বিকাশ, রকেট, নগদে ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত সেন্ড মানি ফ্রি এবং মাসিক লিমিট ২ লক্ষ টাকা।

করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়ায় মানুষের লেনদেনকে আরো সহজ করার জন্য মোবাইল ব্যাংকিংয়ে একটা নতুন প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ সরকার। এই প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ মোবাইল ব্যাংক সার্ভিসগুলো পারসন এ পারসন বা সেন্ড মানি তে প্রতি মাসে 80 হাজার টাকার নিচে লেনদেন হলে কোন প্রকার চার্জ নিতে পারবে না তবে প্রতিমাসে সেন্ডমানি পরিমান ৪০ হাজারের উপরে হলে,, চার্জ নিবে কি নিবে না তা নির্ভর করবে ওই মোবাইল ব্যাংকিং এর উপর ।এছাড়াও প্রতিমাসে লেনদেনের পরিমাণ ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত করা হয়েছে যা আগে ছিল ৭৫ হাজার টাকা পর্যন্ত।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ব্যক্তি হতে ব্যক্তি (পি-টু-পি) প্রতি মাসে ২ লাখ টাকা লেনদেন করা যাবে, আগে যা ছিল ৭৫ হাজার টাকা। এর মধ্যে পি-টু-পিতে প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত লেনদেনে কোনো মাশুল আদায় করা যাবে না। তবে প্রতিবার লেনদেনে সর্বোচ্চ সীমা হবে ১০ হাজার টাকা।

পাশাপাশি ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধের তারিখ সরকার চলাচলে ঘোষিত বিধিনিষেধ আরোপকালীন সময়সীমার মধ্যে হলে বিল পরিশোধের তারিখ নিষেধাজ্ঞা স্থগিত হওয়ার পর পাঁচ কর্মদিবস পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। বিল পরিশোধের সময়সীমা পর্যন্ত বিলম্বে পরিশোধের জন্য কোনো অতিরিক্ত মাশুল ও সুদ আরোপ করা যাবে। এ ক্ষেত্রে পরবর্তী মাসের বিলে, পূর্ববর্তী মাসের বিলের সুদের ওপর কোনো প্রকার নতুন সুদ আরোপ করা যাবে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

আপনারা অনেকে প্রশ্ন করতে পারেন এই তথ্য কোথায় পেলেন? তাই আমি সোর্স লিঙ্কটা নিচে দিয়ে দিলাম।

আরো বিস্তারিত প্রথম আলোর ওয়েব সাইটে

Leave a Reply