শহীদী মৃত্যুর তামান্না ও ধৈর্য ধারণকারীদের আল্লাহ তায়ালা কি প্রতিফল দান করবেন? সবাই জেনে নিন।


আসসালামু আলাইকুম সবাই কেমন আছেন…..? আশা করি সবাই ভালো আছেন । আমি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি ।আসলে কেউ ভালো না থাকলে amartips তে ভিজিট করেনা ।তাই আপনাকে amartips তে আসার জন্য ধন্যবাদ ।ভালো কিছু জানতে সবাই amartips এর সাথেই থাকুন।

আখেরাতের প্রস্তুতি নিয়ে

শহীদী মৃত্যুর তামান্না

সবচেয়ে বড় প্রস্তুতি আখেরাতের জন্য হবে যদি শহীদ হবার কামনা নিয়ে জিহাদের শরিক হওয়া যায়।
আল্লাহর দ্বীন কায়েমের জন্য জিহাদ করা ফরজ।
এ ফরজ পালন করাতে গিয়ে শহীদ হবাল সুযোগ হলে এর চেয়ে বড় সৌভাগ্য আর হতে পারে না।
শহীদ হতে পারলে সবকিছু মাফ হয়ে যাবে শুধু ঋণ ছাড়া।
জন্য জিহাদের সাথে শাহাদাতের তামান্না আখেরাতের প্রস্তুতিকে মজবুত করে দেয়।
শহীদ হবার ইচ্ছাকে আল্লাহ তায়ালা শহীদের মর্জাদা পাওয়ার উপায় করে দিয়েছেন।
সাহল ইবনে হুনায়ফ রাঃ থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যাক্তি খালেস নিয়্যতে শাহাদাত চায় তাঁর মৃত্যু বিছানায় হলেও আল্লাহ তাঁকে শহীদের আবাসস্থলে পৌঁছিয়ে দেন। ( অর্থাৎ শাহাদাতের মর্যাদা দান করেন) সুবহানআল্লাহ (মিশকাত)

ধৈর্যধারণকারীই আখেরাতে সফল

দুনিয়ায় সবরকারী ব্যাক্তি আখেরাতে সফলকাম হবে।
সবর এর প্রতিদান জান্নাত।
এ জন্য জীবনের যে কোনো দুঃখ কষ্ট ব্যাথা বেদনা চিন্তা দুশ্চিন্তা সবকিছুকে সহ্য করে নিতে হবে।
যে কোনো কষ্ট দুঃখের বিনিময়ে আল্লাহ পাক বান্দাহর গুণাহ মাফ করে দেন।
এমনকি পায়ে একটা কাঁটা বিঁধলেও তার বিনিময়ে গুণাহ মাফ করা হয়।
আখেরাতের প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য যে কোন বিপদাপদকে মেনে নেয়ার মত শক্ত মন তৈরি করে নিতে হবে।
যেহেতু জান্নাত পরিবেষ্টিত আছে দুঃখ কষ্ট বেথা বেদনা দ্বারা তাই এগুলো সহ্য করে নিয়েই জান্নাতে যেতে হবে।
আর যেহেতু জাহান্নাম লোভ লালসা কামনা দ্বারা পরিবেষ্টিত অছে তাই এগুলোর ধারের কাছেও যাওয়া যাবে না।
কারণ এগুলোর কাছে গেলেই জাহান্নামে নিক্ষিপ্ত হবার আশংকা আছে।
তাই লোভ লালসা কামনা বাসনা থেকে দুরে থেকে প্রয়োজনে দুঃখ কস্টের পথ পাড়ি দেয়ার প্রস্তুতি থাকলেই আখেরাতের সফলতা অর্জন সম্ভব।

প্রিয় ভাই ও বোনেরা লাইক কমেন্ট শেয়ার করে ইসলামি দাওয়াতে আপনিও অংশগ্রহণ করুন। প্রিয় বন্ধুরা জানার স্বার্থে দাওয়াতি কাজের স্বার্থে আর্টিকেলটি অবশ্যই শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন। হতে পারে আপনার একটি শেয়ার বহু মানুষ উপকৃত হবে ইনশাআল্লাহ।

Leave a Reply