[Hot] বিকাশ অ্যাপ এ প্রতিদিন ”বার্ড গেম ” খেলে প্রতিদিন ৫০০ জন টপ স্কোরার নিয়ে নিন ২০০ টাকা বোনাস। বিকাশ এর সকল গ্রাহক এই গেমে অংশ গ্রহন করতে পারবেন।


এবার বিকাশ নিয়ে আসলো এবার ”বার্ড গেম ” আর বার্ড গেম লেখলে পাচ্ছে বোনাস। বিকাশ অ্যাপ এ প্রতিদিন ”বার্ড গেম ” খেলে প্রতিদিন ৫০০ জন টপ স্কোরার পাবে ২০০ টাকা বোনাস। আর এই বোনাস আপনার বিকাশ একাউন্ট এ দিয়া হবে।

চ্যাম্পিয়নশিপ চলবে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত।

তো শুরু করা যাক কি ভাবে গেম খেলবেনঃ

প্রথমে বিকাশ অ্যাপ এ ঢুকে এখানে ক্লিক করেন।

তার পর এখানে ক্লিক করেন।

তার পর এখানে ক্লিক করেন।

তার পর খেলুন তে ক্লিক করুন।

তার পর উড়াতে ট্যাপ করুন তে ক্লিক করে খেলা শুরু করুন

গেম খেলার নিয়ম জেনে নিনঃ

গেম খেলতে খেলতে কিছু স্টার পাবেন তা তে সফল ভাবে হিট করন তা হলে ১০ পয়েন্ট পাবেন।

খেলার মধ্যে কিছু বোমা পাবেন তা তে আঘাত করলে ১টি লাইফ শেষ হবে।

উড়তে উড়তে আকাশের উপরের সীমায় পৌঁছে গেলে ১টি লাইফ শেষ হবে।

উড়তে উড়তে নিছে মাটিতে পড়ে গেলে ১টি লাইফ শেষ হবে।

প্রতিদিনের বিজয়ীদের নাম পরের দিন দুপুরে ঘোষণা করা হবে
bkash.com/game-winners তে

গেম এর শর্তাবলীঃ

বিকাশ গ্রাহকরা দুটি আলাদা মোডে (প্র্যাকটিস এবং চ্যাম্পিয়নশিপ) যতবার খুশি গেমটি খেলতে পারবেন। চ্যাম্পিয়নশিপ মোড কেবল ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

বিকাশ গ্রাহকরা প্রথমবারের মতো গেমটি খেললে বিনামূল্যে ৩ টি লাইফ পাবেন। প্রদত্ত লাইফ ব্যবহার হয়ে গেলে, বিকাশ গ্রাহকেরা গেমের মধ্যে ১ টাকা ডোনেশনের মাধ্যমে ১০০০ লাইফ পেতে পারেন।

এই গেম থেকে সংগৃহীত মোট অর্থ অনুদান হিসেবে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনে দেওয়া হবে।

প্রতিটি স্টারে সফল হিট করলে ১০ পয়েন্ট যুক্ত হবে এবং যেকোন বাধা অর্থাৎ মাটিতে পড়ে যাওয়া, বোমাতে আঘাত করা বা আকাশের উপরের সীমায় পৌঁছে যাওয়া ইত্যাদির জন্য ১টি লাইফ কেটে নেওয়া হবে।

বিকাশ অ্যাপে লগ ইন করার পর একজন গ্রাহককে (১৮ বছর বা তার বেশি বয়সের) গেমটি খেলতে হবে।

এই গেমটিতে ব্যবহৃত সকল বিষয়বস্তুর সম্পূর্ণ কপিরাইট বিকাশ সংরক্ষণ করে।

Airtel সিমে ফ্রি ১জিবি নিয়ে নিন সবাই।

 

মাই রবি অ্যাপ এ প্রথম বার রেজিস্ট্রেশন করে রবি সিমে ফ্রি তে এমবি নিয়ে নিন এবং সাথে থাকছে প্রতি রেফারে ১জিবি ডাটা বোনান।

আমরা সবাই মিলে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করি ও সাধারণ সতর্কতা অবলম্বন করি। নিয়মিত হাত ধুই (২০ সেকেন্ড ধরে), হাঁচি-কাশি দেওয়ার সময় মুখ ও নাক ঢেকে রাখি, এবং নিজের ও পরিবারের সুস্থতা নিশ্চিত করতে জনসমাগম এড়িয়ে চলুন; ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন

ধন্যবাদ

Leave a Reply