অগ্রণী ব্যাংক লোন সম্পর্কে খুঁটিনাটি তথ্য জেনে নিন

অগ্রণী ব্যাংক এর অধীনে যে সমস্ত লোন সুবিধা আপনি উপভোগ করতে পারবেন বা অগ্রণী ব্যাংক লোন সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জেনে নিতে চাইলে এই আর্টিকেলটি দেখুন।

এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে অগ্রণী ব্যাংক রিলেটেড যে সমস্ত সুযোগ সুবিধা রয়েছে সমস্ত সুযোগ সুবিধা ডিটেইলস জেনে নিতে পারবেন।

অগ্রণী ব্যাংক থেকে বিভিন্ন খাতের জন্য আপনি লোন নিতে পারবেন এবং এ সমস্ত সুবিধা গুলো অন্যান্য ব্যাংকের চেয়ে রীতিমতো অনেক সহজ এবং ভালো বললেও ভুল হবে না।

অগ্রণী ব্যাংক লোন খাত কতগুলো?

অগ্রণী ব্যাংক থেকে আপনি বিভিন্ন খাতের জন্য লোন নিতে পারবেন এবং এই সমস্ত লোনের হিসাব সমীকরণ অন্যান্য ব্যাংকের চেয়ে সম্পূর্ণ আলাদা।

যে সমস্ত খাতের জন্য আপনি অগ্রণী ব্যাংক থেকে লোন নিতে পারবেন সেগুলোর লিস্ট নিচে তুলে ধরা হলোঃ

পার্সোনাল লোন।
যেকোনো কাজের জন্য লোন।
মুক্তিযোদ্ধা সংক্রান্ত লোন।
অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তাদের লোন।
বিদেশি কর্মীর জন্য লোন।
স্বল্পমেয়াদী লোন।
গ্রিন ফিনান্স লোন।

অগ্রণী ব্যাংকের একজন গ্রাহক হিসেবে উপরে উল্লেখিত লোন ব্যবস্থা গুলোর মধ্য থেকে যে কোন একটি লোন সুযোগ-সুবিধা আপনি নিতে পারবেন।

তবে এই সমস্ত লোন সুযোগ-সুবিধা উপভোগের জন্য যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট এর প্রয়োজন হবে সেগুলো সম্পর্কে জানা অবশ্যই প্রয়োজন; অন্যতায় ব্যাংক থেকে লোন সেবা নেয়া সম্ভব হবে না।

লোন নেয়ার জন্য কিরকম রিকোয়ারমেন্ট প্রয়োজন? এই বিষয়ে সমস্ত তথ্য নিচে আলোচনা করা হলো।

অগ্রণী ব্যাংক পার্সোনাল লোন

অগ্রণী ব্যাংক পার্সোনাল লোন নেয়ার জন্য যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট প্রয়োজন সেগুলো সম্পর্কে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলোঃ

যেকোনো বেতনভোগী ব্যক্তি এই লোন নিতে পারবেন।
এই লোন নেয়ার সর্বোচ্চ লিমিট হল 10 লাখ টাকা পর্যন্ত।
বয়সসীমা অবশ্যই 18 থেকে 55 বছরের মধ্যে হতে হবে।
ইন্টারেস্ট রেট 9 শতাংশ।
5 বছরের মধ্যে ঋণ পরিশোধ যোগ্য এবং প্রতিমাসে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা পরিশোধ করতে হবে।
কোন রকমের সিকিউরিটি ফী প্রয়োজন নেই।

অগ্রণী ব্যাংক পার্সোনাল লোন নেয়ার জন্য যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট এবং যোগ্যতার প্রয়োজন সেগুলো সম্পর্কে উপর আলোচনা করা হলো। এবার আপনি প্রয়োজন বোধ করলে পার্সোনাল লোন নিতে পারেন।

যেকোনো কাজের জন্য লোন

যেকোনো কাজ সম্পাদনের জন্য আপনি যদি অগ্রণী ব্যাংক থেকে লোন সেবা উপভোগ করতে চান, তাহলে যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট প্রয়োজন সেগুলো দেখে নিন।

এই নতুন সেবা ওই ব্যক্তি নিতে পারবে যে যেকোনো একটি কাজের পাঁচ বছর একটিভিটি ছিল এবং পাঁচ বছর পূর্বে সে ঐ কাজটি ছেড়ে দিয়েছে।
সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকা লোন নিতে পারবে।
ইন্টারেস্ট রেট 9 শতাংশ হলেও এটা পরিবর্তনযোগ্য।
সর্বোচ্চ 5 বছরে ঋণ পরিশোধ যোগ্য এবং প্রতি মাসেই নির্দিষ্ট ফি পরিশোধ করতে হবে।
যে ব্যক্তি এই লোন নিবেন তার কাছ থেকে প্রয়োজনীয় ইনফরমেশনগুলো গ্যারান্টি।

মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য লোন

অগ্রণী ব্যাংক মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য লোন সেবা চালু করে রেখেছে; একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে এই লোন সেবা পাওয়ার যোগ্য উত্তরাধিকারি আপনি।

তবে অগ্রণী ব্যাংক মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য যে লোন রেখেছে সেই লোন সেবা উপভোগ করার জন্য যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্টস প্রয়োজন সেগুলো সম্পর্কে জেনে নেয়া প্রয়োজন।

এই লোন সেবা ঐ ব্যক্তি নিতে পারবে যে সরকার কর্তৃক রেজিস্টার কৃত মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে থেকে একজন।
লোন সেবাগ্রহণকারী ব্যক্তির স্ত্রী, ছেলে কিংবা মেয়ে কোন না কোন ছোটখাটো চাকরির সাথে সম্পৃক্ত থাকতে হবে।
সর্বোচ্চ 5 লাখ টাকা লোন নেয়া সম্ভব।
পাঁচ বছরে লোন পরিশোধ যোগ্য।
এছাড়া ওই পাঁচ বছরের জন্য পরিশোধকৃত নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা প্রতি মাসে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য প্রদানকৃত মুক্তিযোদ্ধা ভাতা থেকে সংগ্রহ করা হবে।

অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য

আপনি যদি অবসরপ্রাপ্ত সরকারী চাকুরীজীবি হয়ে থাকেন, তাহলে অগ্রণী ব্যাংক থেকে অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবী লোন নিতে পারবেন।

অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য যে লোন বরাদ্দ রয়েছে এই সেবা উপভোগের জন্য প্রয়োজনীয় রিকোয়ারমেন্ট নিচে উল্লেখ করা হলোঃ

যেকোনো অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবীর জন্য এই লোন প্রযোজ্য।
বয়সসীমা সর্বোচ্চ 65 বছর।
পাঁচ বছরে লোন পরিশোধ যোগ্য।
সর্বোচ্চ 5 লক্ষ টাকা লোন নেয়া সম্ভব।
এবং আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশনের যে গ্যারান্টি রয়েছে, সেটি নিশ্চিত করতে হবে।
এছাড়াও লোন পরিশোধের জন্য প্রতি মাসে যে ফি দিতে হবে সেটি আপনার অবসরপ্রাপ্ত হওয়ার ফলে যে লাভ হয়েছে তা থেকে চার্জ করা হতে পারে।

প্রবাসীদের জন্য লোন

একজন প্রবাসী হিসেবে আপনি প্রবাস চাকরিজীবীদের জন্য অগ্রণী ব্যাংকে থাকা লোন সেবা উপভোগ করতে পারবেন।

এই লোন সেবা ওই ব্যক্তি নিতে পারবে যার একটি ভ্যালিড ভিসা রয়েছে।
যার একটি কমপ্লিট পাসপোর্ট, স্বাস্থ্য সার্টিফিকেট এবং বিদেশ পরিবহনের এয়ারলাইনস টিকেট রয়েছে।
18 বছর থেকে 45 বছরের মধ্যে হতে হবে।
50 হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকা অব্দি লোন নেয়া সম্ভব।
ইন্টারেস্ট রেট 9 শতাংশ এবং এটি পরিবর্তনযোগ্য।
15 থেকে 18 মাসের মধ্যে ঋণ পরিশোধ যোগ্য।
যে ব্যক্তি লোন নিতে চায় ওই ব্যক্তির রিলেটিভ কোন একজন মানুষের পার্সোনাল গ্যারান্টি দিতে হবে।

স্বল্পমেয়াদী লোন

অগ্রণী ব্যাংক থেকে স্বল্প মেয়াদী লোন নেওয়ার জন্য যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট এবং ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে সেগুলো সম্পর্কে নিচে ডিটেইলে আলোচনা করা হলো।

ছোটখাটো ব্যবসার জন্য এই লোন প্রযোজ্য।
যে ব্যক্তি লোন নিতে চায় তার তিন বছরের ব্যবসায়ীক এক্সপেরিয়েন্স এর প্রয়োজন হবে।
বয়সসীমা 18 বছর হতে সর্বোচ্চ 60 বছরের মধ্যে হতে হবে।
সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকা অব্দি লোন নেয়া সম্ভব।
ইন্টারেস্ট রেট সর্বোচ্চ 9 শতাংশ এবং পরিবর্তনযোগ্য।
যে ব্যক্তি এই লোন নেবে তার রিলেটিভ যেকারো পার্সোনাল গ্যারান্টি প্রয়োজন হবে।
সর্বোচ্চ দুই বছরে লোন পরিশোধ করতে হবে।

গ্রিন ব্যাংকিং ফিনান্স

গ্রিনব্যাংকিং ফিন্যান্স এর জন্য আপনি যদি লোন নিতে চান তাহলে অগ্রণী ব্যাংক আপনাকে লোন দেওয়ার অগ্রাধিকার দেবে।

এই লোন সেবা ঐ সমস্ত ব্যাক্তির জন্য প্রযোজ্য হবে, যারা এই লোন সেবা নেওয়ার পরে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা বিভিন্ন প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ক্রয় করতে ব্যয় করবে।
লোন নেয়ার পরে এই টাকাগুলো দিয়ে সৌর প্যানেল, বায়োগ্যাস, বজ্র পরিশোধন প্লান্ট ইত্যাদি কাজে ব্যবহার করা যাবে।
প্রয়োজন সাপেক্ষে লোন নেয়া সম্ভব।
এবং এই লোন মাসিক বাৎসরিক কিংবা হাফ ইয়ারলি ভাবে পরিশোধযোগ্য।
লোন নেয়ার জন্য ইন্টারেস্ট রেট 9 শতাংশ এবং এটি অবশ্যই পরিবর্তনযোগ্য।

অগ্রণী ব্যাংক থেকে লোন নেওয়ার জন্য যে সমস্ত খাত রয়েছে, সেগুলো সম্পর্কে উপরে আলোচনা করা হল। আশা করি লোন সংক্রান্ত আর কোন সমস্যার মধ্যে পড়তে হবে না।

এছাড়াও লোন সংক্রান্ত অন্য কোন প্রশ্ন যদি আপনার থেকে থাকে তাহলে অগ্রণী ব্যাংকের হেল্পলাইন নাম্বার রয়েছে, সেই হেল্পলাইন নাম্বারে কল করার মাধ্যমে সমাধান নিতে পারবেন।

Leave a Reply