দীর্ঘক্ষন ইয়ারফোন ব্যাবহার করলে কি কি সমস্যা বা ক্ষতি হতে পারে দেখুন।

আসসালামুআলাইকুম। ও হিন্দু ভাইদের আদাব। প্রতিবারের মতো আবারো আপনাদের মাঝে আরেকটি আর্টিক্যাল নিয়ে হাজির হলাম।
টাইটেল দেখে হয়তো বুঝে গেছেন,আজকে কোন বিষয় নিয়ে পোস্ট করতে যাচ্ছি।
আজকের পোস্ট এর বিষয় হলো ইয়ারফোন দীর্ঘক্ষন ব্যাবহার করলে আপনি কি ধরনের ক্ষতির কবলে পড়তে পারেন।
আমরা অনেকে জানি না এই বিষয়টা।অনেকে আছে যারা ইয়ারফোন সব সময় ই ব্যাবহার করেন। কিন্তু ইয়ারফোন ব্যাবহার করলে যে অনেক বড় ধরনের ক্ষতি হয় এটা অনেকে জানে না।
আজকে আপনি ইয়ারফোন ব্যাবহার এর ক্ষতির দিক সম্পর্কে জানলে, আপনি নিজেই দীর্ঘক্ষন ইয়ারফোন ব্যাবহার ছেড়ে দিবেন।
বাসে,গাড়ীতে ও অনেকে ইয়ারফোন ব্যাবহার করে থাকে অনেকে।
কিন্তু এই ইয়ারফোন ব্যাবহার করাতে ক্ষতি নেই।তবে দীর্ঘক্ষন ব্যাবহার করলে অনেক ভয়াবহ ক্ষতির কবলে পড়তে হবে।
সঠিকভাবে কিছু সময় ইয়ারফোন ব্যাবহার করলে ক্ষতি নেই।তবে অনেকে সব সময় ব্যাবহার করে থাকে। তাদের জন্য অনেক বড় সমস্যা অপেক্ষা করছে সামনে।
সব দিকে বিবেচনা করে সবার ইয়ারফোন ব্যাবহার করে উচিৎ। উচ্চ শব্দে গান শোনা যাবে না,এতে কানের সব চেয়ে বেশি ক্ষতি হয়।আমরা ইয়ারফোন এর সঠিক ব্যাবহার জেনে, ব্যাবহার করব।
কান একটা মানুষের বড় ধরনের সম্পদ।উচ্চ শব্দে ও যথাযথ ভাবে ইয়ারফোন ব্যাবহার না করলে কান এ অনেক বড় ধরনের সমস্যা হতে পারে।যা আপনি কল্পনা ও করতে পারবেন না।
তাই সাবধানতা ব্যাবহার করে ইয়ারফোন ব্যাবহার করা উচিৎ।
কথা না বাড়িয়ে এবার শুরু করা যাক, ইয়ারফোন দীর্ঘক্ষন ব্যাবহার করলে আপনি কি ধরনের ভয়াবহ ক্ষতির কবলে পড়তে পারেনঃ

১] মস্তিষ্কের উপর বিরুপ প্রতিক্রিয়াঃ

ইয়ারফোন থেকে বেড়িয়ে আসা এক প্রকার তড়িৎ চৌম্বকীয় সৃস্টি হয়। যেটা আমাদের মস্তিষ্ক এর উপর প্রভাব ফেলে। আমরা যখন অধিকক্ষন ধরে ইয়ারফোন ব্যাবহার করি, তখন আমাদের কান দিয়ে এই তড়িৎ চৌম্বকীয় মস্তিষ্কের উপর অনেক বেশি প্রভাব ফেলে।এতে অনেক বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে মস্তিষ্কে।

২] শ্রবনশক্তির জড়তাঃ

অনেক সময় আপনারা নিজেই লক্ষ্যে করে থাকবেন, যারা উচ্চ শব্দে ইয়ার ফোন দিয়ে গান শোনে, বা উচ্চ শব্দে মিউজিক শোনে,তাদের কানে জড়তা থাকে।

৩] ইনফেকশনের সমস্যাঃ

আমরা অনেকে একজনের ইয়ারফোন ২-৩ জন ব্যাবহার করি।এতে কারো কানে যদি কোনো সমস্যা হয় ইনফেকশন এর।তাহলে এতে আর বাকি সবাই ও আক্রান্ত্র হবে ইনফেকশনে।
এক ইয়ারফোন অনেকজন ব্যাবহার করলেও ইনফেকশন সৃস্টি হয়।

৪] কানে বায়ু চলাচল অসুবিধাঃ

অনেকে ফোন কানে না নিয়ে ইয়ারফোন দিয়া ই কথা বলে থাকে।দীর্ঘক্ষন ইয়ারফোন কানে রাখার কারনে কানের ভিতর বাতাস প্রবেশ করতে পারে না। এতে অনেক বড় ধরনের রোগ বা সমস্যা হতে পারে কানে।
তাই দীর্ঘক্ষন ইয়ারফোন কখনো কানে রাখা উচিৎ না।

৫] শ্রবনশক্তি হ্রাসঃ

এক পরিক্ষায় দেখা গেছে, ইয়ারফোন দিয়ে ৯০ ডেসিবলের উপর শব্দ শুনলে শ্রবনশক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।এবং এভাবে শব্দ ইয়ারফোন দিয়ে শুনলে শ্রবন শক্তি চিরতরে হাড়িয় ও যেতে পারে, অনেক বিশেষজ্ঞ এ মত দিয়েছেন।

পরিশেষে, কম সাউন্ড এর ইয়ারফোন ব্যাবহার করা উচিৎ। এবং দীর্ঘক্ষন না ব্যাবহার করা অনেক ভাল। দীর্ঘক্ষন ইয়ারফোন ব্যাবহার করার পরিনতি তো জানলেন।

টেকনিক্যাল বিষয়ে যাবতীয় ভিডিও ও সমাধান পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুনঃ

Youtube Channel

আজ এ পযন্ত,
ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জ্ঞান আপনাদের মাঝে তুলে ধরার চেস্টা করি।
পরবর্তী ট্রিক এর জন্য অপেক্ষা করুন, আবারো ভাল কিছু নিয়ে হাজির হবো।
সে পযন্ত ভাল থাকুন,সুস্থ থাকুন।

যে কোনো প্রয়োজনে আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করতে চাইলেঃ- Sk Shipon

ধন্যবাদ

Leave a Reply