ওয়েব ডিজাইন শিখুন লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করুন। পরিচিত হন ওয়েব ডিজাইন শিখার ওয়েব সাইটের সাথে।

আসসালামু আলাইকুম

কেমন আছেন বন্ধুরা, আশা করি সবাই ভালো আছেন।আপনাদের দোয়ায় এবং আল্লাহর রহমতে আমিও খুবই ভালো আছি,বরাবরের মত আবারো নতুন একটি পোস্ট নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হলাম, আশা করি আপনাদের একটু হলেও উপকারে আসবে। তো চলুন আর কথা না বাড়িয়ে চলে যায় মূল পোস্টে।

বর্তমান যুগে যারা ফ্রীলাঞ্চিং করি তারা নিশ্চয় জানি যে অনলাইনে যত কাজ আছে তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি দামি কাজ হল ওয়েব ডিজাইন এর কাজ গুলো । আপনি সারাদিন বসে ডাটা এন্ট্রি , কপি পেস্ট আর পি টি ছি সাইট গুলোতে ক্লিক দিয়ে আর কতই কামাতে পারবেন । বরং খাটতে খাটতে আপানার অবস্তা খারাপ । আর আপনি দিনে একটা করে ছোট্ট ওয়েব ডিজাইন এর কাজ করবেন তাহলে আপনি পাবেন কমপক্ষে ২০ ডলার যা আপনার মাসে গিয়ে দাঁড়ায় ৬০০ ডলার । তাই আর দেরি নয় আজই শুরু করে দিন ওয়েব ডিজাইন শিখা ।

ওয়েব ডিজাইন শিখার জন্য অনেক গুলো সাইট আছে । । কিন্তু বাংলায় কোন সাইট নাই । অনেকেই আমাদের ইংলিশ পড়ে বুঝতে পারিনা তাই সিখতেও পারিনা । কিন্তু আজ আমি আপনাদের এমন একটি সাইট এর নাম দিব যেটা সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় লেখা এবং ওয়েব ডিজাইন এর উপরেই এটি মূলত লেখা হয়েছে । । এখানে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ওয়েব ডিজাইন এর বিষয় গুলো খুলে খুলে আলোচনা করা হয়েছে । তাই আর দেরি নয় আজই শুরু করে দিন ওয়েব ডিজাইন শিখা । সাইট টির লিংক নিচে দেওয়া হল http://www.bangla-webdesign.com/ বিনা খরচে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে ঘরে বসে আয় করুন নিজের ভাগ‌্য নিজেই গড়ুন ইচ্ছে আর আগ্রহ থাকলে আপনি ঘরে বসে ফ্রিতেই শিখে নিতে পারেন গ্রাফিক্স ডিজাইন কিংবা অন‌্য যে কোন কাজ।

প্রযুক্তি আমাদের জীবনকে করেছে সহজ আর সৃষ্টি করেছে নান রকম সম্ভাবনা। সবাইকে শুভেচ্ছা। ফ্রিল‌্যান্সিং কিংবা আউটসোর্সিং শব্দ গুলো এখন আর অপরিচিত নয়। কাজে দক্ষতা এবং আগ্রহ থাকলে আপনি ঘরে বসে আয় করতে পারেন হাজার হাজার টাকা। এসব খুব সহজ এবং পুরোনো কথা এবং ইতিধ‌্যে এ নিয়ে অনেক আর্টিকেল ই আমরা পড়ে ফেলেছি। কিন্ত কিভাবে আয় করা যায় এবং একটা নির্ভরযোগ‌্য ইনকাম সোর্স তৈরি কিংবা এ পেশায় স্থায়ী ক‌্যারিয়ার গড়ারর জন‌্য কোন কোন পন্থায় কাজ করা উচিৎ এবং কি যানা দরকার ইত‌্যাদি বিষয়ের উপর স্বচ্ছ ধারনা অনেকেরই নেই। নতুন এবং পুরোনো সবার কথা চিন্তা করেই আমার আজকের এ পোস্ট। অনলাইন এ আয় করার রয়েছে নানা উপায় তা একদিনে কিংবা একটি টিউন এ বর্ণনা করা সম্ভব নয়। কিন্ত একটা বিষয় অন্তত বর্ণনা করা সম্ভব যে, বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপট অনুযায়ী কোন কাজে খুব সহজে সফলতা পাওয়া সম্ভব! আমি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার কথা বলছি। গ্রাফিক্স ডিজাইন এমনই একটি বিষয় যেখানে আপনার সৃজনশীন চিন্তা কাজে লাগিয়ে স্বাধীন ভাবে অনলাইন থেকে আয় করতে পারেন।

বর্তমান বিশ্বে দিন দিন এর চাহিদা বেড়েই চলেছে। আর মার্কেটপ্লেসগুলোতেও রয়েছে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর প্রচুর চাহিদা। আপনি যদি ভালমানের গ্রাফিক্স ডিজাইনার হন তাহলে অনলাইনে কাজ করার রয়েছে অফুরন্ত সুযোগ। এছাড়া অন‌্যান‌্য কাজের তুলনায় (যেমন, ওয়েব ডেভলপমেন্ট, প্রগ্রামিং, মার্কেটিং, অ‌্যাপ ডেভেলপমেন্ট) গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে খুব বেশী সময়েরও প্রয়োজন নেই। নিমিত ভাবে অনুশীলন করলে মাত্র ১ থেকে ২ মাসের মধ‌্যেই আপনি শুরু করতে পারেন ফ্রিল‌্যান্সিং এরপর টুকটাক আয় করার পাশাপাশি আপনি শিখে নিতে পারেন এর খুটিনাটি বিষয়গুলো। চলুন এখন আমরা যেনে নেই আপাতত কোন কোন বিষয়গুলো সম্পর্কে একটু ধারনা পেলে আমরা শুরু করতে পারি।

প্রথমেই একটা সহজ বিষয় (বিজনেস কার্ড) নিয়ে আলোচনা করা যাক। বিজনেস কার্ড বিজনেস কার্ড হচ্ছে একটি ব‌্যাবসা প্রতিষ্ঠান কিংবা একজন ব‌্যক্তির পরিচয় বহনকারী একধরনের শক্ত কাগজ। যেখানে ব‌্যাবসা প্রতিষ্ঠানের লোগো, নাম, ঠিকানা, ফোন নম্বর ইত‌্যাদি প্রিন্ট করা থাকে। মার্কেটপ্লেস গুলোতে এই বিজনেস কার্ড এর রয়েছে প্রচুর চাহিদা। খুব অল্প সময় অনুশীলন করেই আপনি শিখে ফেলতে পারেন বিজনেস কার্ড ডিজাইন আর http://www.fiverr.com এ একটি একাউন্ট খুলেই শুরু করতে পারেন ইনকাম। টুকটাক ইনকামের পাশাপাশি আপনি চালিয়ে যান নিয়মিত প্রাক্টিস আর নিজেকে তৈরি করতে থাকুন একজন দক্ষ গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে। মোটামুটি দক্ষতা তৈরি হলে আপনি শুরু করতে পারেন টি-শার্ট, লোগো ও ব্রসিয়ার ডিজাইন এর মত নতুন কোন কাজ।

এবার ফাইবার এর পাশাপাশি আপওয়ার্ক, 99 ডিজাইন ও ফ্রিল‌্যান্সার.কম এ চেষ্টা করুন টুক টাক বিড করা এবং বিভিন্নি কনটেষ্ট গুলোতে অংশগ্রহন করার। আশাকরি নিয়মিত পরিশ্রম করলে আপনি এখানেও খুব সহজে সফলতা পেয়ে যাবেন। টি শার্ট ডিজাইন এতো গেলো এককালীন ইনকাম এর কথা। আপনি চাইলে একটি কাজ একবার করে দীর্ঘ সময় ধরে এর ইনকাম পেতে পারেন। যেমন একটি বিজনেসস কাড তৈরি করলেন একবার অথচ বিক্রি করছেন সারা বছর এবং যতবার সেল হবে ততবার ইনকাম। বিষয়টি খুব সহজ। আপনি যখন মানসম্মত ডিজাইন করতে পারবেন তখন এ ধরনের বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস রয়েছে যেখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের ডিজিটাল প্রডাক্ট তৈরি করে সেই মার্কেটপ্লেসগুলোতে আপলোড করে রাখতে পারেন আর সেখানথেকে যতবার সেল হবে ততবারই আপনি কমিশন পাবেন।

এ ধরনের মার্কেটপ্লেস গুলোর মধ‌্যে, গ্রাফিক্স রিভার ও ক্রিয়েটিভ মার্কেট অন‌্যতম। ভাবছেন সবই বুঝলাম সবই জানি কিন্তু গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখব কিভাবে? কোর্স করার মত এত টাকাতো হাতে নেই। কোন সমস‌্যা নেই ইচ্ছে থাকলেই হবে।

গ্রাফিক্সডিজাইন শেখার জন‌্য অনলাইন এ আপনি প্রচুর পরিমান টিউটরিয়াল পাবেন। আপনি গুগল কিংবা ইউটিউব এ একটা সার্চদিলেই হাজার হাজার টিউটরিয়াল এর লিংক পেয়ে যাবেন। আর সেখান থেকে আপনার কাঙ্খিত বিষয়টি নির্বাচন করে আজ থেকেই শুরু করুন অনুশীলন। আপনার সর্বাঙ্গীন সফলতা কামনা করে আজকে এখানেই শেষ করছি। ডাটা এন্ট্রি কাজের জন্য ৩টি সাইট নতুনদের জন্য,যারা জানেনা বা কাজ করার জন্য ওয়েব সাইট এর সাথে পরিচিত হতে পারে না তাদের জন্য। বর্তমান সময়ে আউটসোর্সিং আমাদের দেশে সারা জাগিয়েছে। যার জন্য আমরা সবাই কমবেশী আউটসোর্সিংকে একটা পেশা হিসাবে নিচ্ছি বা স্বপ্ন দেখছি। আপনি চাইলে আজই শুরু করে দিতে পারেন। ২টি শর্ত
১। ইংরেজীতে পারদর্শী হওয়া (লেখা এবং বলা)

২। আত্মবিশ্বাসী হওয়া সাথে অনেক ধের্য্য থাকতে হবে।

এই ২টা জিনিস যদি আপনার মধ্যে থাকে তাহলে আপনি সফলতা পাবেনই। ডাটা এন্ট্রি কাজের জন্য ইন্টারনেট এ হাজারও সাইট পাওয়া যায়। কিন্তু এর মধ্যে আসল সাইট কোনটা বা কাজ করার পর পেমেন্ট দেয় কি না। সেটা আমরা ভালো ভাবে জানি। তাই কিছু সাইট এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেব। যাতে করে নতুনরা কাজ করতে পারবে বলে আমার মনে হয়। আমি কিন্তু আপওয়ার্ক বা ফ্রিল্যান্সিং এর কথা বলছি না। কেননা এর বাহিরেও অনেক সাইট আছে যারা এই সাইটের মতোই কাজ করে টাকা দিয়ে থাকে। সাইট নাম ও বিস্তারিত (আমি যত টুকু জানি)

১। ইনডেড : ইনডেড ডট কম এই সাইটটি অনেক সুন্দর। কেননা আপনি আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী কাজ পাবেন। বুঝতে পারলেন না। আসুন বুঝিয়ে বলছি। ধরুন আপনি কোন কোম্পানী চাকুরীর জন্য আবেদন করলেন। তো সেখানে নিয়মঅনুযায়ী আপনার পারসোনাল ডিটেল দিতে হয়। ঠিক তেমনীই এখানেও সেই রকম। আপনার সেই কাজের উপর অভিজ্ঞতা আছে সেটা এখানে টিউন করবেন। যদি কোন বায়ার আপনাকে পছন্দ হয় বা তার কাজের জন্য আপনাকে পছন্দ করে তাহলে সেই বায়ার আপনাকে হায়ার করবে। আর পেমেন্ট এর কথা নাই বললাম। কেননা এর পেমেন্ট খুবই ভাল।

২। ক্যারিয়ার বিল্ডার : এই সাইটটিও অনেক ভালো। মানে আপওয়ার্ক এর মতই বলতে পারেন। এরাও কাজ দেয় এবং পেমেন্ট নিয়ে কোন ঝামেলা করে না। এই সাইটে দৈনিক অনেক নতুন ডাটা এন্ট্রির জব পাওয়া যায়। একবার ট্রাই করে দেখতে পারেন।

৩। ফ্রেক্সড জব : এই সাইটটি মূলত ডাটা এন্টিও কাজের জন্য হলেও এখানে আপনি নানা ধরনর কাজ পাবেন। তবে এখানে কাজ করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ইংরেজীতে পারদর্শী হতে হবে। কেননা এরা স্কাইপ এর মাধ্যমে ডাইরেক্ট কথা বলে। আর ইংরেজীতে যদি আপনি ভালো জানেন তাহলে আপনার আয় এই সাইটথেকেই অনেক হবে।

আজ আর নয়। আমার লেখাতে কোন ভুল থাকলে ক্ষমা করে দিবেন। পোস্ট টি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই একটি লাইক দিবেন,পজিটিভ কমেন্ট করে author দের উৎসাহিত করবেন,পোস্টে কিছু না বুঝতে পারলে কমেন্ট করে জানাবেন , আমি চেষ্টা করবো সাথে সাথেই সমাধান দিতে,আর একটি কথা আজেবাজে কমেন্ট করে author দের পোস্ট করার মানসিকতা নষ্ট করে দিবেন না কারন একটি পোস্ট লিখতে কতটা কষ্ট হয় সেটা একজন পোস্ট রাইটার ই ভালো করে বোঝেন। মনোযোগ দিয়ে পোস্ট পড়ার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।,খোদা হাফেজ

আমার চ্যানেলে প্রতিনিয়ত হ্যাকিং,ফ্রী নেট , এন্ড্রয়েড টিপস এন্ড ট্রিকস শেয়ার করা হয় । আপনাদের কাছে আমার রিকোয়েস্ট আমার চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করবেন Andro Lecture আর যদি সাবস্ক্রাইব করে থাকেন Thank you so much । আমার চ্যানেল এর নতুন ভিডিও: কিভাবে বিশ্বের যেকোন অ্যাপ এর এডস রিমুভ করবেন

Leave a Reply