গুগল ক্রোম ব্রাউজারের খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং ইউজফুল ৫টি এক্সটেনশন।

হাই আমারটিপ্সবাসি আমি মনির কি অবস্থা সবার আশা করছি ভালই আছেন।
আচ্ছা গুগল ক্রোম ব্যবহার করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া খুবই মুশকিল কি বলেন?? তবে এই ব্রাউজারে লক্ষ লক্ষ এক্সটেনশনের ভিড়ে প্রয়োজনীয় মানে মানে যেটা দরকারি সেটা খুঁজে বের করা মুশকিলই নয় বরং অসম্ভব।

তো আমি অনেকদিন ধরে গবেষণা করার পর পাঁচটি খুবই কাজের এবং ইউজফুল এক্সটেনশনের খোঁজ পেয়েছি।
এবং যেটা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করা উচিত চলুন দেখি সেগুলি।


Visualping
ধরুন কোনো একটা ওয়েবসাইটে আপনি নিয়মিত ভিজিট করেন এবং সেটার বিশাল বড় একটা পরিবর্তন এসেছে এবং সেটার তথ্য পাবেন কোথায়?
অবশ্যই এ বিষয়ে তথ্য দিবে *ভিজুয়ালপিং* নামের এই এক্সটেনশনটি তবে অবশ্যই যে ওয়েব পেজ সম্পর্কে আপনি জানতে চান মানে পরিবর্তন এসেছে কি সেটা দেখতে চান তাহলে অবশ্যই সেই পেজের লিংক এক্সটেনশনটিতে দিতে হবে।
কোন পরিবর্তন আসামাত্রই ইমেইলের মাধ্যমে তা আপনাকে জানানো হবে। এটা মূলত কোন হোটেল বুকিং কিংবা কোন পণ্য অর্ডার এর ক্ষেত্রে দারুন কাজের।


Session Buddy
এই এক্সটেনশনটি দিয়ে মূলত ওপেনে থাকা সমস্ত ট্যাব গুলো আপনি একটি জায়গায় নিয়ে দেখতে পারবেন।
আর তাছাড়া সব থেকে বড় একটি সুবিধা হল ব্রাউজার বা সিস্টেম ক্র্যাশ করলেও ট্যাবগুলো রিকভার করা যায়। আর চাইলেই প্রতিটি লিঙ্কের জন্য আলাদা আলাদা টপিকস দেওয়া যাবে। পরে চাইলেই ওই টপিক দিয়ে সার্চ করলে ট্যাব গুলো খুব সহজেই ফিরে পাওয়া যাবে।


LastPass: Free Password Manager
মূলত এই তো বেশ কাজের একটি এক্সট্রাকশন কারণ এটি চাইলেই পাসওয়ার্ড ম্যানেজার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। শুধুমাত্র ইন্সটাল করেই যে কোন অ্যাকাউন্টের লগইন ও পাসওয়ার্ড সেইভ করে রাখা যায় এতে।
যেটি অনেকেরই অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজে আসবে। তাছাড়া চাইলেই করা যাবে ডিলিট এডিট কিংবা নতুন পাসওয়ার্ড যোগ সবকিছু। এই এক্সটেনশনটিতে।
শুধু এই নয় আপনি যদি চান তাহলে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ক্রেডিট কার্ড নম্বর ড্রাইভিং লাইসেন্স সহ ইত্যাদি সেভ করে রাখতে পারবেন।


office editing for docs sheets & slides
এটিও বেশ কাজের বলব কারণ এটির মাধ্যমে আপনার কম্পিউটারে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, এক্সেল ও পাওয়ার পয়েন্ট ইন্সটল করা না থাকলেও সমস্যা হয়না।
অফিস এডিটিং ফর ডকস, শিটস অ্যান্ড স্লাইডস শিটস অ্যান্ড স্লাইডস এক্সটেনশনটি ইন্সটল করলে অফিস ফাইল ড্র্যাগ করেই আপনার ক্রোমে নিতে পারবেন খুবই সহজে।
এরপর অটোমেটিকলি গুগোল ড্রাইভে কিংবা ইমেইলে ওপেন হবে।
আরেকটু বড় সুবিধা হল আপনার ডক, শিট বা স্লাইড যে ফরম্যাটেই থাকুক না কেনো সেগুলো এডিট করা যাবে কোন ঝামেলা ছাড়াই।


Tab Wrangler
অনেকক্ষণ ধরে ওপেন থাকা ট্যাব একটা নির্দিষ্ট সময় অটোমেটিকলি বিরতিতে বন্ধ করবেন এই চমৎকার এক্সটেনশনটি।
আর এই ট্যাব গুলো সেভ করে আবার বন্ধ করার কারণে চাইলে সেগুলো আবার রি ওপেন করানো যাবে। এক্ষেত্রে আপনি যদি পিন করে রাখেন তাহলে এটি বন্ধ করবে না মানে ট্যাব বন্ধ করবেন আর কি।

এই লিস্টে থাকা প্রত্যেকটি প্রয়োজনীয় এক্সটেনশনের লিংক গুলো দেয়া হলো নেচে।

১। Tab Wrangler

২। office editing for docs sheets & slides

৩।LastPass: Free Password Manager

৪। Session Buddy

৫। Visualping

মূলত এই এক্সটেনশন গুলো গুগল ওয়েব স্টোর থেকে চাইলে ফ্রিতে ডাউনলোড করা যায়, এবং যে কোন সময় যে গুলি ডিলিট কিংবা ইন্সটল করা যায়।
তো আশা করি এই এক্সটেনশন গুলো আপনার প্রয়োজন মেটাতে সাহায্য করবে ।
ভালো লেগেছে আশা করছি , না লাগলেও কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন ভাল থাকুন সবাই আল্লাহ হাফেজ ‌।

Leave a Reply