শিমুল এর মূলের ঔষুধি গুন ও উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিন।

আসসালামুআলাইকুম। ও হিন্দু ভাইদের জানাই আদাব।কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভাল আছেন।
প্রতিবারের মতো আবারো আরেকটি পোস্ট নিয়ে হাজির হলাম আপনাদের মাঝে।আজকে কোন বিষয় এ পোস্ট করতে যাচ্ছি,টাইটেল দেখে হয়তো বুঝে গেছেন।
আজকে আপনাদের মাঝে শেয়ার করব,শিমুল এর মূল এর ঔষুধি গুন নিয়ে।
শিমুলগাছ এর মূলে রয়েছে অবাক করা ঔষুধি গুন।যা আপনারা জানলে অবাক হয়ে যাবেন।
বিশেষ করে যৌন শক্তি বৃদ্ধিতে অনেক কার্যকারী।
বীর্য ঘন করে ও শুক্রাণু বৃদ্ধি করে।এছাড়া ও আরো অনেক উপকারী এই শিমুল গাছের মূল।

আমাদের দেশের আনাচে কানাচে এই শিমুল গাছ দেখা যায়।
এটি একটি ভেষজ উদ্ভিদ। এই গাছটি অনেক লম্বা হয়ে থাকে,এবং ফুল দেখতে অনেকটা সুন্দর।
বসন্তকালে এই শিমুল গাছের ফুল ছেয়ে যায়।এবং এই গাছ থেকে ভাল মানের তুলা ও হয়।
যৌন শক্তির ঔষুধ তৈরী হয় এই গাছ থেকে ই বেশির ভাগ ক্ষেত্রে।

অনেকের সন্তান হয় না।বীর্যে শুক্রাণু না থাকার কারনে এটা হয়।কিন্তু শিমুল গাছের মূল খেলে শুক্রাণু এর পরিমান বেড়ে যায়।এবং সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।
এবার তাহলে শুরু করা যাক শিমুল গাছের মূল এর উপকারিতা ঔষুধি গুন গুলোঃ

*এটি খেলে পুরুষের শুক্রানু অনেক গুন বৃদ্ধি পায় এবং যৌন ক্ষমতা অনেকক্ষন ধরে রাখা যায়।

*বড় ধরনের রক্ত আমাশয় ভুগলে, শিমুলের মূল ও এর সাথে ছাগলের দুধ পান করলে,বেশ কয়েকদিন খেলে এটা ভাল হয়ে যাবে।

*পুরুষ আছে অনেক যারা স্ত্রী সহবাস এ দীর্ঘক্ষন থাকতে পারে না।এতে স্ত্রী তিপ্ত হয় না।
এবং স্ত্রী এর মনে পরিপূর্ণ সুখ আসে না।ফলে অশান্তি লেগে থাকে পরিবারে।এর কারন পুরুষের বীর্য পাতলা, পাতলা বীর্য এ যৌন মিলনে দীর্ঘক্ষন থাকা যায় না।এই ভয়াবহ রোগ ভাল করতে শিমুল এর মূল অত্যান্ত কার্যকারী।
শিমুলমূল,তেতুল বীজের গুড়া,অশ্বগন্ধা একত্রে খেলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

*আমাদের অনেক সময় ফোড়া হয়ে থাকে,এবং অনেক যন্ত্রনা আমাদের দেয়।এই ফোড়ার ব্যাথা থেকে মুক্তি পেতে হলে, শিমুল এর গাছের মূল ছেচে ক্ষত স্তানে লাগালে ভাল ফল পাওয়া যায়।

*মেসতা এবং এ ধরনের রোগ দূর করে শিমুল গাছের মূল।

*মহিলাদের রক্তস্রাব হলে,এই শিমুল গাছের মূল খেলে মুক্তি পাওয়া যায়।

*যৌন দূর্বালতা ও শারীরিক ভাবে দূর্বল থাকলে শিমুল এর মূল খেলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।

এছাড়া ও শিমুল এর মূল দিয়ে অনেক ঔষধ বানানো হয়।

টেকনিক্যাল বিষয়ে যাবতীয় ভিডিও ও সমাধান পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুনঃ

Youtube Channel

আজ এ পযন্ত,

ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জ্ঞান আপনাদের মাঝে তুলে ধরার চেস্টা করি।
পরবর্তী ট্রিক এর জন্য অপেক্ষা করুন, আবারো ভাল কিছু নিয়ে হাজির হবো।
সে পযন্ত ভাল থাকুন,সুস্থ থাকুন।

যে কোনো প্রয়োজনে আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করতে চাইলেঃ- Sk Shipon

ধন্যবাদ

Leave a Reply