আপনার সিম এবং ফোন VoLTE সাপোর্ট করা সত্ত্বেও চালু করতে পারছেন না? নিয়ে নিন সমাধান জিপি, রবি এবং এয়ারটেল।

VoLTE হচ্ছে ভয়েস কমিউনিকেশনের ক্ষেত্রে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি। এর মাধ্যমে গ্রাহক 2G বা 3G নেটওইয়ার্ক ব্যবহার না করে সরাসরি 4G নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ভয়েস কল করতে পারবেন। VoLTE এর কল চার্জ একেবারে 3G ভয়েস কল চার্জের মতোই হবে। এতে বাড়তি কোনো ইন্টারনেট চার্জ নেই। ভোল্টির সুবিধাগুলোর মধ্যে রয়েছে ক্রিস্টাল ক্লিয়ার ভয়েস কোয়ালিটি, দ্রুত কল কানেক্ট করার ক্ষমতা আর দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি লাইফ এবং কথাবলার পাশাপাশি ডাটা কানেকশন চালানো। বর্তমানে বাংলাদেশে Gp, Robi , Airtel এই সেবাটি দিচ্ছে। এটি ব্যাবহার করতে আপনার দরকার হবে ৪জি সিম এবং VoLTE supported Phone।

VoLTE সার্ভিসটি চালু করতে আমাকে কী করতে হবে?

VoLTE সার্ভিসটি উপভোগ করতে চাইলে কলার এবং রিসিভার দুজনকেই নিম্নলিখিত বিষয়গুলো নিশ্চিত করতে হবে:
USIM/4G SIM সিমটি 4G/3G/2G (অটো) হিসেবে “নেটওয়ার্ক মোড” -এর সাথে এটি SIM স্লটে ব্যবহার করতে হবে।
VoLTE সাপোর্ট করে এমন হ্যান্ডসেট লাগবে এবং ফোনে VoLTE অপশনটি চালু করতে হবে।
জিপি 4G কাভারেজে থাকতে হবে।
আপনার হ্যান্ডসেট প্রস্তুতকারীর আপগ্রেড করা অপারেটিং সিস্টেম সফ্‌টওয়্যার থাকতে হবে।

GP VoLTE

জিপিতে VoLTE চালু করবেন এটি ডায়াল করার মাধ্যমে *121*1133*1#
VoLTE চালু হয়েছে কিনা তা জানতে পারবেন *121*1133*3# ডায়ালের মাধ্যমে।

Robi/Airtel VoLTE

VoLTE সার্ভিসের জন্য Dial করুন *86583#

ডিভাইস থেকে VoLTE

এর জন্য আপনাকে সিম থেকে VoLTE চালু করে নিলেই ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এই সেবাটি চালু হয়ে যায়। তারপরেও আপনি *#*#4636#*#* ডায়াল করে দেখে নিতে পারেন বা বন্ধ এবং চালু করতে পারেন VoLTE। আপনার ডিভাইস যদি শাওমি হয়ে থাকে অর্থাৎ মিউইয়াই থাকে তবে *#*#86583#*#* ডায়াল করলেই VoLTE carrier check was disabled লিখা আসবে। এতেই চালু হয়ে যাবে এবং সেটিং থেকে দেখে নিতে পারবেন।


এ বিষয়ে কোনো প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করুন এবং যদি VoLTE চালু না হয় তবে আপনি আপনার কাস্টমার কেয়ার যোগাযোগ করে দেখতে পারেন।

Leave a Reply