সেনাবাহিনীর বেতন কত ? অর্থাৎ কোন পদবীর বেতন কত টাকা ? Bangladesh Army Salary

সেনাবাহিনীর বেতন কত ?

বা কোন পদবীর বেতন কত টাকা – এই একটি প্রশ্ন বেশির ভাগ মানুষের মাঝেই রয়েছে – হোক সে চাকরি করুক বা না করুক বেতন কত টাকা এটি নিয়ে সবার মাঝে একটি কৌতুহল বিরাজ করে ।

তবে আজকের পোষ্ট  টি দেখার পর আর কোন প্রশ্ন ও কৌতুহল থাকবে না –
কারণ আজকের পোষ্ট  এর মাধ্যমে সেনাবাহিনীর কোন পদবীর বেতন কত টাকা এই বিসয়ে আপনারা বিস্তারিত জানতে পারবেন ।

 

এবং আপনার যদি ডিফেন্স সংক্রান্ত আরো কোনো তথ্য জানার থাকে তাহলে ইউটিউব এর একমাত্র ব্যতিক্রমধর্মী চ্যানেল #CareerMessages থেকে ঘুরে আসতে পারেন – [ আশা করি আপনার কাক্ষিত প্রশ্নের উওর পেয়ে যাবেন ] 

 

আজকের পোস্টে কেবল মূল বেতন এবং মূল বেতন এর ইনক্রিমেন্ট নিয়ে আলোচনা করা হবে ।

মাঠে চাকরি হবার পর ট্রেনিং অবস্থায় সৈনিক দের Recruit বলা হয় ।
একজন রিক্রুট এর মূল বেতন – ৯,০০০ টাকা । এটি একটি নির্ধারিত বেতন – যতদিন ট্রেনিং হবে এই বেতন পাবে ।

ট্রেনিং শেষে সৈনিক পদবীতে যোগদান করার পর – একজন সৈনিক এর বেতন হবে – ৯,০০০ টাকা – তবে ট্রেনিং যদি জুন – জুলাই মাস এর আগে শেষ হয় তাহলে তার বেতন ৯,৫০০ টাকা হবে । কারণ প্রতি বছর জুন /জুলাই এ বেতন বৃদ্ধি পায় বা ইনক্রিমেন্ট হয় ।
সৈনিক অবস্থায় একজন সৈনিক এর মূল বেতন সর্বোচ্চ ২২,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে ।
এবং সৈনিক অবস্থায় সর্বনিম্ন প্রতি বছর ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১,০০০ টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় ।

ল্যান্স কর্পোরাল – সৈনিক অবস্থায় যে , যত টাকা বেতন এ থাকা অবস্থায় ল্যান্স কর্পোরাল পদবী পাবে তার মূল বেতন সৈনিক অবস্থায় যত টাকা ছিল সেখান থেকে শুরু হবে ।
একজন ল্যান্স কর্পোরাল এর মূল বেতন সর্বোচ্চ ২৪,৫০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে ।
এবং ল্যান্স কর্পোরাল অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন ৫২০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১২০০ টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় ।

কর্পোরাল – ল্যান্স কর্পোরাল অবস্থায় যে , যত টাকা বেতন এ থাকা অবস্থায় কর্পোরাল পদবী পাবে তার মূল বেতন ল্যান্স কর্পোরাল অবস্থায় যত টাকা ছিল সেখান থেকে শুরু হবে । এছাড়াও সেনাবাহিনীর এন সি ও বা নন কমিশনড অফিসার এই পদবী থেকে শুরু হয়ে থাকে ।

একজন কর্পোরাল এর মূল বেতন সর্বোচ্চ ২৬,৫০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে ।
এবং কর্পোরাল অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন ৫৫০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১৩০০ টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় ।

সার্জেন্ট – এটি সেনাবাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ একটি পদবী – একজন সার্জেন্ট বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে থাকেন ।
যেমন – কোন একটি কোম্পানির দায়িত্বে থাকা ইত্যাদি । এবং কর্পোরাল থেকে সার্জেন্ট যারা তাদের এন সি ই বলা হয় ।
কর্পোরাল অবস্থায় যে যত টাকা বেতন এ থাকা অবস্থায় সার্জেন্ট পদবী পাবে তার মূল বেতন কর্পোরাল অবস্থায় যত টাকা ছিল সেখান থেকে শুরু হবে ।
একজন সার্জেন্ট এর মূল বেতন সর্বোচ্চ ৩৮,৫০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে ।
এবং সার্জেন্ট অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন ৮০০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২,০০০ টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় ।

 [ আলোচিত পদবী গুলো হলো- সেনাবাহিনীর নন কমিশন্ড অফিসার বা প্রথম পর্যায়ের সদস্য ।
এই বার জানা যাক জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার – বা সেনাবাহিনীর মধ্যম পর্যায়ের অফিসার দের বেতন সম্পর্কে ।
এবং এই জুনিয়র কমিশনড অফিসার থেকে সেনাবাহিনীর অফিসার পদবী শুরু হয় ]

ওয়ারেন্ট অফিসার কোন প্রার্থী যদি সরাসরি ওয়ারেন্ট অফিসার এ যোগদান করে তাহলে তার মূল বেতন হবে – ২২,০০০ টাকা
এবং কেও যদি সার্জেন্ট থেকে ওয়ারেন্ট অফিসার হয়ে থাকে তাহলে তার বেতন – সার্জেন্ট অবস্থায় যত টাকা ছিল সেখান থেকে শুরু হবে ।
এক্ষেত্রে সরাসরি ওয়ারেন্ট অফিসার দের বেতন তুলামূলক কম থাকবে অন্যান্য ওয়ারেন্ট অফিসার দের থেকে ।
একজন ওয়ারেন্ট অফিসার এর মূল বেতন সর্বোচ্চ ৪৮,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে ।
এবং ওয়ারেন্ট অফিসার অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন ১১০০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৩০০ টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় ।
সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার – ওয়ারেন্ট অফিসার এ থাকা অবস্থায় যত টাকা বেতন থাকবে – সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হবার পর সেখান থেকে শুরু হবে ।
একজন সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার এর মূল বেতন সর্বোচ্চ ৫০,৫০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে ।
এবং সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন ১১১০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৩০০ টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় ।
মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার – সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার এ থাকা অবস্থায় যত টাকা বেতন থাকবে –
মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার হবার পর সেখান থেকে শুরু হবে ।
একজন মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার এর মূল বেতন সর্বোচ্চ ৫৩,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে ।
এবং মাস্টার অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন ১১৩০ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৩৫০ টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় ।

এই পর্যন্ত হলো – জেসিও বা জুনিয়র কমিশনড অফিসার –

এক্ষেত্রে যারা সৈনিক থেকে ধাপে ধাপে জেসিও হয় তাদের যদি ভালো পারফর্মেন্স থাকে এবং চাকরি জীবনে কোন কম-প্লেন না থাকে তাহলে সেক্ষেত্রে খুবি অল্প সংখ্যক কয়েকজন জেসিও – কে মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার এর পর ।
সম্মান জনক কমিশনড অফিসার এর ২ টি পদবীতে প্রদান করা হয় –
অনারারী – লেফটেন্যান্ট –
এবং অনারারী ক্যাপ্টেন –
অনারারী – লেফটেন্যান্ট – এবং অনারারী ক্যাপ্টেন – এর বেতন নির্ধারিত থাকে –

একজন অনারারী লেফটেন্যান্ট এর মুল বেতন – ৩৮,৫০০ টাকা
ও একজন অনারারী ক্যাপ্টেন এর মুল বেতন – ৪২,৯০০ টাকা

এই হলো – এন সি ও এবং জেসিও এর মাসিক মুল বেতন – বাকি থাকলো – কমিশন্ড অফিসার এর বেতন –
কমিশনড অফিসার এর বেতন এর ক্ষেত্রে কে কোন কোর এ রয়েছে সে কোরের উপর নির্ভর করে একই পদবীর অফিসার এর বেতন ভিন্ন হয়ে থাকে ।
কমিশনড অফিসার এর বেতন এবং সকল বেতন এর অ্যালাউন্স বা ভাতা নিয়ে বিস্তারিত ভিডিও দেখতে আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন –

www.Youtube.Com/CareerMessages
সবাই ভালো থাকবেন । আল্লাহ হাফে-য ।

Leave a Reply