চমৎকার কিছু Computer Browser দেখে নিন রিভিউ

চমৎকার কিছু Computer Browser দেখে নিন রিভিউ: দোস্ত ব্রাউজার কোনটা ডাউনলোড করবো কাউকে জিজ্ঞাসা করলে। বেশীরভাগ উত্তর মিলবে Chrome কিংবা Firefox. কিন্তু আসলেও কি এ ছাড়া আর ব্রাউজার পৃথিবীতে নাই।

Computer Browser পিসিতে সাধারনত দুই তিনটি Browser ব্যবহার করতে দেখা যায়। যেমন Chrome, Firefox, Internet Explorer.

আর যদি Android এর কথা বলি তবে অনেক ব্রাউজারের নাম উল্লেখ করতে হবে। তবে বেশী ব্যবহার করতে দেখা যায় Chrome, UC Browser.

আমরা এসব Browser ব্যবহার করে আসছি কারন আমরা অন্যদের ব্যবহার করতে দেখছি বলে। আমাদের মধ্যে ট্রেন্ড হচ্ছে সবাই যা করে তাই করতে চাই। ভিন্ন কোন আইডিয়া ব্যবহার করতে সময় পাইনা। আর এসব কারনে আমরা অনেক কিছু সম্পর্কে জানার চেষ্টা করিনা। 

Computer Browser আর তাই আজকে এমন কিছু Web Browser নিয়ে আলোচনা করবো যা আছে বলেও আপনি হয়তো জানতেন না।

1. Oper Neon

বর্তমান সময়ে যদিও খুব কম লোক Opera ব্যবহার করে। তারপরেও কিন্তু এক সময় সবার মুখে মুখে ছিলো এই Opera. আর এখন বলতে গেলে অপেরাকে সবাই ভুলতে বসেছে। Opera Company সিদ্ধান্ত নিলো তাদের বাজার ধরে রাখতে হলে আরো ভালো কিছু করতে হবে।আর তাই ২০১৭ সালের শুরুর দিকে এই Opera Neon Browser টি বাজারে প্রকাশ করে।

এই Opera Neon এর জন্য ব্যবহার করা হয়েছে Blink Rendering Engine. আর যুক্ত করা হয়েছে চমৎকার কিছু ফিচার। যা মানুষকে আকর্ষন করবে। তাহলে চলুন তাদের ফিচার সম্পর্কে আরো জানা যাক।

এমন কিছু Visual Effect ব্যবহার করা হয়েছে যা আপনার চোখকে দিবে পরিপূর্ণ তৃপ্তি। এর ডিজাইনটা অনেক সুন্দর যখন আপনি Neon ব্যবহার করবেন তখন পাবেন একটু আলাদা লুক।

 ধরুন যে কোন ওয়েবসাইটের বিশেষ কোন Menu একটু বেশী ব্যবহার করেন। Visual Tab এবং Gravity Menu ফিচার টি আপনার Menu কে একটি Shortcut তৈরী করে দিবে যাতে কম সময়ে তা ব্যবহার করতে পারেন। আর অবশ্যই তা Floating Menu হবে।

ধরুন আপনার একই সাথে দুইটি ট্যাব ব্যবহার করা দরকার তখন কি করেন আপনি। এর একটি ফিচার আপনাকে দুইটি Tab একই সাথে দেখাবে কোন প্রকার Back Click করে সময় নষ্ট করা ছাড়া।

আপনি চাইলে সরাসরি Screen Short তুলতে পারবেন Browser থাকা ফিচার ব্যবহার করে। আর সব Screen Short গিয়ে Save হবে Gallery তে।

আর এর অন্যতম একটি Feature হলো Video Pop-Out. ধরুন আপনি কোন ভিডিও দেখছেন সাথে আপনার অন্য কাজ করা দরকার। চিন্তা নেই আপনি চাইলে Pop-Out ফিচার ব্যবহার করে কাজ এবং Video দুটোই দেখতে পারবেন।

Download Link

2. Browser Vivaldi

একটি Chromium প্রযুক্তি নির্ভর ব্যবহার করা Browser. আপনি Chrome এর মত ব্যবহার করতে পারবেন এছাড়াও কিছু বাড়তি ফিচার রয়েছে। উল্লেখযোগ্য পয়েন্ট হলো আপনি Browser টিকে নিজের মত করে Customize করতে পারবেন। 

Develop করেছে Vivaldi Technologies. এবং Opera Software প্রকাশনায় ছিলো Founder হিসাবে। Vivaldi Browser প্রথম প্রকাশ করা হয় এপ্রিল ১২, ২০১৬ইং সালে। আর এই Browser টিতে ব্যবহার করা হয়েছে Presto Engine. যা কিনা Opera 2013 সাল পর্যন্ত ব্যবহার করেছিলো।

আপনার মনে হয়তো প্রশ্ন জাগতে পারে ২০১৩ সালের পর বন্ধ করে দিলো কেন ?

Opera Company এর Co-Founder এবং CEO যার নাম Jon Stephenson von. তিনি Opera কে বিদায় বলে দেয় এবং Tetzchner Company তে চলে যায়। আর তিনি Opera 14 পর্যন্ত Develop করেছিলো। যার মানে দ্বারায় Opera 14  এর পরেই Vivaldi বাজারে আসে। 

নামের পিছনে রয়েছেন একটা মজার তথ্য। Italian Baroque Composer এবং Virtuoso Violinist হলো Antonio Lucio Vivaldi.যার নাম থেকে থেকে Browser টির নাম রাখা হয়।

Browser টির নিজস্ব কোন Default Setting নেই। আপনি যেভাবে পছন্দ করেন সাজিয়ে নিতে পারবেন। চাইলে Browser এর জন্য একটি Theme তৈরী করে নিতে পারবেন। কোন স্থানে কি Effect রাখা যায় তা নির্ধারন করতে পারবেন।

আরেকটি ফিচার হচ্ছে Web Panel, যা প্রায় বুকমার্কের মতোই কিন্তু বুকমার্কের থেকেও বেশ কাজের। Web Panel সাইটগুলো Panel এর মধ্যেই Open হয় এবং কোনো Address bar  থাকবে না।

আর এর অন্যতম ফিচার হলো Privacy Security. আপনি কিছু বাড়তি ফিচার পেয়ে যাবেন নিজেকে সুরক্ষিত রাখার জন্য।

আরো ব্যবহার করা যাবে Mouse কিংবা Keyboard Gesture. আপনি যে কোন নির্দিষ্ট একটি শর্টকাট Gesture এর মাধ্যমে দ্রুত কাজ করতে পারবেন।

আপনি আরো ফিচার জানতে চাইলে লিংক দিয়ে দিচ্ছি তাদের অফিশিয়াল সাইটের দেখে নিতে পারেন।

Management Tab

Navigation

User Interface

Tools

Mouse & Keyboard

Privacy & Security

Customization

এবার আপনি যদি ডাউনলোড করতে চান তবে নিচে লিংক।

Download Link – 58 MB

আর আপনি যদি Android User হয়ে থাকেন তবে আপনার জন্য রয়েছে Android Verison. ডাউনলোড করতে চাইলে নিচের লিংকে চলে যান।

Direct Link

Alternative

PlayStore Link

3. Maxthon

এই ব্রাউজার টিতে রয়েছে ইউনিক সকল ফিচার। আর এর Cloud ফিচারের জন্য অনেকের পছন্দের Browser. আপনার যে কোন Device এর ডাটা ব্যবহার করতে শুধু একাউন্ট টা লগিন করতে হবে। 

তাদের Cloud সার্ভিসের আরেকটি ফিচারের নাম হলো Cloud Push. যার সুবিধা হলো যেকোনো কনটেন্ট আপনার বন্ধুদের সাথে Mail বা Text Message এর মাধ্যমে শেয়ার করতে পারবেন। এছাড়াও তারা Multiplatform Support করে Data Share করার জন্য।

Cloud Base আর সাথে রয়েছে এর দ্রুত গতির অভিজ্ঞতা। যা আপনি ব্যবহার না করলে বুঝতে পারবেন না।

Youtube Video আপনি চাইলে Pop-Up Player মাধ্যমে চালাতে পারবেন। আর যদি Download করতে চান তবে Build Download Manager.

আরো কিছু Tools রয়েছে যেমন আপনার চোখকে সুরক্ষা রাখার ফিচার। আর Screen Capture এবং Screen Recorder Tools যা আপনার কাজ সহজ করে দিবে।

রয়েছে Build in RSS reader, Notepad , Password Manager , Virtual Mainbox এবং Adblock Plus. এছাড়াও ব্রাউজারে রয়েছে একটি Reader Mode যেটার মাধ্যমে যেকোনো আর্টিকেল বা পেপাল আপনি সাচ্ছন্দ্যে পড়তে পারবেন।

আপনার পাসওয়ার্ড একবার প্রবেশ করালেই সঞ্চয় করে রাখবে। তাই বারবার লেখার ঝামেলা থেকে আপনি মুক্ত।

আপনার জন্য Incognito Mode রয়েছে যাতে আপনি আপনার Private Browsing গুলো চালিয়ে যেতে পারেন।

Maxtron Browser একই সাথে দুটি ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে একটি হচ্ছে Trident এবং আরেকটি হচ্ছে WebKit, যেগুলো Internet Explorer এবং Safari Browser গুলোতে সাধারণত ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

Computer Browser এবার আপনি যদি কম্পিউটার কিংবা Android মোবাইলের জন্য ডাউনলোড করতে চান নিচে লিংক।

Download Link

Computer Browser যদি আর্টিকেল টি ভালো লেগে থাকে তবে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করতে ভুলবেন না কিন্তু।

তাহলে আজকের মত বিদায় দেখা হবে অন্য কোন সময় নতুন কিছু নিয়ে।

চাইলে আমার ছোট্ট ওয়েব সাইট থেকে ঘুরে আসতে পারেন।

projukti71.com

লেখকঃ ইসমাঈল হোসেন (সৌরভ)

Leave a Reply