ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট ফুল গাইড ((মেগা পোস্ট))

বর্তমান বিশ্বে WordPress জনপ্রিয় কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম হিসেবে পরিচিত। হবেই না বা কেনো? বিশ্বের বড় বড় ওয়েবসাইটগুলো যে ওয়ার্ডপ্রেস সিএমএস ব্যবহার করেই তৈরি। ২০০২সালে প্রকাশ্যে আসা এই সিএমএস এর জনপ্রিয়তা সময়ের সাথে বেড়েই চলেছে। তেমনি অনেকের আগ্রহ জমেছে একে পুরোপুরি জানার। বেড়েছে এই সিএমএস ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করার।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করতে প্রয়োজন থিম সম্পর্কে জ্ঞান রাখা। আর এই থিম ডেভেলপমেন্ট শেখার জন্য কী কী করনীয়, কোথায় জানবেন, কোডিং কীভাবে করবেন তা নিয়েই আজকের এই মেগা পোস্ট।

 
ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে বেশি কিছু বলার নেই। যারা ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে আগ্রহ দেখায় তারা ইতিমধ্যেই এ সম্পর্কে অনেক কিছু জানে। তবে যেটা মেনশন না করলেই নয়, “ওয়ার্ডপ্রেস একটি সিএমএস(কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম) এবং যা PHP, MySQL নামক কোডিং ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে তৈরি” । আর নয়, সো লেট’স ডাইভ ইনটু দ্যা মেইন পার্ট…

ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট শিখতে হলে সর্বপ্রথমে আমাদের কয়েকটি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে জানতে হবে। ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট এর ভিত্তি বলা হয় এসব ল্যাঙ্গুয়েজকে। সেগুলো হলো,

HTML
CSS
JAVASCRIPT
PHP
MySQL

HTML, CSS, PHP সম্পর্কে ইন্টারমিডিয়েট জ্ঞান এবং MySQL, JavaScript, সম্পর্কে বিগিনার লেভেলের জ্ঞান হলেই ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট সম্ভব।

 

HTML, CSS, PHP, JavaScript শেখার জনপ্রিয় মাধ্যম হলো w3schools.com .

 

উপরের কোডিং ল্যাঙ্গুয়েজগুলো শেখা হয়ে গেলে/থাকলে আমরা ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্টের দিকে অগ্রসর হতে পারি। ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট শেখার জন্য প্রয়োজন প্রচুর পরিমানে আগ্রহ এবং সময়।

 

ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট এর জন্য তাদের wordpress.org ওয়েবসাইটে থিম ডেভেলপমেন্ট হ্যান্ডবুক রেডি করে রেখেছে। এবং থিম ডেভেলপমেন্ট পরিপূর্ণ রুপে শিখতে হলে তাদের থিম ডেভেলপমেন্ট হ্যান্ডবুক ফলো করার জুড়ি মেলা ভার।

ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট হ্যান্ডবুক

ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট হ্যান্ডবুক অনেকটা পাঠ্যবই এর মতো। বিধায় এর জন্য আরও কিছু ওয়েবসাইট ফলো করতে হবে। ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট হ্যান্ডবুক ফলো করার সময় আপনারা পরিচিত হবেন ওয়ার্ডপ্রেস ফাংশন বিষয়ে। কিছু ওয়ার্ডপ্রেস ফাংশন অনেক জটিল সেগুলো কভার করার জন্য আমাদের প্রয়োজন আরও কিছু ওয়েবসাইটের। সেগুলো,

 

কোন ফাংশন না বুঝলেই পুরো ফাংশনটি কপি করে গুগলে সার্চ করলেই আপনারা কাংখিত টিউটোরিয়াল পেয়ে যাবেন। সব টিউটোরিয়ালে না ঢুকে চেষ্টা করবেন Wpshout, wpbeginner, Stackexchange এর টিউটোরিয়াল ফলো করতে।

 

যেমনঃ ধরুন, আমি এই ফাংশনটি বুঝতে পারছি না। কোথায় বসাবো, কীভাবে কাজ করবে এটা জানার জন্য পুরো ফাংশনটি কপি করুন। তারপর পুরো ফাংশনটিই গুগলে পেস্ট করে সার্চ করুন।

 

 

কোনো কিছু শেখার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে লেগে থাকা। সবকিছু সম্ভব শুধুমাত্র লেগে থাকলেই।

 

আপনার কমেন্টই নতুন কিছু নিয়ে পোস্ট করার আগ্রহ বাড়িয়ে দিবে কয়েকগুন, ধন্যবাদ।

Leave a Reply