ছোটখাট ফ্রীল্যান্সিং জব করে আয় করুন হাজার হাজার ডলার

আসসালামু আলাইকুম আমারটিপ্সর জনগণ। আশা করি আল্লাহর রহমতে সকলে ভালোই আছেন। আজকের এই পোস্টটি মূলত তাদের জন্য, যারা অনলাইনে বিভিন্ন সাইটে কাজ করে আশানুরূপ অর্থ আয় করতে না পেরে অনলাইন ইনকামের আশাই ছেড়ে দিয়েছেন। আর আপনি যদি স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন এবং পড়াশোনার পাশাপাশি বাড়তি আয় করতে চান তাহলে পোস্টটি আপনার জন্য স্পেশাল।

আজকের পোস্টে আমরা এমন একটি মাইক্রো জব ফ্রীল্যান্সিং সাইট সম্পর্কে জানবো, যেখানে কাজ করে আপনি সহজেই যথেষ্ট পরিমাণ অর্থ আয় করতে পারবেন।

আজ থেকে আরোও একমাস আগে অনলাইনে ঘাটাঘাটি করতে গিয়ে Picoworkers নামে একটি ওয়েবসাইটের সন্ধান পাই। এরপর ইউটিউব ও বিভিন্ন ব্লগে এই সাইট সম্পর্কে বিশদ জেনে আমিও সাইটটিতে কাজ করা শুরু করি। যেহেতু আমি প্রচন্ড অলস প্রকৃতির মানুষ, তাই মাস শেষেও আমার আয় ১০ ডলার ছাড়াতে পারে নি। তবে আপনি যদি প্রতিদিন কিছু সময় এই সাইটে বিভিন্ন কাজগুলো করেন, তাহলে বিশ্বাস করুন, প্রতি মাসে আপনার আয় ২০ ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে!

কী? বিশ্বাস হচ্ছে না? আচ্ছা, আমার কথায় বিশ্বাস করার দরকার নেই। আপনি ইউটিউব কিংবা গুগলে Picoworkers এর কিছু রিভিউ দেখে আসুন, তাহলেই বুঝে যাবেন। ইতিমধ্যেই হড়বড় করে অনেক কথা বলে ফেলেছি। তাহলে কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করি।

➥ Picoworkers সম্পর্কে কিছু তথ্য

এই সাইটটি মূলত একটি ফ্রীল্যান্সিং সাইট। সোজা কথায় মাইক্রো জব ফ্রীল্যান্সিং সাইট। অর্থাৎ, এখানে আপনি বিভিন্ন দেশের মানুষের অনলাইনে ছোটখাট কাজ করে দেয়ার মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন। আমাদের বাংলাদেশের অনেক মানুষই ইতিমধ্যে এই সাইটে ভালো পজিশনে আছেন। সর্বনিম্ন ৫.৭৫ ডলার হলে উইথড্র করা যাবে। উপার্জিত ডলার বিটকয়েন, পেপ্যাল অথবা স্ক্রীল এর মাধ্যমে উইথড্র করা যাবে।

সাইটটি ১০০% লেজিট। এই সম্পর্কে আপনি ইন্টারনেটে প্রচুর তথ্য পাবেন। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ এই ওয়েবসাইটে কাজ করে। তাই একে মিথ্যা বা স্ক্যাম ভাবার কোনো কারণ নেই।

➥ এবার দেখে নেই কাজের ধরণগুলো কেমনঃ

এখানে বিভিন্ন ধরনের কাজ পাওয়া যায়। যেমনঃ জিমেইল তৈরী করে দেওয়া, ইউটিউব ভিডিও ভিউ করা, রেফার কোডের মাধ্যমে কোনো সাইটে সাইন আপ করা। ওয়েবসাইট ভিসিট করে দেওয়া ইত্যাদি ইত্যাদি।

বিভিন্ন দেশের Employer রা নিজেদের এ ধরনের কাজগুলো Picoworkers এ জব আকারে পোস্ট করে। আপনি তার ইন্সট্রাকশন অনুযায়ী ঠিকমতো কাজ সম্পাদন করে কাজের প্রুফ সাবমিট করতে পারলেই আপনি পেমেন্ট পেয়ে যাবেন। ডলার আপনার একাউন্টে জমা হবে।

অন্যান্য ফ্রীল্যান্সিং সাইটগুলোর মতো এখানে আপনাকে বিড করতে হবে না। ১০০ থেকে ১০০০ জন একইসাথে একটি কাজ করতে পারেন।

ধরুন, কারো ১০০০ টি জিমেইল দরকার হলো। সে Picoworkers এ জব পোস্ট করবে এবং ১ জন একটি করে ইমেইল সাবমিট করবে এরকমভাবে হিসাব নির্ধারণ করে দেবে। আশা করি বুঝতে পেরেছেন। না বুঝলেও সমস্যা নেই। কাজ করতে করতে আস্তে আস্তে সব বুঝে যাবেন।

➥ কীভাবে Picoworkers এ কাজ করবো?

১। প্রথমে এই লিংকে যান => Sign Up – Picoworkers

২। এরপর Sign Up এ ক্লিক করে ঝটপট একটি অ্যাকাউন্ট তৈরী করে ফেলুন। একদম সহজ প্রসেস, যে কেউ পারবে তাই আর বিশদ দেখালাম না।

৩। এরপর নিচের মতো একটি পেইজ আসবে।

৪। এবার এখান থেকে যে কাজটি আপনি করতে পারবেন বলে মনে হয়, এমন একটি জবের উপর ক্লিক করুন।

 

৫। কীভাবে কাজটি করতে বলা হয়েছে, সেটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। যদি আপনি কাজটি করতে পারেন, তবেই করবেন। কেননা ভুলভাল কাজ করলে বায়ার কোনো পেমেন্ট দেবে না। উলটো আপনার একাউন্টে রিপোর্ট দিতে পারে।

৬। কাজটি করা হয়ে গেলে কাজের যেসব প্রুফ চাওয়া হয়েছে সেগুলো ঠিকভাবে সাবমিট করে দেবেন।

৭। ব্যাস, আপনার একটি কাজ ঠিকমতো করা হয়ে যাবে। এখন শুধু পেমেন্ট এর অপেক্ষা। ম্যাক্সিমাম বায়ার ৩-৪ দিনেই পেমেন্ট করে দেয়।

আজ এ পর্যন্তই। আমি যতটুকু পেরেছি বিস্তারিত বোঝানোর চেষ্টা করেছি। তবুও যদি কারো কোনো কিছু জানার থাকে, তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না। আর আপনারা চাইলে Picoworkers এ কাজ করা নিয়ে আলাদাভাবে বিস্তারিত একটি পোস্ট করবো। সবাই ভালো থাকবেন। আল্লাহ হাফেয।

Leave a Reply