প্রত্যাহিক ছোট ছোট কিছু আমল যা মিজানের পাল্লায় অনেক ভারী হবে এবং কিয়ামতের দিন রাসুল (সাঃ) এর সাফায়াত লাভের সুযোগ পাবেন । জেনে নিন জিকির সমূহ ।

আসসালামুয়ালাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ !
সুপ্রিয় পাঠক ও দ্বীনি ভাই, প্রথমেই আপনাকে স্বাগতম জানাচ্ছি , এবং আন্তরিক ভাবে সুভেচ্ছা জানাচ্ছি । আর এই ইসলামিক পোস্টটি ওপেন করে ইসলামী জ্ঞান অর্জনের সেই আগ্রহের জন্য জানাচ্ছি এক আল্লাহ তাআলার মহা সুসংবাদ । আল্লাহ পাক রাব্বুল আলামীন আপনাকে আমাকে কবুল করুন , হেদায়েত দান করুন । আমিন ।
হাদীস শরীফের মধ্যে থেকে বহুল আলোচিত এবং বহুল প্রচলিত কিছু যিকির ও আমল শিখবো যার ওজন মিজানের পাল্লায় অনেক ভারী । রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম স্বয়ং যেগুলো সম্বন্ধে সাহাবাদের ও উম্মতদেরকে অবগত করেছেন । আসুন সেসব জেনে নেওয়া যাক ।

✓ (১) প্রতিদিন ১০০ বার “সুবহান আল্লাহ্” পাঠ করলে ১০০০ সাওয়াব লিখা হয় এবং ১০০০ গুনাহ মাফ করা হয়।
[সহীহ মুসলিম-৪/২০৭৩]

✓ (২) ‘আলহামদুলিল্লাহ’ মীযানের পাল্লাকে ভারী করে দেয় এবং সর্বোত্তম দোআ’।

সূত্রঃ [তিরমিযী-৫/৪৬২,ইবনে মাযাহ-২/১২৪৯
,হাকিম-১/৫০৩,সহীহ আল জামে’-১/৩৬২]

✓ (৩) ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ’ সর্বোত্তম যিকর।

সূত্রঃ [তিরমিযী-৫/৪৬২,ইবনে মাযাহ-২/১২৪৯ , হাকিম-১/৫০৩,সহীহ আল জামে’-১/৩৬২]

✓ (৪)
‘সুবহান আল্লাহ ওয়াল হামদুলিল্লাহ ওয়ালা ইলাহা ইল্লাল্লাহু আল্লাহু আকবর’ এই কালিমাগুলি আল্লাহর নিকট অধিক প্রিয় এবং নবী (সঃ) বলেনঃ পৃথিবীর সমস্ত জিনিসের চইতে আমার নিকট অধিক প্রিয়।

সূত্রঃ[ সহীহ মুসলিম -৩/১৬৮৫, ৪/২০৭২]

✓ (৫)

যে ব্যক্তি ‘সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহী’ প্রতিদিন ১০০ বার পাঠ করবে সমুদ্রের ফেনা পরিমান (সগীরা) গুনাহ থাকলে ও তাকে মাফ করে দেওয়া হবে।
সূত্রঃ[সহীহ আল-বুখারী-৭/১৬৮,সহীহ মুসলিম-৪/২০৭১]

✓ (৬)
নবী (সঃ) বলেনঃ ‘সুবহানাল্লাহি ওয়াবি হামদিহী সুবহানাল্লিল আযীম’ এই কালীমাগুলি জিহ্বায় উচ্চারনে সহজ , মীযানের পাল্লায় ভারী ,দয়াময় আল্লাহর নিকট প্রিয় ।
সূত্রঃ[সহিহ আল- বুখারী-৭/১৬৮,সহীহ-মুসলিম-৪/২০৭২]

✓ (৭)
যে ব্যক্তি ‘সুবহানাল্লাহিল আযীমি ওয়াবি হামদিহী’ পাঠ করবে প্রতিবারে তার জন্য জান্নাতে একটি করে (জান্নাতী) খেজুর গাছ রোপন করা হবে ।
সূত্রঃ[আত-তিরমিযী-৫/৫১১,আল-হাকীম-১/৫০১, সহীহ আল-জামে’-৫/৫৩১, সহীহ আত-তিরমিজী-৩/১৬০]

✓ (৮)
নবী (সঃ) বলেনঃ ‘লা হাওলা ওয়ালা কুয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ’ হচ্ছে জান্নাতের গুপ্তধন সমুহের মধ্যে একটি গুপ্তধন।
সূত্রঃ[ সহীহ আল-বুখারী -১১/২১৩, সহীহ মুসলিম-৪/২০৭৬]

✓ (৯)
নবী (সঃ) বলেনঃ ‘সুবহান আল্লাহ ওয়াল হামদুলিল্লাহ ওয়ালা ইলাহা ইল্লাল্লাহু আল্লাহু আকবর ওয়ালা হাওলা ওয়ালা কুয়্যাতা ইল্লা বিল্লাহ’ এই কালীমাগুলি হচ্ছে “অবশিষ্ট নেকআ’মল সমুহ” ।
[ আহমাদ (সহীহ)-৫১৩, মাজমাউজ জাওয়াঈদ-১/২৯৭ ]

✓ (১০)
নবী (সঃ) বলেনঃ যে ব্যক্তি আমার প্রতি একবার দুরুদ পাঠ করবে আল্লাহ তাআ’লা তার প্রতি দশ বার রহমত বরষন করবেন !!! সুবহানাল্লাহ !!
উক্ত দুরুদ হলোঃ “আল্লাহুম্মা সাল্লি ’আলা মুহাম্মাদিঁওয়া ’আলা আলি মুহাম্মাদিন্ কামা সাল্লায়তা ’আলা ইব্রাহীমা ওয়া ’আলা ’আলি ইব্রাহীমা ইন্নাকা হামীদুম মাজিদ আল্লাহুম্মা বারিক ’আলা মুহাম্মাদিঁওয়া ’আলা আলি মুহাম্মাদিন্ কামা বারাকতা ’আলা ইব্রাহীমা ওয়া ’আলা ’আলি ইব্রাহীমা ইন্নাকা হামীদুম মাজিদ ”

এবং তিনি (সঃ) আরো বলেনঃ যে ব্যক্তি আমার প্রতি সকালে দশবার এবং বিকেলে দশবার দুরুদ পাঠ করবে সে ব্যক্তি কিয়ামতের দিন আমার শাফায়াত পাবে ।”

সুবহানাল্লাহ !!!

[তাবারানী, মাজময়াউজ জাওয়াঈদ-১০/১২০, সহীহ আত-তারগীব ওয়াত তারহীব-১/২৭৩]
সুপ্রিয় পাঠক , আজ আমরা দশটি যিকির ও আমল জানলাম , এবং হাদীস শরীফ থেকে এর ফজিলত সম্পর্কে জানলাম ।
যতটুকু জানলাম আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে এর উপরে আমল করার তৌফিক দান করুন আমীন ।
লা হাওলা ওলা ক্কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ
লা মালজায়া মিনাল্লাহি, ইল্লা ইলাইহি ।

Leave a Reply