো মনোযোগ দিয়ে অনুসরণ করুনঃ

আপনি যদি আপনার সাইটকে ক্লাউডফ্লেয়ার থেকে সাময়িক বন্ধ বা রিমুভ করতে চান, তবে Overview ট্যাবের নিচের দিকে Advanced Actions থেকে সাময়িক বন্ধ করতে চাইলে Pause Cloudflare on Site এবং রিমুভ করতে চাইলে Remove Site from Cloudflare এ ক্লিক করুন।

আসাকরি টিউটোরিয়ালটি আপনাদের ভালো লেগেছে। আজকের মতো এই পর্যন্তই। সবাই ভালো থাকবেন।

Leave a Reply