[ব্যবসা-০৮] একনজর দেখে নিন শাওমির ফোন ছাড়াও আর কি কি তৈরী করে

কম দামি স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে শাওমি এর পারফর্মেন্স অন্য সকল ফোনের চাইতে অসাধারণ। ফোন কখনো হ্যাং করে না বললেই চলে। শাওমি এর অধিকাংশ ফোনে স্ন্যাপড্রাগন এর চিপসেট ব্যবহার করা হয় বিধায় ফোন খুব স্মুথলি ব্যবহার করা সম্ভব হয়। শাওমি ফোনের ব্যাটারি থেকেও বেশ লম্বা সময়ের ব্যাকআপ পাওয়া যায়। ক্যামেরার ক্ষেত্রে অন্যান্য মিড রেঞ্জের মোবাইলের চাইতে ভালো কোয়ালিটির ছবি ক্যাপচার হয়। আমার মতে কম দামি স্মার্টফোন বা মিড রেঞ্জের স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে সিম্ফনি এবং ওয়ালটন মোবাইল না কিনে শাওমি ফোন কিনলে অনেক ভালো পারফর্মেন্স পাবেন।

 

শাওমির বিভিন্ন ধরনের পণ্য তৈরি করে, তবে এর মধ্যে মোবাইল ফোন, টিভি এবং রাউটার উল্লেখযোগ্য।

 

ল্যাপটপ    :

মি নোটবুক এয়ার:   

শাওমি তাদের প্রথম আল্ট্রাবুক মি নোটবুক এয়ার এর মাধ্যমে চীনের কম্পিউটারের বাজারে প্রবেশ করে।

 

মোবাইল ফোনসমূহ    :

এমআই সিরিজ:

২০১৫ সালের জানুয়ারীর আগে পর্যন্ত শাওমি এর প্রধান মোবাইল হ্যান্ডসেটগুলো ছিলো শাওমি এম আই সিরিজ। শাওমি এম আই ৪ মার্চ, মে এবং যথাক্রমে ২০১৪ সালের মার্চ, মে এবং জুলাইতে চীন, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড ও ভারতে চালু করা হয়। এই সিরিজের সর্বশেষ ফোন এমআই ১০

 

এমআই নোট:   

২০১৫ সালের জানুয়ারিতে চীন এর বেইজিং এ, শাওমি আইফোন ৬ এর প্রায় অর্ধেক মূল্যে এম আই নোট ও এম আই নোট প্রো বাজারে আনে।

 

রেডমি সিরিজ:

শাওমি রেডমি নোট ৩

শাওমি রেডমি সিরিজ এমআই সিরিজের চেয়ে কম মূল্যের ফোন। বাজেটবান্ধব রেডমি সিরিজের সবথেকে উল্লেখযোগ্য দিক হলো এর দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি। এই সিরিজের অধিকাংশ মডেলেই ৩০০০ বা তদূর্ধ্ব মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি ব্যবহৃত হয়েছে।

শাওমি এমআই ১০

শাওমি রেডমি সিরিজ এমআই সিরিজের চেয়ে বেশি মূল্যের ফোন।

শাওমি এমআই ১০ রয়েছে ৬.৬৭ ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড কার্ভড এজ ডিসপ্লে, সঙ্গে ফুল এইচডি প্লাস রেজোলিওশন। ফোনের সামনে ও পিছনে গোরিলা গ্লাস ৫-এর সঙ্গে অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেম হ্যান্ডসেটটিকে প্রিমিয়াম লুক দেয়। এই ডিভাইসটিতে ৪৭৮০ এমএইচ (ফিক্সড), ফাস্ট চার্জিং ব্যাটারি করা হয়েছে ৷

এমআই প্যাড:   

শাওমির প্রথম ট্যাবলেট পিসি হচ্ছে শাওমি এমআই প্যাড, এটি ২০১৪ সালে বাজারে আসে। এরপর আসে এমআই প্যাড ২, এই তালিকায় সর্বশেষ পাবলিশ হয় এমআই প্যাড ৩ ৷

 

মিআইইউআই (অপারেটিং সিস্টেম):   

মিইইউআই(অপারেটিং সিস্টেম) হচ্ছে গুগোল অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের উপরে ভিত্তি করে শাওমি কর্তৃক উন্নত অপারেটিং সিস্টেম । এটি শাওমির শুরুর দিকের একটি পণ্য। বর্তমানে এর ১১ সংস্করণ মিআইইউআই ১২ তে প্রকাশ হয়েছে ।

 

এমআই ওয়াই-ফাই (নেটওয়ার্ক রাউটার):   

শাওমির MiWiFi সিরিজের প্রথম রাউটার বাজারে আসে ২০১৪ সালের ২৩ এপ্রিল হতে ।

 

মি টিভি (স্মার্ট টিভি লাইন):   

শাওমি ১ম MI সিরিজের স্মার্ট টিভি বাজারজাত করা শুরু করে ২০১৩ সাল হতে ৷ এই স্মার্ট টিভি অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলে।

 

শাওমির আরও অন্যান্য পণ্য হচ্ছেঃ   

এমআইবক্স (সেট-টপ বক্স)
এমআই ক্লাউড (ক্লাউড স্টোরেজ সার্ভিস)
এমআইটক(ম্যাসেজিং সার্ভিস)
এমআই পাওয়ার ব্যাংক (এক্সটার্নাল ব্যাটারি)
এমআই ব্যান্ড (ফিটনেস মনিটর এন্ড স্লিপ ট্র্যাকার)
স্মার্ট হোম পণ্য
ব্লাড প্রেসার মনিটর
এয়ার পিউরিফাইয়ার
ই অ্যাকশন ক্যামেরা
এম আই স্মার্ট স্কেল
এম আই ওয়াটার পিউরিফাইয়ার
স্মার্ট হোম কিট
নাইনবুট মিনি
স্মার্ট রাইস কুকার

শাওমি কোম্পানি অল্প লাভে বেশি সেল করে এবং ভালো মানের পণ্য তৈরি করে যার জন্য ব্যবসা সফল হয়েছে ৷

তথ্য সুত্রঃ ইন্টারনেট

Leave a Reply