দারুচিনির ঔষুধি গুন ও উপকারিতা গুলো জেনে নিন

আসসালামুআলাইকুম, ও হিন্দু ভাইদের আদাব। আশা করি সবাই অনেক ভাল আছেন।প্রতিবারের মতো আবারো আপনাদের মাঝে আরেকটি আর্টিক্যাল নিয়ে হাজির হলাম।টাইটেল দেখে অনেকে হয়তো বুঝে গেছেন, আজকে কোন বিষয় আপনাদের মাঝে লিখতে যাচ্ছি। আজকের বিষয় হলো দারুচিনির ঔষুধি গুন ও উপকারিতা। আমরা খাবার সময় দারুচিনি দেখে ফেলে দেই। এবং অনেক সময় দারুচিনি খাবারে থাকলে আমরা বিরক্ত বোধ করি। কিন্তু আমরা জানি না যে এই দারুচিনিতে অনেক উপকারিতা ও ঔষুধি গুন রয়েছে। যা আমরা কল্পনা ও করতে পারি না।আজকের পোস্ট টা ভালভাবে পড়লে আপনি দারুচিনির ঔষুধি গুন গুলো জানতে পারবেন।অনেকে দারুচিনির এই ঔষুধি গুন গুলো জানে না।
দারুচিনির অনেক মুল্য রয়েছে। অনেক রোগের
ঔষুধি তৈরী করতে ও এই দারুচিনি দরকার হয়। কিন্তু এই দারুচিনি আমরা এতদিন অবহেলা করে আসছিলাম। আজ থেকে দারুচিনির উপকারিতা সম্পর্কে জানলে অবহেলা করবেন না এই দারুচিনিকে। আমরা ভাবি যে আসলে দারুচিনি শুধু মশলা হিসাবেই ব্যাবহার করা হয়। আসলে এটা না দারুচিনিতে অনেক উপকারি উপাদান রয়েছে,যা আমরা আজকে জানতে পারব। কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক,দারুচিনির ঔষুধি গুন ও উপকারিতা গুলোঃ

১) আর্থারাইটিসের সমস্যায় যারা ভুগছেন,তাদের জন্য এই দারুচিনি অনেক অনেক উপকারী। এক কাপ গরম পানির মধ্য ২ চামচ মধু এবং দারুচিনির গুড়ো মিশিয়ে সকাল সন্ধ্যা খেতে পারেন। আপনি ভাল উপকার পাবেন। সুত্রঃ ডাঃ জোকারস।

২) নিয়মিত এই দারুচিনি খেলে স্মৃতিশক্তি অনেকগুনে বৃদ্ধি পায়।

৩) ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে দারুচিনি খুব উপকারী। দারুচিনি,দুর্বাঘাস,হলুদ সমপরিমান মিশিয়ে পেস্ট তৈরী করে ত্বকে লাগান।তৈলাক্ত ত্বক,ব্রন দূর হবে,পাশা পাশি ত্বকের উজ্জ্বলতা ও অনেক গুন বেড়ে যাবে।

৪) খুসখুসে কাশি,ঠান্ডা, গলা ব্যাথা মধু,চায়ের সাথে দারুচিনি মিশিয়ে খেলে অনেক ভাল উপকার পাওয়া যায়।

৫) বাতের ব্যাথা ও শরীরের হাড়ের ব্যাথা উপশমের জন্য দারুচিনি খুব উপকারী। আধা চামচ দারুচিনির গুড়া,এক চামচ মধুর সাথে মিশিয়ে খেলে ব্যাথা দূর হয়ে যায়।দারুচিনির গুড়া মিশ্রিত সরিষার তেল শরীরের মালিশ করলে ব্যাথা দূর হয়ে যায়।

৬) যাদের জয়েন্ট এর সমস্যা তাদের জন্য দারুচিনি খুব ই উপকারী । হালকা গরম পানির মধ্য এক চামচ মধু এবং দারুচিনির গুড়া মিশিয়ে এবং ব্যাথার স্থানে ভালভাবে মালিশ করুন। এভাবে ২-৪ দিন মালিশ করলে দেখবেন ব্যাথা কমে গেছে।

৭) দারুচিনি পেটের সমস্যা দূর করতে অনেক কার্যকারী।এটি পেটের ব্যাথা দূর করে।পেট পরিস্কার করতে সাহায্য করে।রাতে শোয়ার আগে দারুচিনির সাথে হরীতকীয় এর গুড়া মিশিয়ে খেলে ভাল উপকার পাওয়া যায়।

৮) দারুচিনি রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল এর মাত্রা কমায়। ও রক্তের সর্কার মাত্রা নিয়ন্ত্রন করে।এবং টাইপ -২ ডায়াবেটিস এর রোগীদের জন্য খুব উপকারী। প্রতিদিন মাত্র আধা চা চামচ দারুচিনির গুড়া খাবেন।অনেক উপকার পাবেন।

৯) ঈস্ট, ছত্রাক,ঘটিত ইনফেকশন দূর করতে দারুচিনির ভুমিকা অপরসীম।এছাড়া দারুচিনি রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে।

১০) দারুচিনি মরন ব্যাধি লিম্ফোসাইটিক লিউকোমিয়ার বিস্তার রোধ করে।রক্ত জমাট যাতে না বাধে এদিকে ও অনেক উপকারী।

টেকনিক্যাল বিষয়ে যাবতীয় ভিডিও ও সমাধান পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুনঃ

Youtube Channel

আজ এ পযন্ত,
ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জ্ঞান আপনাদের মাঝে তুলে ধরার চেস্টা করি।
পরবর্তী ট্রিক এর জন্য অপেক্ষা করুন, আবারো ভাল কিছু নিয়ে হাজির হবো।
সে পযন্ত ভাল থাকুন,সুস্থ থাকুন।

যে কোনো প্রয়োজনে আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করতে চাইলেঃ- Sk Shipon

ধন্যবাদ

Leave a Reply