সর্বকালের সেরা ৬টি বাংলা নাটক রিভিউ | যেগুলো দেখতে বসলে চোখের কোনে দিয়ে পানি ঝরবে এটা নিশ্চিত।

বাংলা চলচ্চিত্রের এই ক্রান্তিলগ্নে, বিনোদনের সবচেয়ে আশার খবরটি ই হলো বাংলা নাটক। গুনে মানে নাটক যেমন নিজের অবস্থান ধরে রেখেছে সেই সাথে সাধারণ দর্শকদের মাঝেও বিশাল এক জনপ্রিয়তা তৈরি করেছে। আমাদের এই পর্বটি এ যাবৎকালে নির্মিত বাংলাদেশি নাটকের মধ্যে সেরা ৬ নাটকের তালিকা নিয়ে। চলুন শুরু করা যাক, জেনে আসা যাক কি কি নাটক রয়েছে আমাদের তালিকায়….

১। আমাদের গল্প।

স্কুল রিউনিয়নের জন্য অনেক বছর পর চার বন্ধু আবার একত্রিত হয়েছে উঠে আসে নিজেদের বন্ধুত্বের গল্প।
খুঁজে বেড়াই আর এক বন্ধু নিভৃত কে বেরিয়ে আসে কিছু নির্মম সত্য নিজের ক্যারিয়ারের ব্যস্ততার জন্য বন্ধুত্ব ও ভালোবাসা ভুলে যাওয়ার এই গল্প ফুটিয়েছেন নির্মাতা ইফতেখার।
চার বন্ধুর চরিত্রে ছিলেন তাহসান ইরেশ যাকের রনক হাসান রিপন নথ এবং আরো ছিলেন জয়া আহসান ঈশিতা মনিরা মিঠু। কিছু কিছু নাম্বার থেকে আর আসবেনা কোন ফোন” এই গানটি অশ্রুসজল করেনি নাটকটি দেখেছেন এমন দর্শক খুঁজে পাওয়া যাবে না।

২। সার্ভিস হোল্ডার।

গ্রামের এক দরিদ্র কৃষক কঠোর পরিশ্রম করে নিজের ছোট ভাইকে পড়াশোনা করিয়ে শহরের বড় সার্ভিস হোল্ডার বানিয়েছিলেন,
সেই ছোট স্ত্রী সমেত গ্রামে এসেছেন তিনি ও তাঁর স্ত্রী আপ্যায়নের ত্রুটি রাখছেন না, কিন্তু ছোট ভাই নিজের অতীত ভুলে যেতে চান কিন্তু গ্রামের মানুষ বারবার মনে করিয়ে দেয়।
সেই রাগে ভাত না খেয়েই ছোট ভাই ঢাকা চলে যাচ্ছেন তখন সেই বড় ভাইয়ের কান্না কন্ঠে বলা সংলাপ, আজ আমার এই কষ্টের ভাত না খাইয়া চলে যাচ্ছে শুনে অশ্রুসজল হয়নি এমন দর্শক হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না।
বৃন্দাবন দাসের রচনায় সালাউদ্দিন লাভলুর পরিচালনায় দর্শকদের অতি পছন্দের নাটক সার্ভিস হোল্ডার বৃন্দাবন দাস ও শাহনাজ খুশির অভিনয় এই গল্পের প্রাণ আরও ছিলেন চঞ্চল চৌধুরী প্রভা আখম হাসান শামীম জামান।

৩। ফেরার পথ নেই।

আপনার কাছের মানুষ বাসা থেকে বের হওয়ার পর আর ফেরে না হারিয়ে যায় যে অপেক্ষায় থাকে প্রিয় মানুষগুলো তার আর ফেরার পথ নেই,
ঘটনাবহুল এই ইস্যু নিয়ে নিপুনের নাটক ফেরার পথ নেই অভিনয়ের দিক থেকে মেহজাবিন অনেক পরিণত তার কান্নার দৃশ্য নিয়ে অনেক সময় কথা হয় তবে এই নাটকে সব থেকে কাছের মানুষের বিদায়ে তার কান্নার দৃশ্য আপনার চোখ ভিজিয়ে দিবে।
মেহজাবিনকে দারুন সঙ্গ দিয়েছেন আফরান নিশো নির্মাতা হিসেবে আশফাক নিপুন আগে থেকেই জনপ্রিয় হলেও সাহসী নির্মাতা হিসেবে প্রশংসা ছড়িয়ে পড়ে এই নাটকের জন্য।

৪। আমাদের সমাজ বিজ্ঞান।

এই সমাজের নানান সমস্যার মাঝে এক তরুণের স্বপ্ন ভালোবাসা কিভাবে প্রখ্যাত হয় সেটাই তুলে ধরেছেন মেধাবী নির্মাতা শাফায়েত মনসুর রানা।
এই সামাজিক সমস্যার চাপে অনেকে মৃত্যুর দিকেও এগিয়ে যায় তরুণ চরিত্রটি দেখলে মনে হবে এ যেন নিজের চরিত্র তবে শত স্বপ্নভঙ্গের পরেও আমরা অনেকে বেঁচে থাকতে চাই,
প্রধান ভূমিকায় ইয়াশ রোহান দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন আরও আছেন তানজিকা তানিয়া আহ্মেদ তানবীরা। এই টেলিফিল্মটি বিশেষ করে তরুণ মনে ভীষণ ছাপ ফেলবে তরুণ যারা হতাশ হয়ে পড়ে কুল কিনারা হাতড়ে বেড়ান সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগেন তারা অবশ্যই নাটক টি দেখবেন।

৫। পাতা ঝরার দিন।

বয়সের বাধ্যকতা ই স্মৃতি লোপ পেয়েছে বাবার তিনি খুঁজে বেড়াচ্ছেন নিজ গন্তব্যে আর তাকে খুঁজে পেতে পথে বেরিয়েছে তার বড় মেয়ে,
বাবা ও মেয়ে একটি মধুর সম্পর্ক নিয়ে সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত রেদওয়ান রনির নাটক পাতা ঝরার দিন।
বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন সৈয়দ হাসান ইমাম বড় মেয়ের চরিত্রে ঈশিতা আরো ছিলেন মৌসুমী। মেরিল প্রথম আলো পুরস্কার এ সমালোচক শাখায় নির্মাতা রেদওয়ান রনি সৈয়দ হাসান ও ঈশিতা তিনজনই পুরস্কার পেয়েছিলেন অসাধারণ এই নাটকটির জন্য।

৬। নীলপরী নীলাঞ্জনা।

ফেসবুকে পরিচয় কিছুটা সম্পর্ক একদিন ঠিক করে দেখা করবে তারা কিন্তু ভুল করে দেখা হয়ে যায় নীলাঞ্জনার সাথে,
সেও অপেক্ষামান ছিল তার অদেখা ভালবাসার মানুষটার জন্য একসাথে বেশ খানিকক্ষণ সময় কাটাই দুজনেই ভালোবেসে ফেলে দুজনকে পরে ভুলটা জানে।
এদিকে মেয়ের বিয়ে ঠিক হয়ে যায় ছেলে শুধু আর একটা দিন সময় চান নীলাঞ্জনার কাছে সে ও আসে এমনই গল্প নিয়ে শিহাব শাহীনের অন্যতম সেরা নির্মাণ নীলপরী নীলাঞ্জনা।
অচেনা অজানা থেকে কাছের মানুষে পরিণত হয়ে যাওয়া এই ভালবাসার গল্পটি লিখেছেন যৌথভাবে সুমন ও শিহাব শাহীন।
মূল চরিত্রে ছিলেন তাহাসান দুজনে নিজেদের মতো করে ভালোভাবে অভিনয় করেছেন,
শিহাব শাহীন এত দারুন ভাবে চিত্রনাট্যের সাজিয়েছেন যে দর্শকদের মুগ্ধতা ছড়াবেই বিশেষ করে একটি দৃশ্য আরো অনন্য করেছে নির্মাতা হিসেবে তিনি তো প্রতিষ্টিত ই ।
এই টেলিফিল্মে অন্যতম বাড়তি আয়োজন ছিল গান সাজিদ সরকারের সুরে তাহসান এর কন্ঠে বড় অবেলায় পেলাম তোমায় ও মিনার এর কন্ঠে তুমি কোথায় আমি কোথায় গান দুটি অত্যন্ত জনপ্রিয়তা পেয়েছিল।
আর আসমানী গানটার মুগ্ধতার কথা নাইবা বললাম।

তো বন্ধুরা এই পর্ব শেষ করছি এখানেই কমেন্টসে জানান এর মধ্যে কোন নাটকটি আপনার সবচেয়ে প্রিয়।

ভিডিওটি দেখার পর চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করার অনুরোধ রইলো!

সেরা বাংলা নাটক নিয়ে আমি আবারও পোস্ট লিখব আপনাদের সাড়া পেলে তাই দ্বিতীয় পর্ব চাইলে অবশ্যই কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।
আজকের মত এ পর্যন্তই ভালো থাকুন সবাই।

Leave a Reply