মুখের ব্রণ স্থায়ী ভাবে দূর করুন (ছেলে ও মেয়ে উভয় ) । এর উপর আর কোন ঔষধ নেই । Remove Acne And Oily Skin

মুখের ব্রণ আমাদের বাস্তব জীবনে খুবি জটিল একটি বিষয়

কারণ এর জন্য নিজের সৌন্দর্যের ব্যাঘাত ঘটে –
সমস্যা যেমন আছে সমাধান ও আছে – আজ যে মেডিসিন নিয়ে কথা বলব –
মুখের ব্রণ দূর করার মেডিসিন এর দিক দিয়ে এর উপরে আর কোন মেডিসিন নেই ।
আমাদের আজকের বিষয় কিভাবে মুখের ব্রণ দূর করবেন এর ২য় পর্ব – এবং প্রথম পর্ব দেখতে এখানে ক্লিক করুন 

 

মুখের ব্রণ দূর করা নিয়ে আমাদের পূর্বের ভিডিও ইতিমদ্ধে মোটামুটি জনপ্রিয় হয়েছে –


এবং সেই ভিডিও তে দেখানো মেডিসিন অনেকের কাজ করেছে এবং অনেকের করে নি । যাদের কাজ করে নি – তারা এই মেডিসিন টি ব্যাবহার করলে আশা করছি শতভাগ ভালো ফলাফল পাবেন ।

[ তবে একটু সমস্যা আছে যেটি ভিডিও টির শেষ এ বলা হবে ]

তো প্রথমত জেনে নেই – মেডিক্যাল সাইন্স এ ব্রণ হবার আসল কারণ কি ?

এটি হওয়ার পেছনে বৈজ্ঞানিক কিছু বিষয় রয়েছে এবং হরমোনের কিছু বিষয় রয়েছে । এটি বয়ঃসন্ধি থেকে শুরু করে কারো কারো ক্ষেত্রে ৪০ থেকে ৪৫ বছর পর্যন্ত গড়াতে পারে ।
ব্রণ ছেলে- মেয়ে সবারই হতে পারে। তবে তুলনামূলক-ভাবে ছেলেদের একটু কম হয়। তবে ছেলেদের হলে এর তীব্রতা একটু বেশি থাকে।
ব্রণ এর নির্দিষ্ট কোন বয়স নেই –
একেক বয়স পর্যন্ত চলে এটি এবং আপনা আপনি বন্ধ হয়ে যায় আবার একটানাও চলতে পারে।
বা ধীরে ধীরে বিরতি দিয়েও চলতে পারে।
ব্রণ মোটামুটি আট থেকে নয় বছর বয়স থেকে শুরু করে ৪৫ বছর বয়স পর্যন্ত হতে পারে
অথবা কিছুদিন চলল, আবার বন্ধ হলো, আবার চলল, এভাবেও হতে পারে।

 

প্রশ্ন হলো – ব্রণ সবার হয় না কেন?
সবার হয় না – কারণ সবার ত্বক তৈলাক্ত নয়।
তৈলাক্ত ত্বকের কিছু ভালো দিক রয়েছে, মন্দ দিক রয়েছে।
আবার শুকনো ত্বকেরও কিছু ভালো দিক রয়েছে, মন্দ দিক রয়েছে। এটা কোনো খারাপ ভালোর বিষয় নয়।
তবে তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণ হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে এবং হয়ে থাকে।

বয়ঃসন্ধি কালে হরমোনের প্রভাবে এটি বেড়ে যায়। যাদের অতিরিক্ত বেড়ে যায়,
তাদেরই সাধারণত এটি হয়। এই জন্য যাদের তৈলাক্ত ত্বক তাদেরই এটি বেশি হয়ে থাকে।

 

আজকে আমরা একটি কার্যকরী মেডিসিন দিবো আপনাদের । যেটি এর আগে হয়ত কেও আপনাদের সাজেস্ট করে নি এবং –
হয়ত এর আগে নাম ও শুনেন নি । এবং আশা করি এটি সবার মুখেই কাজ করবে । ব্রণ এর পাশা পাশি যাদের তক তৈলাক্ত তারাও ব্যাবহার করতে পারেন ।

আমাদের আজকের মেডিসিন টি নাম –

Bioderma Sebium Gel 

এবং এটি একটি ফেস ওয়াস । এটি আপনারা শহরের কোন বড় ফার্মেসিতে পেয়ে যাবেন ।
১০০ মিলি ২০০ মিলি এবং ৫০০ মিলি পরিমাণে বিক্রি করা হয় ।
তবে ২০০ মিলি টাই বেশি পাওয়া যায় ।

ব্যাবহার করার নিয়ম- সকালে এবং সন্ধ্যায় ২ বেলা
১ মাস একটানা ব্যাবহার করে দেখুন আশা করি ভালো ফলাফল পাবেন ।
এটি মুখের ব্রণ দূর করার পাশা পাশি তৈলাক্ত স্কিন এর জন্য বেশ উপকারী ।

 

একটি সমস্যার কথা বলেছিলাম সেটি হল এই মেডিসিন এর মূল্য তুলনামূলক বেশি – ২০০ মিলির মূল্য – ১৩০০-১৪০০ টাকা

(স্থান ভেদে)

পরিশেষে কিছু সতর্কতা –
রেজিস্টার ডাক্তার এর পরামর্ষ ছাড়া এর বাহিরে কোন প্রকার সাবান – ক্রিম – বা ফেসওয়াস ব্যাবহার করবেন না ।
Bioderma Sebium Gel টি কিনতে যদি আর্থিক সমস্যা হয় তাহলে আমাদের পূর্বের ভিডিও তে যে মেডিসিন টি দেয়া হয়েছে সেটি ব্যাবহার করে দেখতে পারেন ।
এর সাথে সব সময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকুন এবং সব সময় খাবার পানি বেশি করে খাওয়ার চেষ্টা করুন ।

অন্যান্য পোষ্ট – 

উচ্চতা বাড়ানোর ৫টি কার্যকরী উপায় । ১০০/১০০ কাজ । Effective Ways To Increase Height

হাত ঘামা রোগ ভালো করার ৬ টি উপায় । হাইপারহাইড্রোসিস । 6 Ways To Cure Hand Sweating Disease

সেনাবাহিনীর বেতন কত ? অর্থাৎ কোন পদবীর বেতন কত টাকা ? Bangladesh Army Salary

মেজর (অব.) সিনহা এবং (ওসি) প্রদীপ এর মধ্যে কার ক্ষমতা কতটুকু ছিল ? Major Sinha and OC Pradeep Power

www.Youtube.Com/CareerMessages
সবাই ভালো থাকবেন । আল্লাহ হাফে-য ।

Leave a Reply