Kingdom Of Heaven – জেরুজালেম কে নিয়ে মুসলিম-খ্রিস্টানদের অসাধারণ মুভি।


Movie name: Kingdom of Heaven(2005)

iMDb Rating: 7.2/10

Personal Rating: 9.3/10

Director: Ridley Scott

সতর্কবাণী: মুভির মাঝখানে কিছুটা 18+ সিন রয়েছে।

Kingdom of heaven বলতে এখানে কি বুঝানো হয়েছে তা আমি সঠিক বলতে পারছি না! কিন্তু আমার মতে ‘জেরুজালেম’কে kingdom of heaven বলা হয়েছে! কারণ এই পুরো মুভিটা জেরুজালেমকে কেন্দ্র করেই! জেরুজালেম খ্রীস্টান, ইহুদি, মুসলমান উভয়ের জন্যই একটি পবিত্র স্থান! ছবিটির কাহিনী সম্পর্কে আমি আপনাদের কিছু ধারণা দিব!

মুভিটি ১২শ শতাব্দী এর ঘটনা নিয়ে! তখন জেরুজালেমে খ্রীস্টান, ইহুদি ও মুসলিমরা এক সাথে থাকতো! বেশিরভাগ ছিলো মুসলিম, তারপর খ্রীস্টান আর অল্প কিছু ইহুদি! সে সময় পুরো জেরুজালেম ছিলো মুসলমানদের দখলে! আর জেরুজালেমের কিছু অংশ ছিল খ্রীস্টানদের দখলে! ১০০০ খ্রিস্টাব্দে সর্বপ্রথম জেরুজালেম খ্রীস্টান ক্রুসেড ( যারা ক্রুস ছুয়ে শপথ নিয়েছিলো যে মুসলমানদের ইউরোপ থেকে মিটাবে) দের দখলে যায়! তারপর ‘আইয়ুবিদ’ সাম্রাজ্যের সুলতান ‘সালাহ্উদ্দিন আইয়ুবি’ জেরুজালেম ফিরিয়ে নেয়! কারণ সে সময় মুসলমানরা ছিলো জ্ঞানী, গুণী, কৌশলী, যুদ্ধক্ষেত্রে বা যেকোনো বিষয়ে পারদর্শী!!!

এই মুভিতে দেখানো হয়েছে ক্রুসেডার নাইটরা মুসলমানদের বিরুদ্ধে উঠে পড়ে অধৈর্যভাবে বিরোধ করা শুরু করে! তারপর খ্রীস্টান ক্রুসেড নাইটরা এবং তাদের রাজা ‘কিং ব্যাল্ডউইন’ তাদের প্রায় ১০,০০০ হাজার সৈন্য যাদের মধ্যে প্রায় ৫০০ জন এলিট নাইট যোদ্ধা ছিল… তাদের নিয়ে যুদ্ধ ঘোষণা করলে সুলতান সালাহ্উদ্দীন আইয়ুবি তার আনুমানিক ২৬০০০-৩০০০০ সৈন্য দিয়ে ভালোভাবেই জবাব দেন! এবং তারপর তিনি খ্রীস্টানদের জেরুজালেম থেকে বিতাড়িত করেন! এসময় তিনি একজন খ্রীস্টানকেও হত্যা করেননি! তাই ইতিহাসে এ ঘটনাটি বিড়ল! এরপর খ্রীস্টান ক্রুসেডাররা আরও ৩ বার হামলা চালায়! তারপরও জেরুজালেম জয় করতে পারে নি! মুভিটার চোখ ধাধানো Cinematography তে মুগ্ধ হয়েছি!!!!

এটা হলো হলিউড! ইতিহাস বিকৃতি যথেষ্ট কম! একে বড় করে দেখানো, একে ছোটো ও খারাপ দেখানো! এইগুলি এখানে দেখানো হয় নাই! 😍😍😍

আশা করি সবার ভালো লাগবে!😀😀😀

Download Link: Click Here

Credit -> Amartips.Mobi.

Leave a Reply