Xiaomi mi 11 এবং Snapdragon 888 প্রসেসর মিলে কতটা সুন্দর?

এস ডি ৮৮৮ স্ন্যাপড্রাগনের লেটেস্ট ফ্লাগশিপ এস ও সি। সো সবারই এক্সপেকটেশানস হাই থাকবে এটাই স্বাভাবিক।


তবে গত কয়েকদিন ধরে এটার হিটিং ইসু নিয়ে ইউটিউবে এবং অনলাইনে অনেক কন্টেন্ট দেখলাম। এগুলো তেমন গায়ে মাখাই নাই। আজকে চোখে পরল ফ্রানকিটেক এর আন্টুটু স্ট্রেস টেস্ট। মি ১১, মি ১০টি প্রো এবং রেডমি নোট ৯টি এর মদ্ধ্যে কয়েকবার স্ট্রেস টেস্ট করা হয়। এতে দেখা যায় মি ১১ এর স্কোর অনেক কমে যায় বার বার স্ট্রেস টেস্ট করার ফলে কিন্তু সেইম টাইমে মি ১০টি প্রো এবং রেডমি নোট ৯টি মোটামুটি সেইম অথবা কাছাকাছি স্কোর ধরে রাখতে পেরেছে। কারন হিসেবে দেখা গেল মি ১১ এর টেম্পারেচার ৫৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠে গেছে যেখানে ১০টি প্রো এবং ৯টি ৪৫ ডিগ্রি পর্যন্ত উঠে। বলে রাখা ভাল যে ৯টি তে মিডিয়াটেক ডায়মেনসিটি ৮০০ ইউ ব্যবহার করা হয়।

আরও অবাক করা বিষয় হল মি ১১ এ টেম্পারেচার ৪৫ ডিগ্রি ক্রস করার পরেই ডিস্পলে ডিম হয়ে যাচ্ছে মোস্ট প্রবাবলি ডিস্পলে এবং অভারহিটিং ইসু মিনিমাইয করার জন্যে। ফ্রানকিটেক কে সবাই শাওমি লাভার হিসেবে জানেন এবং আমি নিজেও শাওমি সেট কিনতে গেলে তার রিভিউ দেখি।

এখন এমনও হতে পারে নতুন প্রসেসর পুরোপুরি অপ্টিমাইজড না। সো কমেন্ট বক্সে কেউ আবার শাউমি খারাপ বলে ঝাপিয়ে পরবেন না প্লিজ। স্যামসাং এস ২১ এর এসডি ভারশন বাজারে আশার পর ব্যপারটি আরও ক্লিয়ার হবে।

বিঃ দ্রঃ
আমি কোন কোম্পানির ফ্যানবয় না। আমার লাস্ট দূটো ডিভাইস শাওমির। পোকো এফ ২ প্রো এবং মি ১০টি। আলহামদুলিল্লাহ আমি সেটিস্ফায়েড। ১০টি এর রিভিউ এবং এফ ২ প্রো এর সাথে কম্পেরিজন রিভিউ নিয়ে আসব ইন শা আল্লাহ শীঘ্রই। ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন।

জাজাকাল্লাহ খাইরান।

Leave a Reply