বিকাশ অ্যাপ থাকলে অগ্রণী ব্যাংক-এর লেনদেন হবে ঘরে বসে, যেকোনো সময় যে কোন মহর্তে

অগ্রণী ব্যাংক-এর গ্রাহকদের লাইফটা এবার হবে আরও সিম্পল। বিকাশ অ্যাপ-এ আপনার অগ্রণী ব্যাংক একাউন্ট যোগ করলেই, যেকোনো সময় ব্যাংক থেকে বিকাশ-এ টাকা আনতে পারবেন কিংবা বিকাশ থেকে ব্যাংক টাকা জমাও দিতে পারবেন।

সার্ভিসএর বিস্তারিতঃ

এই সার্ভিস দিয়ে একজন বিকাশ গ্রাহক তার বিকাশ একাউন্ট-এর সাথে ব্যাংক একাউন্টটি যুক্ত করে নিতে পারবেন। এতে গ্রাহকেরা নিজের ব্যাংক একাউন্ট থেকে টাকা আনতে এবং পাঠাতে পারবেন। খেয়াল রাখতে হবে যে, বিকাশ গ্রাহক এবং ব্যাংক একাউন্ট হোল্ডার একই ব্যক্তি হতে হবে।
প্রথমে গ্রাহককে তার বিকাশ একাউন্টের সাথে ব্যাংক একাউন্টটি যোগ করে নিতে হবে। এজন্য বিকাশ অ্যাপ-এর অ্যাড মানি কিংবা ট্রান্সফার মানি অপশন-এ গিয়ে অগ্রণী ব্যাংক একাউন্ট-এর প্রয়োজনীয় তথ্য ও ওটিপি দিন
জাতীয় পরিচয় পত্র, জন্মতারিখ, ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার, ব্যাংকে দেওয়া ফোন নাম্বার এবং বিকাশ একাউন্ট-এর ফোন নাম্বার (এমএসআইএসডিএন) এর যেকোনোটিতে অমিল হলে বিকাশ-এর পক্ষ থেকে গ্রাহকের ব্যাংক একাউন্ট-এর তথ্য হালনাগাদ করার অনুরোধ করা হবে। তথ্য হালনাগাদ করতে নিকটস্থ অগ্রণী ব্যাংক-এর শাখায় যান।

সার্ভিস ব্যবহারের শর্তাবলীঃ

সক্রিয় বিকাশ একাউন্ট (ট্রাস্ট লেভেল ৩) থাকতে হবে, অন্যথায় অগ্রণী ব্যাংক একাউন্ট যোগ করা যাবে না।
অগ্রণী ব্যাংক একাউন্টটি সক্রিয় থাকতে হবে এবং ব্যাংকিং নিয়মকানুন এর মধ্যে সকল কার্যক্রম পরিচালিত হয় এমন একাউন্ট হতে হবে। অব্যবহৃত একাউন্ট (১৮০ দিনের মধ্যে কোনো লেনদেন হয়নি) ব্যাংক থেকে রেস্ট্রিকটেড করা হয়েছে।

চার্জ:

অ্যাড মানির জন্য কোনো ফি দিতে হবেনা।
ট্রান্সফার মানির জন্য গ্রাহককে ১% ফি দিতে হবে।

লেনদেনের লিমিট:

অগ্রণী ব্যাংক দিয়ে অ্যাড মানি-র লিমিটঃ

প্রতিদিন ২ বার টাকা আনা যাবে (প্রতিবারে সর্বোচ্চ ২০,০০০ টাকা)
অগ্রণী ব্যাংক একাউন্ট-এর ব্যবহারযোগ্য ব্যালেন্স এর ২৫% লেনদেন করা যাবে।

ব্যাংক বা কার্ডের ক্ষেত্রে বিকাশ-এর লিমিট:

সোর্সঃ বিকাশ

Leave a Reply