সফল হতে টাকা লাগে না, লাগে অন্য কিছু। জানতে চাইলে আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়েন।

আসসালামু আলাইকুম সবাই কেমন আছেন…..? আশা করি সবাই ভালো আছেন । আমি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি ।আসলে কেউ ভালো না থাকলে amartips তে ভিজিট করেনা ।তাই আপনাকে amartips তে আসার জন্য ধন্যবাদ ।ভালো কিছু জানতে সবাই amartips এর সাথেই থাকুন ।

সফল হতে টাকা লাগে না, লাগে অন্য কিছু

সফল ব্যক্তি কে হন….? তার পরিচয় কি হয়….? কোন একজন ব্যক্তি সফল হওয়ার আগে কি আমরা বলতে পারি যে তিনি ভবিষ্যতে সফল হবেন। এরকম অনেক প্রশ্ন আমাদের মাথায় আসে যখন আমরা সফলতা নিয়ে কথা বলি। আমার যতদূর মনে হয়েছে সফল ব্যক্তি এবং অসফল ব্যক্তির দুজনেই একই রকম হয় আর তারা দুজনেই এভারেজ হয়।

তাহলে এখানে পার্থক্যটা কোথা থেকে আসে। এই পার্থক্যটা আসে দুজনে চিন্তা থেকে থিঙ্ক কিং থেকে একজন সফল ব্যক্তি তিনি হন যিনি এক্সট্রাঅরডিনারি কাজ করার ক্ষমতা রাখেন সাহস রাখেন আর সেখানে একজন অ্যাভারেজ মাইন্ডসেট ওয়ালা ব্যক্তি জীবন থেকে বেশি কিছু চায় না তারা সবসময় ভিন্নধর্মী কিছু করতে ভয় পায়।

যদি আপনাকে জীবনে বড় কিছু করতে হয় ভিন্নধর্মী কিছু করতে হয় সফল হতে হয় তাহলে আপনাকে বেশি কিছু করতে হবেনা জাস্ট সাহস করতে হবে সাহস করতে হবে প্রতিদিন নতুন কিছু করার সাহস করতে হবে ভিন্নধর্মী কিছু করার তারপর এটা নির্ভর করবে না যে আপনি কোন শহর থেকে বা কোন গ্রাম থেকে আপনার ভাষা কি

আপনি ইংলিশ বলতে পারেন কি পারেন না আপনার মধ্যে কোন ট্যালেন্ট আছে না নেই কোন স্কিল আছে না নেই আপনার ব্যাংক একাউন্টে অনেক টাকা আছে না নেই এসব কথার কোন অর্থ থাকবে না কোনো পার্থক্য তৈরী করবে না। এগুলো শুধুমাত্র সার্কামস্তন্স যেখান থেকে আপনি এসেছেন এগুলো আপনার অতীত থেকে আপনার ভবিষ্যত নির্ধারিত হবে না।

আপনার ভবিষ্যৎ কি হবে এটা নির্ধারণ করার ক্ষমতা কার হাতে স্বাধীনতা ছিনিয়ে নিতে পারবে না হয়তো আপনার উপর বেশি লোক ভরসা করবে না। কিন্তু আপনি আপনার নিজের উপর ভরসা করতে হবে ভরসা আসলে কি ভরসা বিশ্বাস করার অর্থ ভবিষ্যৎ যেখানে আনসার্টেন হতেও পারে আবার নাও পারে তা সত্ত্বেও কোনো কিছুর উপর আস্থা রাখা যদি ভবিষ্যৎ সবার জানা থাকতো তাহলে তো সবাই আপনার উপর ভরসা করত সবাই আপনার উপর ইনভেস্ট করতে রাইট।

আপনাকে বুঝতে হবে যে অন্য কেউ আপনার উপর ভরসা করুক বা না করুক যদি আপনি কোন কাজে প্রফেশনে যেতে চান আর এই কথাটার উপর থাকে যে হ্যাঁ আমি ওটা করতে পারব তাহলে আপনার মধ্যে একটা অ্যাটিটিউড রাখতে হবে যেটা সব সময় আপনাকে বলবে হ্যাঁ আমি এটা করতে পারবো কারো ক্ষমতা নেই আমাকে থামানোর।

অ্যাটিটিউড রাখা খুব জরুরি যদি অ্যাটিটিউড না থাকে তাহলে মানুষ আপনার রাস্তায় পাথর ছোড়বে খোঁচা দেবে ডিমটিবেট করার চেষ্টা করবে আর আপনি হার মেনে যাবে। কিন্তু যদি আপনার কাছে অ্যাটিটিউড থাকে তাহলে এই অ্যাটিটিউড আপনার জন্য ডালের কাজ করবে আর সামনে এগিয়ে যাওয়ার সময় আপনাকে থামতে দেবে না এবার এসে যায় সেই একই কথা যেটা অলরেডি আপনি জানেন।

জীবনে যদি আলাদা কিছু করতে হয় জীবনে যদি আলাদা কিছু পেতে হয় তাহলে আপনাকে আলাদা কিছু করতেই হবে কারণ যদি আলাদা কিছু না করেন তাহলে ওটাই পাবেন যেটা আজ পর্যন্ত অন্যরা সবাই পেয়ে আসছে। আপনাকে ঐ সমস্ত কাজ করতে হবে যেগুলো আপনি আজ পর্যন্ত করেননি ওই সমস্ত কথা বলতে হবে যেগুলো আজ পর্যন্ত বলেননি হয়তো এমন কিছু কাজ করতে হবে।

যেগুলো আপনি করতে চান না কিন্তু তা সত্বেও আপনাকে করতে হবে আরেকটা কথা আপনাকে বলি। আপনাকে বিশেষ কিছু করতে হবে না জাস্ট আপনার ব্রেইন কে কন্ট্রোল করতে হবে আর তারপর ওটা অটোমেটিক ইনস্ট্রাকশন দিতে থাকবে পরবর্তীতে আপনি কি করবেন।

সামনের রাস্তা কিভাবে খুজবেন সে শুধু আপনার জন্য পথ নির্দেশ দিতে থাকবে আর আপনার সমস্ত রাস্তা আপনি খুলতে থাকবে কারণ আপনার ব্রেন অলরেডি এত পাওয়ার ফোল যে সমস্ত রাস্তা আগে থেকেই জানে শুধু দরকার হয় তার উপর ভরসা রাখার। এমন নয় যে একদিনে সব পরিবর্তন হয়ে যাবে।

এমনটা হয় না আপনাকে ধীরে ধীরে চেঞ্জ আনতে হবে প্রথম 3 দিন করুন তারপর সাতদিন করুন এভাবে ধীরে ধীরে বাড়ানো আর তারপর একদিন দেখবেন সমস্ত কিছু বদলে গেছে। যে আপনার নিজেরই বিশ্বাস হচ্ছে না আপনি এতটা কিভাবে করে ফেললেন।

শুনবেন না নিজের ভিতর নেগেটিভ কথাগুলোকে শুনবেন না নেগেটিভ মানুষগুলোর কথা যারা আপনাকে ছোট করতে চাই কারন আপনার মধ্যে এত শক্তি আছে আপনি যা চাইবেন তাই করতে পারবেন শুধু এই কথাটা আপনাকে মেনে নিতে হবে বলতে হবে আই ক্যান ডু ইট।

আপনার কাছে সবকিছু আছে মোবাইল, টিভি, বন্ধুবান্ধব সবকিছু। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আপনি জীবনে সফল হবেন নাকি সফল হবেনা এটা নির্ভর করবে আপনি কোন কাজে সময় নষ্ট করছেন।আর কোন কাজে করছেন না। আপনাকে ভিতর থেকে আরো শক্তিশালী হতে হবে।অডার দেওয়া শুরু করতে হবে।

আমি আজ টিভি দেখবো না মানে টিভি দেখবো না। ফেসবুক খুলবো না মানে সারাদিন ফেসবুক খুলবো না। নিজের কাছে কমিটেড থাকতে হবে কোনো মূল্যে সেটা ভাঙা যাবে না। আরেকটা কথা আমি কি সফল হতে পারব ❓ আমি কি ধনী হতে পারব❓ বন্ধ করুন নিজেকে এরকম প্রশ্ন করা ।

আপনি নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করে নিজের উপর সন্দেহ করছেন।ডাউট করছেন।আর যখন আপনি নিজেই নিজের উপর ডাউট করবেন অন্যদের কি জবাব দেবেন।যখন অন্যরা ডাউট করবে তখন কিভাবে সেটা মোকাবেলা করবেন। এবার বন্ধ করুন নিজের জন্য অনেক কেঁদেছেন।

এখন সময় এসেছে নিজের জন্য উঠে দাঁড়ানোর। এখন আর নিজেকে প্রশ্ন করবেন না। নিজেকে অডার দিবেন। আমার ওটা চাই সেটা যেকোন মূল্যেই হোক না কেন। তারপর যাই হোক না কেন যে বাধাই আসুক না কেন পুরো শক্তি লাগিয়ে দেবেন ওই জিনিসটা পাওয়ার জন্য তখন আপনি বুঝতে পারবেন

যে হ্যাঁ আমি মধ্যে ঐ জিনিসটা ছিল এই দক্ষতা ছিল কিন্তু আমি বুঝে উঠতে পারেনি একটাই জীবন পেয়েছি সেটা কান্না করে কাটানো বন্ধ করুন আপনার একটা সিদ্ধান্ত আপনার জীবন বদলে দিতে পারে ওটা আপনাকে সব কিছু্ এনে দিতে পারে যেগুলো আপনি আজ পর্যন্ত চেয়ে আসছে তো বাস অনেক হয়েছে এবার উঠুন আরেকটা সিদ্ধান্ত নিন ঝাঁপিয়ে পড়ুন সেইদিকে

বন্ধুরা আর্টিকেলটি যদি ভালো লাগে আপনার জীবন পরিবর্তনে একটু সাহায্য করে থাকে তাহলে আর্টিকেলটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন আপনার বন্ধু-বান্ধব পরিবারের সদস্য এবং অন্যান্যদের মাঝে।

আশা করি সবাই সবকিছু বুঝতে পেরেছেন। কোথাও সমস্যা হলে কমেন্ট করে জানাবেন অথবা ফেসবুকে জানাতে পারেন ফেসবুকে আমি

Leave a Reply