ভিজুয়াল স্টুডিও কোড এর জনপ্রিয় ৫ টি এক্সটেনশন

ভিজুয়াল স্টুডিও কোড, ডেভেলপার চাহিদার শীর্ষে যার অবস্থান। বিশেষ করে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর চাহিদা যেমন বাড়ছে তেমনি খুব দ্রুত সময়ে জায়গা করে নিয়েছে বহু ডেভেলপার এর হৃদয়ে।

ওপেন সোর্স এবং ক্রস প্লাটফর্ম সাপোর্টেড বিল্ট ইন ডিবাগিং, সিনট্যাক্স হাইলাইট, ইন্টেলিজেন্ট কোড কমপ্লিশন, স্নিপেট, কোড রিফেক্টরিং এবং এম্বডেড গিট নিয়ে ২০১৯ সালের স্ট্যাক ওভারফ্লো সার্ভে অনুযায়ী ৫০.০৭% ডেভেলপার তাদের ডেভেলপমেন্ট এনভাইরোমেন্ট হিসেবে ভিজুয়াল স্টুডিও ব্যবহার এর কথা জানিয়েছেন।

২০১৫ সালের এপ্রিলে তৈরি হওয়া মাইক্রোসফট এর অনেক জনপ্রিয় প্রোডাক্ট এর মধ্যে ভিজুয়াল স্টুডিও কোড অন্যতম। ইলেক্ট্রন ফ্রেমওয়ার্ক এর নির্ভর করে তৈরি হওয়া এই জনপ্রিয় কোড এডিটর এ ২০১৫ এর নভেম্বর মাসে যুক্ত করা এক্সটেনশন সাপোর্ট।

Visual Studio Code | VS Code official
Visual Studio Code | VS Code official

মুলত এর পর থেকেই বাড়তে থাকে ভিজুয়াল স্টুডিও এর জনপ্রিয়তা। সমস্ত কাজকে অরগানাইজ এবং সহজ করে দিতে চলে এসেছে অসংখ্য এক্সটেনশন।

আজকের এই লেখাতে তেমনই কিছু জনপ্রিয় এবং অতি প্রয়োজনীয় এক্সটেনশন নিয়ে কথা বলব। চলুন শুরু করা যাক

 

১। লাইভ সার্ভার

লিস্টের শুরুতেই যে লাইভ সার্ভার এক্সটেনশন এর নাম থাকবে সেতো সবারই জানা। ভিএসকোড ইন্সটল শেষ হলেই প্রথমে আমি যেটা ইন্সটল করি সেটা হচ্ছে লাইভ সার্ভার

আমরা যখন কোন স্ট্যাটিক সাইট অর্থাৎ HTML, CSS, JS দিয়ে স্ট্যাটাক্লি বা অনেক সময় ডায়নামিক সাইট ডেভেলপ করি তখন কোড আপডেট করে প্রিভিউ এর জন্য প্রতিবার রিফ্রেশ দেয়া লাগে। সেটা একদিকে ফোকাস নষ্ট করে এবং সময় ও খরচ হয় অনেক।

এই যন্ত্রণা থেকেই বাঁচতে লাইভ সার্ভার এত জনপ্রিয়। ইন্সটল করে অন করে নিলেই লোকাল হোস্ট এ আপনার প্রোজেক্ট এর প্রিভিউ দেখাবে। নেই কোন রিফ্রেশ কিংবা কোড এর ফোকাস পাল্টানোর ঝামেলা।

 

এক্সটেনশনটির জন্য ক্লিক করুন এই লিংকে https://marketplace.visualstudio.com/items?itemName=ritwickdey.LiveServer

 

২। প্যাথ ইন্টেলিসেন্স

 

ওয়েব প্রোগ্রামিং এ সবথেকে বেশি যে ভুল বিগিনার থেকে এক্সপার্ট সবার হয় সেটা হচ্ছে প্যাথ ভুল হওয়া কিংবা ফাইল এক্সটেনশন ভুল হওয়া। আবার ফাইলের প্যাথ মনে রেখে সেটা টার্গেট করাও এক প্রকার ঝামেলা।

এরকম হাজারটা সমস্যার সমাধানের জন্য আছে প্যাথ ইন্টেলিসেন্স। আপনি যখন ই কোন ফাইল প্যাথ লিখতে যাবেন তখন ই এক্সটেনশন টি আপনাকে অটো কমপ্লিশন এর মতো সাহায্য করবে। আপনি লিখতে গিয়ে পুরো না লিখে কীবোর্ড দিয়ে ড্রাইভ করেও সেই প্যাথ সিলেক্ট করতে পারবেন।

 

এক্সটেনশনটির জন্য ক্লিক করুন এই লিংকে https://marketplace.visualstudio.com/items?itemName=christian-kohler.path-intellisense

 

৩। ব্রাউজার প্রিভিউ

 

আমরা সাধারণত কোন ওয়েব ফাইল প্রিভিউ করি আলাদা ব্রাউজারে। কিন্তু সেম কাজটাই করা সম্ভব ছোট্ট একটা এক্সটেনশন ব্রাউজার প্রিভিউ দিয়ে।

বিশেষ করে ডিবাগিং করার সময় এটা খুব হেল্পফুল হয়ে ওঠে। বারবার উইন্ডো চেঞ্জ না করেই আপনি লাইভ প্রিভিউ দেখতে পাবেন এবং আলাদা করে রিফ্রেশ ও দরকার হয়না। তাছাড়া অনেক সময় ছোট একটা ফাইল এর জন্য ব্রাউজার ওপেন করে কাজ করাটাও ঝামেলার তাই সহজেই আপনি ব্রাউজার প্রিভিউ দিয়ে প্রিভিউ সমস্যার সমাধান করতে পারবেন।

 

এক্সটেনশনটির জন্য ক্লিক করুন এই লিংকে https://marketplace.visualstudio.com/items?itemName=auchenberg.vscode-browser-preview

 

৪। সেটিং সিংক

 

যেহেতু ভিজুয়াল স্টুডিও কোড ক্রস প্লাটফর্ম তাই আপনি সহজেই এটি লিনাক্স, উইন্ডোজ বা ম্যাক ওএস প্লাটফর্ম এ ব্যবহার করতে পারবেন। কিন্তু আমরা সাধারণত সুবিধা মত কোড এডিটর সেটিং করে নিতে পছন্দ করি।

তবে বিপত্তি দেখা দেয় যখন অফিসে একবার আবার বাড়িতে একবার এসে একই কোড এডিটর এর সেটিং করতে হয়। এটা যেমন বিরক্তিকর তেমনি সময় নষ্ট। তাই একবার সেটিং করে সব জায়গায় সিংক করে ব্যবহার করার জন্য আছে অসাধারণ সেটিং সিংক

 

এক্সটেনশনটির জন্য ক্লিক করুন এই লিংকে https://marketplace.visualstudio.com/items?itemName=Shan.code-settings-sync

 

৫। ব্র্যাকেট পেয়ার কালারাইজ

 

উফ! শুধু ব্র্যাকেট এর ভুলের জন্য যে কত কত সময় নষ্ট করেছি। আপনি যদি একজন ওয়েব ডেভেলপার হয়ে থাকেন তাহলে নিশ্চয় এমন সমস্যায় পড়েছেন। ঠিক এই সমস্যার সমাধান করতে এসেছে ব্র্যাকেট পেয়ার কালারাইজ। একটা লাইনে একের পরে একে ব্র্যাকেট থাকলেও বিভিন্ন কালার এর জোড়া হওয়ায় সেগুলো চিনতে খুব সহজ হবে। এবং আপনার কাজ যেমন হবে দ্রুত তেমনি সহজ।

 

এক্সটেনশনটির জন্য ক্লিক করুন এই লিংকে https://marketplace.visualstudio.com/items?itemName=CoenraadS.bracket-pair-colorizer

পরিশেষে

এমন নয় যে উপরোক্ত এক্সটেনশন গুলোর বিকল্প নেই তবে উপরের গুলো জনপ্রিয় এবং ব্যক্তিগত রেকমেন্ডেশন। আপনি চাইলে অন্যগুলো ব্যবহার করতে পারেন। এবং এছাড়াও আরো অনেক এক্সটেনশন আছে ভিএস কোড এর জন্য। ইনশাল্লাহ আরেকদিন অন্য কোন লেখায় সেগুলো নিয়ে আলোচনা করা যাবে।

 

সেই অবধি সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন। যেকোন মতামত জানান কমেন্ট বক্সে। ধন্যবাদ

Leave a Reply