গোলমরিচ এর কিছু উপকারী গুন দেখে নিন,কাজে লাগতে পারে।

আসসালামুআলাইকুম।আশা করি সবাই অনেক ভাল আছেন।প্রতিবারের মতো আবারো আপনাদের মাঝে আরেকটি আর্টিক্যাল নিয়ে হাজির হলাম।টাইটেল দেখে অনেকে হয়তো বুঝে গেছেন, আজকে কোন বিষয় আপনাদের মাঝে লিখতে যাচ্ছি। আজকের বিষয় হলো,গোল মরিচ এর কিছু উপকারী গুন।গোল মরিচ আমরা রান্নার কাজে সাধারণত ব্যাবহার করে থাকি।খাবারের স্বাদ বাড়াতে গোল মরিচ এর ভুমিকা অপরসীম। তরকারী রান্নার পর সেই তরকারীর উপর গোল মরিচ ওর গুড়া ছিটিয়ে দিলে অনেক সুস্বাদু হয় তরকারী। গোল মরিচ রান্নার কাজে ব্যাবহার করা ছাড়াও অনেক গুন রয়েছে। আজকের পোস্ট টি আপনি ফলো করলে, গোল মরিচ এর গুন গুলো জানতে পারবেন। গোল মরিচ এ অনেক পুস্টিউপাদান ও রয়েছে৷ এছাড়া গোল মরিচ খেলে হার্ট ভাল থাকে। গোল মরিচ শরীর এর জন্য খুব উপকারী। কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক, গোল মরিচ এর উপকারি গুন গুলোঃ

১) মেদ কমাতে গোল মরিচ অত্যান্ত ভুমিকা পালন করে। গোল মরিচ দিয়ে বিভিন্ন ধরনের খাবার বানিয়ে খেলে মেদ কমে যায়। শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমাতে গোল মরিচ অত্যান্ত চমৎকার ফলদায়ক।

২) গোলমরিচ দ্রুত হজমে সাহায্য করে। যাদের হজম প্রক্রিয়ায় সমস্যা তারা গোল মরিচ খেতে পারেন।গোল মরিচ খেলে পেটে হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড এর মাত্রা বাড়িয়ে তোলে। এবং যাদের পেটে গ্যাস এর সমস্যা আছে,তারা ও গোল মরিচ খেতে পারেন,ভাল উপকার পাবেন।

৩) যাদের দাতের ব্যাথা আছে,তাদের জন্য গোলমরিচ অত্যান্ত উপকারী।গোলমরিচ পানিতে ভিজিয়ে রেখে,সে পানি দিয়ে কুলি করলে মুখের ব্যাকটেরিয়া চলে যায়।

৪)যাদের ত্বকে সমস্যা আছে তাদের জন্য ও গোলমরিচ অত্যান্ত উপকারী। গোল মরিচ গুড়ো করে, ত্বকে লাগাতে পারেন। এতে করে ত্বকের মৃত কোষ গুলো দূর হবে। এর পাশাপাশি ত্বকের অ্যাকনে দূর করতে ও প্রচুর সাহায্য করে এই গোল মরিচ।

৫) গোল মরিচ শরীর এর ঘাম হতে সাহায্য করে৷ শরীর এর ঘাম হলে,শরীর এর ভিতর থাকা টক্সিন জাতীয় বিশাক্ত পদার্থ বের হয়ে যাবে। এবং শরীর অনেক ভাল থাকবে। লাল মরিচ খেলে শরীর গরম হয়ে যায়।

৬) হাপানী,নাক বন্ধ হয়ে যায়,এমন সমস্যা থাকলে লাল মরিচ খেলে সমাধান হয়ে যায়। এ ক্ষেত্রে লাল মরিচ খাওয়ার নিয়মঃ এক কাপ পানি গরম করে নিবেন,এবং গোলমরিচ ১ টেবিল চামচ, ও ২ টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে খেলে এ রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

টেকনিক্যাল বিষয়ে যাবতীয় ভিডিও ও সমাধান পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুনঃ

Youtube Channel

আজ এ পযন্ত,
ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জ্ঞান আপনাদের মাঝে তুলে ধরার চেস্টা করি।
পরবর্তী আর্টিক্যাল এর জন্য অপেক্ষা করুন, আবারো ভাল কিছু নিয়ে হাজির হবো।
সে পযন্ত ভাল থাকুন,সুস্থ থাকুন।

যে কোনো প্রয়োজনে আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করতে চাইলেঃ- Sk Shipon

ধন্যবাদ

Leave a Reply