কম দামে ডোমেইন হোষ্টিং কিনে প্রতারিত হচ্ছেন না তো ? জেনে নিন ডোমেইন হোষ্টিং কেনার আগে করণীয়

আসসালামু আলাইকুম,

প্রিয় আমারটিপ্সবাসী…
আশা করি সকলে ভালো আছেন ।

বর্তমানে ডোমেইন এবং হোষ্টিং একটি জনপ্রিয় বিষয় । ডোমেইন হোষ্টিং ছাড়া ওয়েবসাইট অকল্পনীয় । এটাই মূলত কেন্দ্র করে অনেকেই নামী-বেনামী অনেক কোম্পানী খুলে বসেছেন আবার অনেকেই লোভনীয় অফার ছড়িয়ে কাষ্টমারের হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন, যা খুবই দন্ডনীয় একটি অপরাধের মধ্যে পড়ে । কিন্তু তারা সম্পূর্ণই ধরাছোয়ার বাহিরে থাকে ।

বিশেষ করে আমাদের বাংলাদেশে থেকে অনেকেরেই মাষ্টারকার্ড বা পেপাল না থাকায় ডোমেইন হোষ্টিং কেনার জন্য অন্যকারও শরনাপন্ন হতে হয় । তারা বাংলাদেশি বা বিদেশী কিছু কোম্পানীর লোভনীয় কিছু অফার দেখে কোন কিছু না বুঝেই বিকাশ বা রকেট বা বাংলাদেশী লোকাল পেমেন্ট করে দিয়ে থাকে । এবং বেশিরভাগই প্রতারণার স্বীকার হয়।

ইদানিং অনেক ছোটবড় কিছু বেনামী কোম্পানী যারা মাথাচাড়া দিয়ে উঠে স্বলদামী লোভনীয় বিঙ্গাপন ছড়িয়ে কাষ্টমারকে বিরাট বিভ্রান্তিতে ফেলে তাদের আকৃষ্ট করছে তাদের থেকে ডোমেইন হোষ্টিং সার্ভিস নেওয়ার । আমরাও  তাদের লোভনীয়  অফারে পা বাড়িয়ে দিই । এবং প্রতারণার স্বীকার হই ।

মূলত তারা এটাই করে যে,

হোষ্টিং এর ক্ষেত্রে কোন রকমের লাইসেন্স ছাড়াই, সিপ্যানেল রিলেটেড সিষ্টেমের ক্রাক ভার্সন ব্যবহার করে থাকে তাই তাদের অতিরিক্ত কোন খরচ হয় না তখন অনেক কম দামে তারা হোষ্টিং সেল করতে পারে । তখন কোন গ্রাহক তাদের সার্ভিস নিলেও সেই সার্ভিসের কোন গ্যারান্টি থাকে না । যে কোন সময় সেই গ্রাহকের ডাটা হ্যাক হয়ে যেতে পারে । কেননা তার সিষ্টেমটি সম্পূর্ণই বেআইনি বা ক্রাক ভার্সন । আবার অনেকেই WHMCS রিলেটেড সিষ্টেমেরও ক্রাক ভার্সন ব্যবহার করে থাকে সেক্ষেত্রেও তাদের গ্রাহকদের ডাটা হ্যাক হবার সম্ভাবনা থাকে । অনেকেই দেখেছি বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপ বা বিভিন্ন সোস্যল মিডিয়ায় জানিয়েছেন যে তাদের ওয়েবসাইট চলছে না বা তাদের ওয়েবসাইট ডাউন দেখাচ্ছে বা তারা যেখান থেকে হোষ্টিং সার্ভিস নিয়েছেন সেই কোম্পানীই উধাও । তারা মূলত এমনই প্রতারণার স্বীকার ।

তবে বাংলাদেশেও কয়েকটি ভালো ভালো ডোমেইন হোষ্টিং কোম্পানী আছে, তবে তাদের কোন লোভনীয় অফার নেই । থাকলেও অনেক কম বা মাঝেমাঝে দেয় ।

আসুন জেনে নেই এ ধরনের প্রতারণা থেকে বাচতে কি কি করণীয়:

প্রভাইডারের সিপ্যানেল বা সিপ্যানেল রিলেটেড সিষ্টেম এর লাইসেন্স আছে কিনা চেক করে দেখুন । এক্ষেত্রে যদি তাদের সিষ্টেম টা cPanel হয়ে থাকে (বাংলাদেশের 99%প্রভাইডার cPanel ব্যবহার করে ) তাহলে তাদের লাইসেন্স চেক করুন । সিপ্যানেল লাইসেন্স চেক করার ইউআরএলটি হলো: https://verify.cpanel.net/app/verify । এখানে গিয়ে আপনার কাংখিত প্রভাইডারের ইউআরএল অথবা তাদের আইপি এড্রেসটি দিন (আইপি এড্রেস যদি না জানেন তবে আপনার প্রভাইডার থেকে আইপি এড্রেসটি জেনে নিন) । যদি তাদের লাইসেন্স করা থাকে তবে এখানে উক্ত সার্চ করার পরে আপনি তাদের লাইসেন্স সম্পর্কিত তথ্য পেয়ে যাবেন । আর যদি লাইসেন্স না থাকে, যদি সিষ্টেমটি দেখাবে “Not Licensed”
প্রভাইডারের বিলিং সিষ্টেমের লাইসেন্স আছে কিনা চেক করে দেখুন, বাংলাদেশীরা সকলেই বেশিরভাগ বিলিং সিষ্টেমের জন্য WHMCS ব্যবহার করে থাকে  । সেক্ষেত্রে WHMCS লাইসেন্স চেক করার জন্য অফিশিয়াল লাইসেন্স চেক ইউআরএল https://www.whmcs.com/members/verifydomain.php এ গিয়ে আপনার কাংখিত প্রভাইডারের ইউআরএলটি বসিয়ে দিন । যদি লাইসেন্স থেকে থাকে তবে লাইসেন্স অথরাইজড দেখাবে আর যদি লাইসেন্স না থাকে তবে লাইসেন্স আনঅথরাইজড দেখাবে । ।
তাদের সম্পর্কে গুগল রিভিউ । একটা কোম্পানী সম্পর্কে সবথেকে ভালো ধারণা পাবেন আপনি গুগল রিভিউ থেকে । কেননা কাষ্টমার সেই কোম্পানী থেকে কেমন সার্ভিস পেয়েছে তা বেশিরভাগ কাষ্টমারই গুগলে রিভিউ করে দেয় । অর্থাৎ আপনার কাংখিত প্রভাইডরের গুগল রিভিউ টা ভালো করে দেখুন যে তারা কেমন সার্ভিস প্রভাইড করছে । এখানে কাষ্টমার ভালোমন্দ সব ধরনের রিভিউ ই দিতে পারে । এখানে যাচাই করে দেখুন যে কোন ধরনের রিভিউগুলো সবথেকে ভালো যদি ভালো রিভিউ বেশি থেকে থাকে তবে অনায়াসে এই কোম্পানী থেকে ডোমেইন হোষ্টিং নিতে পারবেন ।
আপনি যে ডোমেইন হোষ্টিং কিনছেন তার ফুল কন্ট্রোল প্যানেল আপনি পাচ্ছেন কিনা যাচাই করে নিন । কেননা অনেক কোম্পানী আছে যারা আপনাকে ডোমেইন কন্ট্রোল প্যানেল, বা হোষ্টিং কন্ট্রোল প্যানেল দিবে না । সেক্ষেত্রে যেকোন সময় যদি কোনভাবে কোম্পনী টি গায়েব হয়ে যায় তখন আপনার ডোমেইন এবং হোষ্টিং এর ফুল কন্ট্রোল আপনার কাছে থাকায় আপনার সার্ভিসের সম্পূর্ণ নিরাপত্তা বজায় থাকলো। চাইলে তখন আপনি নিজেই রিনিউ করতে পারবেন বা চাইলেই যেকোন কোম্পানীতে আপনার সার্ভিসটি ট্রানস্ফার করতে পারবেন ।

তো বন্ধুরা এই অপশনগুলোই রইলো আপনাদের জন্য । এগুলো যাচাই সাপেক্ষে যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে তবে অবশ্যই সেই কোম্পাণীগুলো থেকে অনায়াসে ডোমেইন হোষ্টিং কিনতে পারেন । কেননা এই লাইসেন্সগুলো তারাই ইস্যু করে থাকবে যারা পার্মানেন্ট ভালো সার্ভিস দিতে বিজনেস করতে এসেছে । আর যাদের নেই তাদের মনে করবেন মুখে মিষ্টি কথা বললেও মুলত তাদের বিজনেস করতে হয় গ্রাহক প্রতারণা করতে এসেছে ।

তো আজ এ পর্যন্তই ।

ভালো থাকুন সবাই

Leave a Reply