Realme C-17 Mobile Review In BD

unnamed (2)

Realme C-17 Mobile Review In BD

images – 2020-10-15T014600.621

বাংলাদেশে এই প্রথম রিয়েল মি ব্র্যান্ড এর মত একটি কোম্পানি রিয়েলমি সি 17,বাংলাদেশ থেকে গ্লোবাল ভার্সন রিলিজ করেছেন।

আজকে আমি আপনাদের সামনে রিয়েলমি সি 17 এই ফোনটির রিভিউ করব। গত সাতদিন আগে আমি এই ফোনটিকে বাজার থেকে কিনেছি এবং সাত দিন ব্যবহার করার পরে ফোনটি কেমন সার্ভিস দিচ্ছে এবং আপনি যদি ফোনটি  কেনেন তাহলে কেমন হবে সকল কিছুর বিস্তারিত আমি এই পোস্টে তুলে ধরব। আশাকরি ধৈর্য সহকারে পুরো পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন।

Screenshot_20201014-133404

ফোনটির সাথে আপনি একটি ব্যাক কভার ও একটি 18 ওয়াট ফাস্ট চার্জার পেয়ে যাবেন। তার সাথে কেবল তো থাকছেই। তাছাড়া ইউজার ম্যানুয়াল পাবেন,

Screenshot_20201014-133430

 গ্লাস প্রটেক্টর ওটাা আপনাকে বাইরে থেকে কিনে লাগাতে হবে ।

Screenshot_20201014-133714

ফোনটিতে রয়েছে 6gb র‍্য্যাম

 পাচ্ছেন আপনি 128gb রোম

Screenshot_20201014-133620

ক্যামেরা রয়েছে চারটি পিছনের ক্যামেরা রয়েছে 13

 মেগাপিক্সেলের এবং সেলফি ক্যামেরা 8 মেগাপিক্সেল

Screenshot_20201014-133842

এবং সেলফি ক্যামেরায় পান্সহোল্ড ক্যামেরা যেটা কিনা এই বাজেটের ভিতর অসম্ভব।

Screenshot_20201014-133852

 ব্যাটারি হিসেবে থাকছে 5000 mAh ব্যাটারি

এবং চার্জিং হিসেবে আপনি ইউএসবি type-c পেয়ে যাচ্ছেন

 এই ফোনটিতে আপনি 18 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং দেয়া হয়েছে।

Screenshot_20201014-133514

এ ফোনটি সম্পূর্ণ ফুল চার্জ হতে 1 ঘণ্টা 20 মিনিট সময় লাগে ।

এবং নরমালি যদি আপনি ইন্টারনেট ব্রাউজ করেন এবং বড় কোন ধরনের গেম না খেলেন তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনি দুদিন অনায়াসে ফোনটিকে ব্যবহার করতে পারবেন।

 ফোনটির ডিসপ্লে সাড়ে ছয়  ইঞ্চ

images – 2020-10-15T014553.819

ফোনটিতে রেজুলেশন দেওয়া হয়েছে  720*1560

1080p তে আপনি ভিডিও রেকর্ডিং করতে পারবেন 2k

ফোনটির পেছনে উন্নত মানের ব্যাকপাট ব্যবহার করা হয়েছে।

Screenshot_20201014-133556

দুটো সিম কার্ড এবং একটি মেমোরি ব্যবহার করতে পারবেন।

যেহেতু 5000mAh ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে সেই ক্ষেত্রে ওজনটা একটু বেশি মনে হতে পারে  তবে এটা কোন ব্যাপার না

ফোনটির বাজেট এবং বিল্ড কোয়ালিটির যদি খেয়াল করা যায় সে ক্ষেত্রে ফোনটি অনেক ভালো এবং খুব শক্তিশালী।

এখানে ব্যবহার করা হয়েছে স্নাপড্রাগণ 460 যেটা অনেক কম। বড় কোন গেম না খেললে 460 স্ন্যাপড্রাগন এ খুব ভালো পারফরম্যান্স পাবেন।

Screenshot_20201014-133714

তাছাড়া যদি এই ফোনটিতে পাবজি খেলেন সেই ক্ষেত্রে আপনি গ্রাফিক্স এইচডিতে রেখে ফেভরেট হাই রেখে খেলতে পারবেন।

Screenshot_20201014-133815

 তাছাড়া GFX Tools যদি ব্যবহার করেন সেই ক্ষেত্রে আপনি ফুল এইচডি এবং এক্সট্রিম খেলতে পারবেন।

নরমালি স্নাপড্রাগণ 460 যে ফোন গুলোতে দেওয়া হয়েছে সেই ফোনগুলোর প্রাইস এইরকমই

 যদি এইখানে স্ন্যাপড্রাগন বাদে মিডিয়াটেক অথবা অন্য কোন গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করা হতো সে ক্ষেত্রে আপনি ভাল মানের গ্রাফিক্স পেতেন।

ফোনের র‍্যাম যেহেতু 6 জিবি এবং স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর থাকছে সে ক্ষেত্রে আপনি খুব ভালোভাবে  ব্যবহার করতে পারবেন।

যদিও পাবজি খেলার সময় ফোনটি অনেকটা হিিট হয়। নতুন মোবাইল আশা করি পরবর্তীতে এটা ঠিক হয়ে যাবে।

বর্তমান বাজারে Realmi  c17 এই ফোনটির প্রাইস রাখাা হয়েছে  15990 আমি ফোনটি কিনেছি 15 হাজার 900 টাকাা দিয়ে।

এই বাজেটের ভিতর এর থেকে বেটার কিছু আশা করা যায় না।

পোস্টটি কেমন লাগলো সেটি অবশ্যই কমেন্ট বক্সে

কমেন্ট করে জানাবেন। মানুষ মাত্রই ভুল করে এই পোস্টটিতে আমার যদি কোন ভুুল হয়ে থাকে সেটি ধরিয়েে  দিবেেন পরবর্তীতে আমি সঠিক করে নেব। কথাাা হবে নেক্সট পোস্টে সেই পর্যন্তত সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন সেই কামনাই করিিিি। আজকের মতো এখানেই শেষ করছি

পোস্টটি লাস্ট পর্যন্ত পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Contact To Me

Md : Zahidul Islam

মোঃ জাহিদুল ইসলাম

best of luck

​​​​​

 

 

0368c21a37cce3e3628ff8eeccc4e2a4

Leave a Reply